অবসরের ঘোষণা দিলেন ইয়ান বেল

অবসরের ঘোষণা দিলেন ইয়ান বেল
Vinkmag ad

ইংল্যান্ডের সাবেক ও ওয়ারউইকশায়ারের বর্তমান ব্যাটসম্যান ইয়ান বেল ঘোষণা দিয়েছেন ২০২০ সালের ঘরোয়া মৌসুমের পর পেশাদার ক্রিকেটকে বিদায় বলবেন।

ইংল্যান্ডের পক্ষে ১১৮ টেস্ট, ১৬১ ওয়ানডে ও ৮ টি টি-টোয়েন্টি খেলেছেন এই ডানহাতি ব্যাটসম্যান। রান করেছেন যথাক্রমে ৭৭২৭, ৫৪১৬ ও ১৮৮। ২৬ টি আন্তর্জাতিক সেঞ্চুরির মালিক বেলের আছে ৮২ টি ফিফটিও।

এখন অব্দি ৩১১ টি প্রথম শ্রেণির ম্যাচ খেলা বেলের রান ২০৩০০। প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটে ১০৩ টি ফিফটির পাশাপাশি ৫৭ টি সেঞ্চুরি করেছেন তিনি। লিস্ট এ ক্যারিয়ারে ৩১৮ টি ম্যাচ খেলে করেছেন ১৩ সেঞ্চুরি ও ৭৯ ফিফটিতে ১১১৩০ রান। স্বীকৃত টি-টোয়েন্টি খেলেছেন ১০৭ টি, ১ সেঞ্চুরি ও ১৮ ফিফটিতে রান করেছেন ২৭৯০।

বেল তার ২২ বছরের ক্রিকেটীয় ক্যারিয়ারের ইতি টানবেন ওয়ারউইকশায়ারের পক্ষে শেষ দুই ম্যাচ খেলে।

অবসর নেবার এক বিবৃতিতে ইয়ান বেল লেখেন,

‘দুঃখের সাথে, তবে গর্ব নিয়ে আমি আমার পেশাদার ক্রিকেটের অবসরের ঘোষণা দিচ্ছি।

আগামীকাল আমি লাল বলে আমার শেষ ম্যাচ খেলবো, আগামী সপ্তাহে আমার শেষ টি-টোয়েন্টি ম্যাচ খেলবো।

এটা সত্য যখন সবাই বলে সঠিক সময় আপনি নিজেই জানবেন। দুঃখজনকভাবে আমার ক্ষেত্রে সেটা এখনই।

খেলাটার জন্য আমার ক্ষুধা, উৎসাহ ও ভালবাসা একই রকম আছে। তবে খেলার স্ট্যান্ডার্ড অনুযায়ী আমি আমার শরীর থেকে যেটা আশা করি তা বজায় নেই।

আমার বাল্যকালের স্বপ্ন – ইংল্যান্ড ও ওয়ারউইকশায়ারের হয়ে খেলাটা পূর্ণ করতে পারা গর্বের। ছোট বেলায় দুই দলের হয়ে কেবল একটি করে ম্যাচ খেলাও আমার জন্য অনেক কিছু ছিল। তবে গত ২২ বছরে যা করেছি তা আমি স্বপ্নেও ভাবতে পারতাম না।

এক তরুণ যে কিনা কেবল এজবাস্টনে ব্যাট করার স্বপ্ন দেখতো তার জন্য ইংল্যান্ড টেস্ট দলের অংশ হওয়া, বিশ্বে এক নম্বর হওয়া, ৫ টি অ্যাশেজ জেতা যার একটিতে সিরিজসেরা হওয়া, ভারতে অ্যাওয়ে সিরিজ জেতা অনেককিছু।

আমি বিভিন্ন কারণে নিজেকে ভাগ্যবান মনে করি। তবে এসব অভিজ্ঞতা যাদের সঙ্গে আমি ভাগ করতে পেরেছি তার জন্য আমি কৃতজ্ঞ।

