অ্যান্ডারসন বলছেন ‘৭০০’ উইকেট পাওয়া সম্ভব

জিমি অ্যান্ডারসন

ইতিহাসের প্রথম পেসার হিসেবে গতকাল (২৫ আগস্ট) পাকিস্তানের বিপক্ষে সাউদাম্পটন টেস্টের শেষদিন স্পর্শ করেন ৬০০ উইকেটের মাইলফলক। বয়স ৩৮ পেরিয়েছে, শীঘ্রয়ই অবসরে যেতে পারেন বলে গুঞ্জনও উঠেছিল। যদিও জিমি অ্যান্ডারসন জানিয়েছেন খেলতে চান অন্তত ২০২১ সালের অ্যাশেজ পর্যন্ত। এখনো ৭০০ উইকেটের মাইলফলক ছোঁয়াও সম্ভব বলছেন নিজেই।

টেস্ট ইতিহাসেই তার চাইতে বেশি উইকেট আছে মাত্র তিন জনের। যাদের দুজনের রয়েছে ৭০০ বা তার বেশি উইকেট নেওয়ার কীর্তি। লঙ্কান স্পিন কিংবদন্তী মুত্তিয়াহ মুরালিধরন ও অজি লেগ স্পিনারের ঝুলিতে আছে যথাক্রমে ৮০০ ও ৭০৮ টেস্ট উইকেট। অন্যদিকে ভারতীয় লেগ স্পিনার অনিল কুম্বলের নামের পাশে ৬১৯ টেস্ট উইকেট।

তৃতীয় বোলার হিসেবে জিমি অ্যান্ডারসন কি পারবেন সেই মাইলফলক স্পর্শ করতে? সবচেয়ে বড় কথা বয়স বেড়েছে, ক্যারিয়ারের সামনের দিনগুলো নিয়ে অ্যান্ডারসনের নিজের ভাবনাটা কি? ইএসপিএন কে ইংলিশ এই পেসার বলেন, ‘জো রুটের সাথে আমার এ নিয়ে কথা হয়েছে। সে বলেছে আমাকে অস্ট্রেলিয়ায় পেতে চায় (পরবর্তী অ্যাশেজে)।’

‘আমার না পারার কোন কারণ দেখছিনা। আমি ফিটনেস নিয়ে কঠোর পরিশ্রম করছি সব সময়ের মত। আমি খেলা নিয়েও বেশ ভালো পরিশ্রম করছি। হয়তো এই গ্রীষ্মে আমি যেভাবে বল করার কথা সেটা পারিনি। কিন্তু এই টেস্টে (সাউদাম্পটন টেস্টে ইনিংসে পাঁচ উইকেট সহ ৬ উইকেট) ছন্দেই ছিলাম।’

বর্তমানে ঠিক ৬০০ উইকেত নিয়ে টেস্ট ইতিহাসে পেসারদের মধ্যে সর্বোচ্চ উইকেট শিকারি অ্যান্ডারসনের বিশ্বাস ৭০০ উইকেটের মাইলফলক স্পর্শও সম্ভব, ‘আমি অনুভব করি দলটিকে আরও কিছু দেওয়া সম্ভব। যতক্ষণ আমি মনে করবো সম্ভব ততক্ষণ আমি চালিয়ে যাবো। আমি মনে করিনা ইংল্যান্ডের হয়ে আমি শেষ টেস্ট খেলেছি। আমি কি ৭০০ উইকেটের মাইলফলক ছুঁতে পারবো? কেন নয়?’

৯৭ ডেস্ক

Read Previous

হজ-ক্লিঙ্গার-হোয়াইটদের টপকে ভিক্টোরিয়ার কোচ রজার্স

Read Next

ভয়কে জয় করে সাদমানের ভালো শুরুর প্রত্যয়

Total
9
Share