‘টেস্ট দল থেকে সরে যাওয়া উচিৎ সরফরাজের’

সরফরাজ আহমেদ
Vinkmag ad

চলমান ইংল্যান্ড-পাকিস্তান টেস্ট সিরিজের প্রথম ম্যাচে দ্বাদশ খেলোয়াড়ের ভূমিকায় দেখা যায় পাকিস্তানের উইকেট রক্ষক ব্যাটসম্যান সরফরাজ আহমেদকে। গত বছর জানুয়ারিতে সর্বশেষ টেস্ট খেলা সরফরাজকে অবসর নিয়ে সাদা বলের ক্রিকেটে মনযোগী হওয়ার পরামর্শ ধারাভাষ্যকার রমিজ রাজার।

নিজের ইউটিউব চ্যানেলে সাবেক পাকিস্তানি ক্রিকেটার রমিজ রাজা বলেন, ‘আমি আমার বইতে একবার স্পষ্ট করেছি আপনি অধিনায়ক ছিলেন, আর সেখান থেকে নীচে নামা, বেঞ্চে বসে থাকা আসলেই কঠিন।’

‘আমি সরফরাজকে পরামর্শ দিব এটা নিয়ে ভাবার জন্য এবং টেস্ট থেকে অবসরে গিয়ে শুধু সাদা বলের ক্রিকেটে নজর দিক। যা এমন ফরম্যাট যেখানে তিনি খুব ভালো এবং তার আগ্রাসনের জন্য পরিচিত।’

দ্বাদশ ব্যক্তি হয়ে পানি বহন করাটা অসম্মানের কিছু নয়, তবে উপমহাদেশের ক্রিকেট সংস্কৃতিতে বিষয়গুলোকে সুন্দরভাবে গ্রহণ করা হয়না বলে মত রমিজ রাজার।

৫৭ বছর বয়সী এই ধারাভাষ্যকার যোগ করেন, ‘এতে কোন ভুল নেই (দ্বাদশ ব্যক্তির পানি বহন), কারণ ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে দ্বিতীয় টেস্টে জিমি অ্যান্ডারসন না খেললেও পানি পান করিয়েছেন সতীর্থদের।’

‘কিন্তু আমাদের ক্রিকেট সংস্কৃতিতে এসব ভালোভাবে নেওয়া হয়না। আর বিশেষ করে সাবেক কোন অধিনায়ক হলেতো কথাই নেই। নিকট ভবিষ্যতে আমি তার টেস্ট দলে জায়গা পাওয়ার কোন সুযোগ দেখছিনা। তাই তার উচিৎ সাদা বলের ক্রিকেটে মনযোগ দেওয়া। যেখানে সে খেলবে এবং সম্মানও পাবে।’

‘তার টেস্ট স্কোয়াডে থাকাটা মোহাম্মদ রিজওয়ানের জন্যও চাপ তৈরি করবে। কারণ সে জানে একজন সাবেক অধিনায়ক তার ঘাড়ে নিঃশ্বাস ফেলছে। যা তার জন্য কোনভাবেই ভালো কিছু নয়। আমি মনে করি সরফরাজের বেঞ্চে থাকা উচিৎ নয়। টেস্ট ক্রিকেট থেকে তার সরে দাঁড়ানো উচিৎ।’

উল্লেখ্য, ৪৯ টেস্টে পাকিস্তানের হয়ে ৩৬.৪ গড়ে ২৬৫৭ রান করেন সরফরাজ আহমেদ। সবশেষ ১০ টেস্ট ইনিংসে সরফরাজের ব্যাট থেকে মাত্র দুইটি ফিফটি আসে। এর বাইরে মাত্র একটি ইনিংসে ৪০ ছুঁতে পেরেছেন উইকেট রক্ষক এই ব্যাটসম্যান। বাকি দুই ফরম্যাটেও সর্বশেষ জাতীয় দলের জার্সি গায়ে চাপিয়েছেন গত বছর অক্টোবরে ঘরের মাঠে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে।

৯৭ ডেস্ক

Read Previous

আইসিসি’র ভিন্ন উদ্যোগ, কল টু আর্টে সেরা দশে বাংলাদেশি

Read Next

দ্বিতীয় টেস্টের জন্য ইংল্যান্ডের স্কোয়াড ঘোষণা

Total
1
Share