‘এবার সর্বোচ্চ সংখ্যক মানুষ আইপিএল দেখবেন’

সৌরভ গাঙ্গুলি বিসিসিআই
Vinkmag ad

আইপিএল মানেই দর্শক উন্মাদনার মঞ্চ, হোক সেটা বিশ্বজুড়ে টিভি সেটের সামনে কিংবা গ্যালারিতে। করোনা প্রভাবে এবার অবশ্য মাঠে দর্শক থাকছেনা, সংযুক্ত আরব আমিরাতে ফাঁকা গ্যালারিতেই লড়াইয়ে নামবে ফ্র্যাঞ্চাইজিগুলো। যদিও ৩০ শতাংশ দর্শককে সুযোগ দেওয়া যায় কীনা তা নিয়ে ভাবছে বিসিসিআই। তবে সব ছাপিয়ে এবার টিভি দর্শকদের সংখ্যা রেকর্ড গড়বে বলে মনে করেন বিসিসিআই সভাপতি সৌরভ গাঙ্গুলি।

একটি অনলাইন লেকচারে ভারতীয় বোর্ড প্রধান বলেন, ‘টিভি সম্প্রচারকারী সংস্থা আশা করছে, এবার সর্বোচ্চ সংখ্যক মানুষ আইপিএল দেখবেন। মাঠে না যেতে পারলেও টিভির পর্দায় অবশ্যই সকলে চোখ রাখবেন। সব কিছুরই একটা ইতিবাচক দিক আছে।’

করোনার প্রকোপ কমেছে তবে ঝুঁকি আছে আগের মতই। এমন পরিস্থিতিতে বৈশ্বিক ক্রিকেট ইভেন্টগুলো স্থগিত হলেও আইপিএল ঠিকই মাঠে গড়াচ্ছে। বিসিসিআইয়ের এমন উদ্যোগের প্রশংসা করছেন অনেকেই। তবে কোন কোন মহলে হচ্ছে সমালোচিতও।

এ প্রসঙ্গে গাঙ্গুলির ভাষ্য, ‘আজ থেকে পাঁচ, ছয় মাস পরে হয়তো প্রতিষেধক বেরিয়ে যাবে। তার পর থেকে সব কিছুই আগের মতো স্বাভাবিক হয়ে যাবে।’

‘এই ভাইরাস এখন অনেকটাই শক্তি হারিয়েছে। কয়েক দিনের মধ্যে আরও কমে যাবে বলে আশা করা যায়। আমরা চাইলে আইপিএল না-ই করতে পারতাম। কিন্তু মানুষ তো কত রকম বিপদ থেকে ফিরে এসেছে। যুদ্ধ থেকে ফিরে এসেছে। দুর্যোগ থেকে ঘুরে দাঁড়িয়েছে। আমার বিশ্বাস, এই মহামারী থেকেও সবাই ঘুরে দাঁড়াবে। আইপিএল আয়োজন করে মানুষের মধ্যে একটা ধারণা তৈরি করতে চেয়েছি যে, সব কিছু স্বাভাবিক হয়ে উঠবে।’

দর্শকশূন্য মাঠে খেলা ক্রিকেটারদের জন্য অস্বস্তির হতে পারে কীনা এমন প্রশ্নে বিসিসিআই সভাপতির জবাব, ‘ওরাও জানে এই মহামারীর মধ্যে শারীরিক দূরত্ব বজায় রাখা খুব জরুরি। তা ছাড়া কয়েক দিনের মধ্যেই হয়তো দেখা যাবে স্টেডিয়ামে ৩০ শতাংশ মানুষ খেলা দেখতে পাচ্ছে। প্রত্যেককে পরীক্ষা করিয়ে মাঠে প্রবেশ করতে দেওয়া হলে আরও ভালো। তবে সেটা খুবই সময়সাপেক্ষ একটা পদক্ষেপ।’

৯৭ ডেস্ক

Read Previous

‘হাফিজকে নেতৃত্ব দেওয়া উচিত ছিল’

Read Next

সিনিয়রদের টিম ম্যানেজমেন্ট: বাবরকে পরামর্শ দিও না!

Total
4
Share