‘হাফিজকে নেতৃত্ব দেওয়া উচিত ছিল’

মোহাম্মদ হাফিজ রশিদ লতিফ
Vinkmag ad

পাকিস্তানের সাবেক অধিনায়ক রশিদ লতিফ মনে করেন মোহাম্মদ হাফিজের পাকিস্তানের অধিনায়ক হওয়া উচিত ছিল। গেলবছর যখন উইকেটরক্ষক ব্যাটসম্যান সরফরাজ আহমেদকে সব ফরম্যাটের অধিনায়কত্ব থেকে সরিয়ে দেওয়া হয় তখনই অভিজ্ঞ হাফিজকে অধিনায়ক করা উচিত ছিল বলে মনে করেন রশিদ লতিফ।

নিজের ইউটিউব চ্যানেল কট বিহাইন্ডে সাবেক এই ক্রিকেটার বলেন বর্তমান টেস্ট অধিনায়ক আজহার আলি ও সীমিত ওভারের অধিনায়ক বাবর আজম নেতৃত্ব গুনের জন্য পরিচিত নন।

লতিফ বলেন, ‘সরফরাজকে অধিনায়কের চেয়ার থেকে সরিয়ে দেবার পর হাফিজকে নেতৃত্ব দেওয়া উচিত ছিল। ভিন্ন ভিন্ন ফরম্যাটের জন্য দুজন ভিন্ন অধিনায়ক এসেছেন। যদিও আজহার আলি ও বাবর আজম বিশ্বমানের ক্রিকেটার, তারা অধিনায়ক হিসাবে নিজেদের প্রমাণ করতে পারেনি। এটা বাবরের জন্য কঠিন, আজহারের জন্যও।’

টি-টোয়েন্টিতে ২০১২ থেকে ২০১৪ সাল পর্যন্ত পাকিস্তানকে ২৯ ম্যাচে নেতৃত্ব দিয়েছেন মোহাম্মদ হাফিজ। ৩৯ বছর বয়সী হাফিজ দলকে জিতিয়েছেন ১৭ টি ম্যাচে, দল হেরেছে ১১ টিতে।

২০১৭ তে পাকিস্তান ওয়ানডে দলকেও নেতৃত্ব দিয়েছেন হাফিজ। ২ ম্যাচে অধিনায়কত্ব করে ১ ম্যাচ জিতেছেন হাফিজ, হেরেছেন অপরটিতে। ২০১২ তে সাদা পোশাকে পাকিস্তানকে ১ ম্যাচে নেতৃত্ব দেন হাফিজ। সে ম্যাচে হেরেছিল পাকিস্তান।

ইংল্যান্ডের বিপক্ষে পরাজিত হওয়া দ্বিতীয় টি-টোয়েন্টিতে বাবর আজম ব্যবহার করেননি বোলার মোহাম্মদ হাফিজকে। এই সিদ্ধান্তেরও সমালোচনা করেন রশিদ লতিফ।

৯৩ টি আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টি খেলা মোহাম্মদ হাফিজ রান করেছেন ২০৬১ ও উইকেট নিয়েছেন ৫৪ টি। আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টিতে ২০০০ রান ও ৫ উইকেটের ডাবল পূর্ণ করা প্রথম ও এখন অব্দি একমাত্র ক্রিকেটার হাফিজ।

৯৭ ডেস্ক

Read Previous

জাম্পাকে দলে ভেড়াল আরসিবি

Read Next

‘এবার সর্বোচ্চ সংখ্যক মানুষ আইপিএল দেখবেন’

Total
5
Share