বাদ পড়ে অবসরের চিন্তাও মাথায় এসেছিল ব্রডের

স্টুয়ার্ট ব্রড
Vinkmag ad

গতমাসে সাউদাম্পটন টেস্ট দিয়ে করোনা পরবর্তী আন্তর্জাতিক ক্রিকেট ফিরে। যা বেশ আলোচিত টেস্ট হিসেবেও বিবেচিত কিন্তু তার চাইতেও বেশি আলোচিত হয় টানা ৫১ টেস্ট পর ঘরের মাঠে স্টুয়ার্ট ব্রডের একাদশ থেকে বাদ পড়া। ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে ম্যাচটি হেরেও যায় ইংলিশরা। পরের দুই টেস্টে ফিরেই ১৬ উইকেট শিকার ব্রডের, স্পর্শ করেন ৫০০ উইকেটের মাইলফলক। টানা দুই টেস্ট জয়ে ২-১ ব্যবধানে ইংল্যান্ড সিরিজ জেতে।

তবে প্রথম টেস্টে বাদ পড়ে বেশ ক্ষোভ ঝেড়েছেন ইংলিশ এই পেসার। নিজের এভাবে বাদ পড়াটা কোনভাবেই মেনে নিতে পারেননি। এবার জানালেন ঐ ম্যাচে বাদ পড়ে অবসরের চিন্তাও এসেছিল মাথায়। ৫০০ উইকেটের মাইলফলক স্পর্শের পর ক্রিকেট বিশ্লেষকরা ব্রডের আরও অনেক দূর যাওয়ার সম্ভাবনাও দেখছেন। তিনি নিজেও বলছেন ৬০০ উইকেট পাওয়ার ব্যাপারে আশাবাদী। অনুপ্রাণিত করছে সতীর্থ জিমি অ্যান্ডারসন।

ইংলিশ গণমাধ্যম ডেইলি মেইলকে ব্রড বলেন, ‘আমার মাথায় কি অবসরের ব্যাপার ঘুরছিল? শতভাগ, কারণ আমি খুব বিপর্যস্ত ছিলাম। আমি অনেকসময় ভাবতে পারিনা এভাবে হতাশ হয়েছি। আগে যখন আমাকে বাদ দেওয়া হয়েছে, আমি ন্যায় বিচার মনে করেছি, সঠিক সিদ্ধান্ত বলে মেনে নিতাম।’

‘এবার যখন স্টোকস (প্রথম টেস্টে ভারপ্রাপ্ত অধিনায়ক) এসে আমাকে জানালো আমি খেলছিনা, আমি অনুভব করছিলাম আমার শরীর কাঁপছে।’

এক মাস আগে ৩৪ বছর পার হয়েছে স্টুয়ার্ট ব্রডের, ফিটনেস বলছে খেলতে পারবেন অন্তত আরও কয়েক বছর। বর্তমানে ৫৮৯ উইকেট নিয়ে ইংল্যান্ডের সর্বোচ্চ উইকেট শিকারি জিমি অ্যান্ডারসন। ৩৮ বছর বয়সী এই পেসার ৩৫ বছর বয়সে প্রথম ইংলিশ বোলার হিসেবে ৫০০ উইকেটের মাইলফলক স্পর্শ করেন। দ্বিতীয় ইংলিশ বোলার হিসেবে এই মাইলফলক স্পর্শ করা স্টুয়ার্ট ব্রড তাকেও ছাড়িয়ে যাবেন বিশ্বাস খোদ অ্যান্ডারসনেরই।

সাবেক কিংবদন্তী ক্রিকেটার, ধারাভাষ্যকার, ক্রিকেট বিশ্লেষকরাও ব্রডকে এখনো অনেক দূর যাওয়ার মত সামর্থ্যবান মনে করেন। ৩৪ বছর বয়সী স্টুয়ার্ট ব্রড সতীর্থ জিমি অ্যান্ডারসনকে দেখে অনুপ্রাণিত। আশাবাদী ৬০০ উইকেট শিকারের ব্যাপারে, ‘আমি ৬০০ উইকেট পেতে পারি? অবশ্যই আমি আমি করি পারবো। ৫০০ উইকেট পাওয়ার সময় জিমি (অ্যান্ডারসন) ৩৫ বছর ১ মাস বয়সী ছিল। আমি পেয়েছি ৩৪ বছর ১ মাস বয়সে। এখন জিমি ৬০০ এর দ্বারপ্রান্তে আর পরিসংখ্যান অবশ্যই বুদ্ধিমান।’

৯৭ ডেস্ক

Read Previous

দ্রাবিড়ের সুবাদে পিটারসেন পেয়েছিলেন ‘নতুন এক বিশ্ব’

Read Next

‘ধোনি ভারতের হয়ে শেষ ম্যাচ খেলে ফেলেছে’

Total
3
Share