আরব আমিরাতে ‘স্যালুট’ করতে মুখিয়ে আছেন কটরেল

শেলডন কটরেল
Vinkmag ad

আইপিএল ফ্র্যাঞ্চাইজি কিংস ইলেভেন পাঞ্জাব সাড়ে ৮ কোটি রুপিতে কিনে নেয় ওয়েস্ট ইন্ডিজ পেসার শেলডন কটরেলকে। চলতি বছর মার্চে আইপিএলের ১৩ তম আসর মাঠে গড়ানোর কথা থাকলেও করোনা প্রভাবে স্থগিত হয় অনির্দিষ্টকালের জন্য। সেপ্টেম্বর-নভেম্বর উইন্ডোতে সংযুক্ত আরব আমিরাতে আইপিএল মাঠে গড়াবে। আরব আমিরাতে নিজের ট্রেড মার্ক ‘স্যালুট ‘ উদযাপন দেখাতে মুখিয়ে কটরেল।

আইপিএলের আগেই অবশ্য ক্রিকেটে ফিরতে যাচ্ছেন কটরেল। চলতি মাসে শুরু হতে যাওয়া ক্যারিবিয়ান প্রিমিয়ার লিগে (সিপিএল) খেলবেন সেন্ট কিটস ও নেভিস প্যাটট্রিয়টসের হয়ে।

এবারের আইপিএলে নিজের প্রথম লক্ষ্য কী জানতে চাইলে ক্যারিবিয়ান এই পেসার বলেন, ‘আমার কিছু লক্ষ্য আছে। প্রথম এবং গুরুত্বপূর্ণ হল ভক্তদের আমার ‘স্যালুট’ উদযাপন দেখানো (হাসি)।’

সিপিএল খেলে কটরেলকে উঠতে হবে আমিরাতের বিমানে। সেখানেই নির্দিষ্ট সময় হোম কোয়ারেন্টাইনে থাকার পর করোনা নেগেটিভ প্রমাণিত হলেই আইপিএলে খেলার ছাড়পত্র পাবেন ক্রিকেটাররা। তবে নিজের প্লে স্টেশনটি সাথে থাকবে বলে কোয়ারেন্টাইন নিয়ে খুব বেশি চিন্তিত নন এই ওয়েস্ট ইন্ডিজ পেসার।

৩০ বছর বয়সী এই পেসার বলেন, ‘আমি জানি সেখানে খেলোয়াড়দের কোয়ারেন্টাইনে থাকা নিয়ে কথা হচ্ছে। কিন্তু সত্যি বলতে আমি একটুও উদ্বিগ্ন না এ বিষয়ে। কারণ আমার প্লে স্টেশন সাথেই থাকছে।’

আইপিএল মাঠে গড়ানোতে ক্রিকেটার, ভক্ত সমর্থক সবার জন্যই ভালো খবর বলে মত কটরেলের। ওয়েস্ট ইন্ডিজের জার্সিতে ২ টেস্ট, ৩৫ ওয়ানডে, ২৭ টি-টোয়েন্টি খেলা এই বাঁহাতি পেসার যোগ করেন, ‘এটি সকল ক্রিকেটার ও ভক্ত সমর্থকদের জন্য দুর্দান্ত খবর। আমার পরিবারের নিরাপত্তা আমার কাছে অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। যে সকল পদক্ষেপ থাকবে সেসব আমাদের জানানো হয়েছে এবং আমরা ঐ অনুসারেই চলবো।’

৯৭ ডেস্ক

Read Previous

ভক্তদের কারণেই অবসরে যাওয়া হচ্ছেনা আফ্রিদির

Read Next

আইপিএলের জন্য আন্তর্জাতিক ক্রিকেটকে দক্ষিণ আফ্রিকার ‘না’

Total
1
Share