চলতি সপ্তাহেই চলে আসবেন কোচিং স্টাফরা

রাসেল ডোমিঙ্গো, নেইল ম্যাকেঞ্জি, ড্যানিয়েল ভেট্টোরি জুলিয়ান ক্যালেফাতো

দীর্ঘ বিরতির পর মাস দুয়েক হতে চলল মিরপুর শের-ই-বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়াম ক্রিকেটারদের পদচারণায় মুখরিত হচ্ছে। বিসিবির তত্বাবধানে একক অনুশীলন পর্ব শেষে দুই-তিনজনের গ্রুপ অনুশীলনও চলছে। শুরুতে ব্যাটিং অনুশীলনের জন্য কেবল ইনডোর ব্যবহার করতে পেরেছে ক্রিকেটাররা। চলতি সপ্তাহে সেন্টার উইকেটেও নিজেদের ঝালিয়ে নেওয়া শুরু করেছেন তামিম ইকবাল, মুশফিকুর রহিমরা।

কিন্তু ক্রিকেটারদের অনুশীলনের এই পুরো প্রক্রিয়াটাই শিক্ষকবিহীন ছাত্রের মত চলছে। বিদেশি কোচিং স্টাফরাতো সেই মার্চেই নিজ নিজ দেশে ফিরে গেছেন। এদিকে দেশি কোন কোচের সঙ্গও পায়নি ব্যক্তিগত অনুশীলনে নাম লেখানো ক্রিকেটাররা। তবে আশার কথা দ্রুতই টাইগারদের সাথে যোগ দিতে যাচ্ছে বিদেশি কোচিং স্টাফরা। আগামীকাল (২ সেপ্টেম্বর) এসে পৌঁছানোর কথা প্রধান কোচ রাসেল ডোমিঙ্গো ও ফিল্ডিং কোচ রায়ান কুকের।

চলতি সপ্তাহে আসার সম্ভাবনা আছে পেস বোলিং কোচ ক্যারিবিয়ান ওটিস গিবসনের। ইতোমধ্যে বাংলাদেশে এসে কোয়ারেন্টাইনে আছেন ট্রেনার নিকোলাস ট্রেভর লি। তারা সবাই শ্রীলঙ্কা সফরে বাংলাদেশ দলের সাথেই যাচ্ছেন। ২৭ সেপ্টেম্বর লঙ্কান বিমানে উঠার আগে শিষ্যদের নিয়ে ২২ সেপ্টেম্বর থেকে শুরু করবেন কন্ডিশনিং ক্যাম্প। তার আগে ১৪ দিনের কোয়ারেন্টাইনে থাকবেন রাসেল ডোমিঙ্গো, রায়ান কুকরা।

ডোমিঙ্গো, কুক, লি, গিবসনরা বাংলাদেশ থেকেই শ্রীলঙ্কা সফরে যাবেন দলের সাথে। তবে বিশেষজ্ঞ স্পিন বোলিং কোচ ড্যানিয়েল ভেট্টোরি ও নবনিযুক্ত ব্যাটিং পরামর্শক ক্রেইগ ম্যাকমিলান সরাসরি শ্রীলঙ্কায় যোগ দিবেন।

এ প্রসঙ্গে বিসিবির প্রধান নির্বাহী নিজাম উদ্দিন চৌধুরী সুজন আজ (১ সেপ্টেম্বর) সাংবাদিকদের বলেন, ‘আমরা আশা করছি যে এই সপ্তাহের মধ্যেই কোচিং স্টাফরা চলে আসবেন। আমাদের ফিজিও, ট্রেনার ও প্রধান কোচ, ফিল্ডিং কোচ বাংলাদেশ দলের সাথে যাবেন। এছাড়া বোলিং (পেস) কোচেরও বাংলাদেশ থেকে যাওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। আমাদের বিশেষজ্ঞ কোচ যারা আছেন, স্পিন বোলিং কোচ ও ব্যাটিং কোচ যাকে নেওয়ায় হচ্ছে তারা আমাদের সাথে শ্রীলঙ্কাতে যোগ দেবেন।’

অক্টোবরের ২৩ তারিখ প্রথম টেস্ট মাঠে গড়ানোর সম্ভাব্য তারিখ, তবে এখনো চূড়ান্ত সূচির আনুষ্ঠানিক ঘোষণা দেয়নি কোন বোর্ডই। সিরিজ শুরুর এক মাস আগেই লঙ্কা দ্বীপে রওয়ানা দিবে টাইগাররা। ফলে সেসব নিয়েই আলাপ আলোচনা চলছে দুই বোর্ডের, বিশেষ করে সুবিধাজনক ভেন্যু ইস্যুতে। নিজাম উদ্দিন চৌধুরী বলেন, ‘আপনারা জানেন যে বেশ কিছুদিন আগে যাওয়ার পরিকল্পনা রয়েছে, এ বিষয়গুলো নিয়ে কাজ করছি।’

‘কোন ভেন্যুগুলো আমাদের জন্য উপযুক্ত হবে তা নিয়ে শ্রীলঙ্কা ক্রিকেট বোর্ড ও বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড কাজ করছে। সূচি আনুষ্ঠানিকভাবে শ্রীলঙ্কান বোর্ড ঘোষণা করবে। আমরা একটা আভাস তো অবশ্যই পেয়েছি আর সেভাবেই কাজ করছি।’

৯৭ ডেস্ক

Read Previous

ফেব্রুয়ারিতে নিউজিল্যান্ড সফরে যাবে টাইগাররা

Read Next

হায়দার আলির অভিষেক, আগে ব্যাটিংয়ে পাকিস্তান

Total
4
Share