আমি খুবই ভাগ্যবান যে এমন কিছু মানুষের সঙ্গে ড্রেসিংরুম ভাগ করেছি যারা শুধু বিশ্বের সেরা খেলোয়াড়ই নয়, সেরা মানুষও।

ক্লাব পর্যায়ে আমার দলের হয়ে গোটা ক্যারিয়ার কাটানো, ট্রফি জেতা আমাকে ও আমার পরিবারকে গর্বিত করে। ক্লাবের সাথে সম্পৃক্ত স্টাফ, ক্রিকেটার, সমর্থক সহ যাদের সঙ্গে আমি কাজ করেছি সবাইকে ধন্যবাদ।

আমি সম্প্রতি ক্লাবের সঙ্গে চুক্তির মেয়াদ বাড়িয়েছিলাম। তবে তারা যা ডিজার্ভ করে সেই লেভেল খেলতে না পেরে আমি ক্লাবকে অসম্মান করতে পারি না। ফার্বি, স্টুয়ার্ট ও গোটা দল আমার সিদ্ধান্তের ব্যাপারে খুবই শ্রদ্ধাশীল ছিল এবং আমি তাদের সমর্থনের জন্য কৃতজ্ঞ।

আমি ওভারসিজ ফ্র্যাঞ্চাইজি গুলোকেও ধন্যবাদ দিতে চাই যাদের হয়ে আমি খেলেছি- পার্থ স্কর্চার্স, ইসলামাবাদ ইউনাইটেড ও ঢাকা ডায়নামাইটস।

পার্থ স্কর্চার্সের হয়ে বিগ ব্যাশ জেতা আমার ক্যারিয়ারের অন্যতম বিজ্ঞাপন। এছাড়া পিএসএল ও বিপিএল খেলার সময় আমার যে অভিজ্ঞতা ও বন্ধু হয়েছে তা সবসময় আমার কাছে থাকবে।

ক্যারিয়ারজুড়ে আমি যে সাহায্য, গাইডেন্স, সাপোর্ট পেয়েছি তার জন্য অনেক মানুষের নাম নিতে হয়। আমি তোমাদের প্রত্যেকের সঙ্গে ড্রিংক করবো যত তাড়াতাড়ি সম্ভব। তবে আমি এটা আমার স্ত্রী চান্তাল, আমার সন্তান জোসেফ ও জিস এবং আমার পিতা-মাতাকে ধন্যবাদ না দিয়ে শেষ করতে পারি না। আমি তোমাদের সবাইকে ভালবাসি।

এবং আমি আমার ক্যারিয়ারের জন্য যাকে কারণ মনে করি আমার কোচ নিল অ্যাবের্লি আমাদের সঙ্গে নেই। সে আমার কোচ, মেন্টর ও বন্ধু ছিল। আমি কৃতজ্ঞ যে সে আমার ক্যারিয়ারের বড় একটা অংশ দেখে যেতে পেরেছে। কারণ, আমাকে এই অব্দি আনতে সেই ভূমিকা রেখেছে।

শেষমেশ সকল ক্রিকেট সমর্থকদের ক্যারিয়ারজুড়ে অবিশ্বাস্য সমর্থনের জন্য ধন্যবাদ।

ইংল্যান্ড ইয়াং লায়ন্সের কোচ হয়ে গেল শীত কাটানো আমার কোচিং করার ইচ্ছেতে জ্বালানি হিসাবে এসেছে। আশা করি আমি এই খেলাটার সঙ্গে ভালোভাবে যুক্ত থাকতে পারবো। একই সাথে আমি তোমাদের সবার সঙ্গে কথা বলতে ও দেখা করতে মুখিয়ে আছি খেলাটার সমর্থক হিসাবে যেটাকে আমরা ভালবাসি।’

৯৭ প্রতিবেদক

Read Previous

খাজার হতাশা কেটেছে ল্যাঙ্গারের সাথে আলাপে

Read Next

তিন মোড়লের কাউকে চান না পিসিবি চেয়ারম্যান

Total
37
Share