ইংল্যান্ড-পাকিস্তান টেস্ট সিরিজেও পায়ের নো-বল দেখবে তৃতীয় আম্পায়ার

no ball
Vinkmag ad

আইসিসি নিশ্চিত করেছে সবশেষ ইংল্যান্ড-আয়ারল্যান্ড ওয়ানডে সিরিজের মত আজ (৫ আগস্ট) থেকে শুরু হতে যাওয়া ইংল্যান্ড-পাকিস্তান টেস্ট সিরিজেও পায়ের নো বল দেখবেন তৃতীয় আম্পায়ার। ইংল্যান্ড-আয়ারল্যান্ড ওয়ানডে সিরিজটি আইসিসি ওয়ার্ল্ড কাপ সুপার লিগের প্রথম সিরিজ ছিল। মূলত মাঠের দুই আম্পায়ারকে বাড়তি স্বস্তি দিতেই আইসিসি গভর্নিং বডির এমন সিদ্ধান্ত।

এক টুইট বার্তায় আইসিসি জানায়, ‘এই টেস্টগুলোতে প্রযুক্তির কার্যকারিতা পর্যালোচনা করা হবে ভবিষ্যতে টেস্ট ক্রিকেটে ব্যবহারের পূর্বে। দুই দলকেই সাহায্য করার লক্ষ্যে আইসিসি টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের ইংল্যান্ড বনাম পাকিস্তান সিরিজে পায়ের নো-বল প্রযুক্তি ব্যবহার করে তৃতীয় আম্পায়ার দেখভাল করবেন।’

প্রযুক্তির ব্যবহারে তৃতীয় আম্পায়ার পায়ের নো-বল দেখেন চলতি বছর অনুষ্ঠিত নারী টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপেও। এর আগে ২০১৬ সালে পাকিস্তান ও ইংল্যান্ডের মধ্যকার পাঁচ ম্যাচ ওয়ানডে সিরিজ এবং ভারত ও ওয়েস্ট ইন্ডিজের মধ্যকার টি-টোয়েন্টি সিরিজেও তৃতীয় আম্পায়ার পায়ের নো-বল ডাকার দায়িত্ব পান।

এদিকে চলতি বছর আইসিসি ক্রিকেট কমিটি তৃতীয় আম্পায়রকে এই দায়িত্ব ভালোভাবে বুঝিয়ে দেওয়ার সুপারিশ করে। আগের অভিজ্ঞতাগুলো থেকে স্পষ্ট যে এখনো ‘বেনেফিট অব ডাউট’ সুবিধা বোলারের পক্ষেই থাকছে। দেরিতে নো বল ডাকার ক্ষেত্রে মাঠের আম্পায়ারদের সিদ্ধান্ত প্রত্যাহার করতে হবে।

উল্লেখ্য, ইংল্যান্ড-পাকিস্তান তিন ম্যাচ টেস্ট সিরিজের প্রথমটি আজ বাংলাদেশ সময় বিকেল ৪ টায় ম্যানচেস্টারের ওল্ড ট্রাফোর্ডে মাঠে গড়াবে। সিরিজের বাকি দুই টেস্ট সাউদাম্পটনের রোজ বোলে যথাক্রমে ১৩ আগস্ট ও ২১ আগস্ট থেকে শুরু হবে। সফরে তিনটি টি-টোয়েন্টিও খেলবে পাকিস্তান।

৯৭ ডেস্ক

Read Previous

আইপিএলে কোয়ারেন্টাইন সময়সীমা কমানোর দাবি ফ্র্যাঞ্চাইজিদের

Read Next

যে স্বস্তি ছুঁয়ে যাচ্ছে বিসিবি কর্মকর্তাদেরও

Total
3
Share