টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ স্থগিত, আইসিসির প্রধান নির্বাহীর ভাষ্য

মানু সোহনি আইসিসি
Vinkmag ad

আনুষ্ঠানিকভাবে স্থগিত হল চলতি বছর অস্ট্রেলিয়ায় অনুষ্ঠিতব্য টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ। আইসিসি বোর্ড সভায় অবশ্য ভবিষ্যতের তিনটি বিশ্বকাপের উইন্ডো চূড়ান্ত হয়। আইসিসির প্রধান নির্বাহী বলছেন বোর্ডগুলোকে দ্বিপাক্ষিক সিরিজ ও ঘরোয়া ক্রিকেট নিয়ে পরিকল্পনা সাজাতে সাহায্য করা ও নিরাপদ টুর্নামেন্টের লক্ষ্যেই তাদের এমন সিদ্ধান্ত।

আজ (২০ জুলাই) আইসিসি বিজনেস কর্পোরেশন (আইবিসি) বোর্ড সভায় ২০২১ ও ২০২২ সালে পুরুষদের দুটি টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ ও ২০২৩ সালে পুরুষদের ওয়ানডে বিশ্বকাপের সময়কাল চূড়ান্ত করেছে। তিনটি বিশ্বকাপই বছরের অক্টোবর-নভেম্বর সময়ে মাঠে গড়াবে।

চলতি বছরের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ স্থগিত প্রসঙ্গে সংবাদ বিজ্ঞপ্তির বরাত দিয়ে আইসিসি প্রধান নির্বাহী মানু সোহনি বলেন, ‘আমরা একটি বৃহৎ ও জটিল অনিশ্চিত পরিকল্পনা অনুশীলন করেছি। এই প্রক্রিয়ায় আমাদের প্রথম অগ্রাধিকার হল খেলার সাথে জড়িত সকলের স্বাস্থ্য সুরক্ষা নিশ্চিত করা।’

‘টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ স্থগিতের ক্ষেত্রে আমরা আমাদের হাতে থাকা সকল বিকল্প বিবেচনায় নিয়েই সিদ্ধান্ত নিয়েছি। ফলে বিশ্বব্যাপী ভক্তদের জন্য দুটি নিরাপদ বিশ্বকাপ (২০২১ ও ২০২২) উপহার দিতে সুযোগ তৈরি করেছে।’

করোনাকালে প্রতিটি দলেরই বেশ কিছু দ্বিপাক্ষিক সিরিজ স্থগিত হওয়ার পাশাপাশি ঘরোয়া ক্রিকেটেও বিপর্যস্ত হয়েছে সূচি। বিশ্বকাপ স্থগিত হওয়া বোর্ডগুলোকে সেসব পুনঃসূচিকরণে সাহায্য করবে বলে জানান আইসিসি প্রধান নির্বাহী, ‘আমাদের সদস্যদের জন্য এখন পরিষ্কার একটা রাস্তা তৈরি হয়েছে যেটা দ্বিপাক্ষিক সিরিজ ও তাদের ঘরোয়া ক্রিকেট নিয়ে পুনঃসূচিকরণে দরকার ছিল। আর এ ক্ষেত্রে পুরুষদের বিশ্বকাপটি পরবর্তী উইন্ডোতে স্থানান্তর গুরুত্বপূর্ণ উপাদান।’

‘এই প্রক্রিয়াটি আমাদের বাছাই কার্যক্রমকে আরও সহজ করার সুযোগ সৃষ্টি করছে। এই অতিরিক্ত সময়ে মহামারীর কারণে স্থগিত হওয়া কিংবা হারিয়ে যেতে বসা খেলাগুলো পুনঃসূচিকরণ করতে ব্যবহৃত হবে।’

৯৭ ডেস্ক

Read Previous

আনুষ্ঠানিকভাবে স্থগিত হল টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ

Read Next

আজহার-ফখরের ব্যাটে পিসিবি সবুজ দলের অসাধ্য সাধন

Total
3
Share