আইপিএলের সূচিতে খুশি নয় ব্রডকাস্টার, ব্যাখ্যা দিতে প্রস্তুত বিসিসিআই

আইপিএল বিসিসিআই
Vinkmag ad

ভারতীয় ক্রিকেট নিয়ন্ত্রণ বোর্ড (বিসিসিআই) আইপিএলের ১৩ তম আসরের জন্য ২ সেপ্টেম্বর থেকে ৮ নভেম্বর সময়কে অনেকটা চূড়ান্ত করার পথে। ফলে ১৪ নভেম্বর দিওয়ালি মিস দিতে হবে আইপিএলের ব্রডকাস্টারদের। এতে খুব একটা খুশি নন স্টার ইন্ডিয়া ব্রডকাস্টাররা। যদিও তাদেরকে উপযুক্ত ব্যাখ্যা দিতে প্রস্তুত বিসিসিআই।

ভারতীয় সংবাদ সংস্থা আইএএনএস-এর সাথে কথা বলা এক বিসিসিসআই কর্মকর্তা জানিয়েছেন বিগত কয়েক বছরে দিওয়ালির ধারণা বদলেছে। বিএআরসি (ব্রডকাস্ট অডিয়েন্স রিসার্চ কাউন্সিল) রেটিং মতে খুবটা ফলদায়ক কিছু হয়নি দিওয়ালির ছুটিতে। আর এ কারণেই ভারতীয় দলকে ঐ সময়টা পরিবারের সাথে কাটানোর জন্য ছুটি দেওয়া হয়।

ঐ কর্মকর্তা বলেন, ‘আমরা সবসময় স্টার ইন্ডিয়ার সাথে বসে আলোচনা করতে পারি। যদিও অতীতে তাদের সাথে আমরা বিএআরসি রেটিং নিয়ে আলোচনা করেছি। যেহেতু তারা শুধু আইপিএল সম্প্রচার করেনা, ভারতীয় ক্রিকেট সম্প্রচার সত্বও রয়েছে। আসলে দেখা যাচ্ছে দিওয়ালির ছুটিতে বিএআরসি রেটিং কমে যাচ্ছে।’

‘আর এ কারণেই সাধারণত আমরা দেখেছি আমাদের জাতীয় দলকে ঐ সময় বিরতি নিতে। খেলোয়াড়েরা শুধু প্রাপ্য বিরতিটাই পাননা, তারা দেশের অন্যতম বৃহত্তম উদযাপনের সময় প্রিয়জনের সাথে ভালো কিছু সময় কাটান। যদি কোন বিভ্রান্তি থাকে আমরা সম্প্রচারকদের সাথে আবারও আলোচনা করবো। এটিই আসলে দিওয়ালি পর্যন্ত আইপিএল টেনে না নেওয়ার মূল কারণ।’

একটি ফ্র্যাঞ্চাইজি কর্মকর্তা অবশ্য আইপিএল সূচি নিয়ে খুব একটা সমস্যা দেখছেন না। আইএএনএস কে তিনি বলেন, ‘দেখুন আপনি যদি ফ্র্যাঞ্চাইজি দৃষ্টিকোণ থেকে বলেন তাহলে আমাদের কাছে খুব একটা পার্থক্য মনে হচ্ছেনা। বিষয়টি এমন নয় যে আমরা ভারতীয় দর্শকদের সাথে খেলছি এবং আরও অনেক লোক আসবে আর গেট থেকে আমরা আরও বেশি উপার্জন করবো।’

‘তবে হ্যা সম্প্রচারকারীদের দৃষ্টিকোণ থেকে চিন্তা করলে এমন হতে পারে যে ৭৫ থেকে ৮০ শতাংশ তালিকা বিক্রি হয়ে গেছে। এখন সূচিটি যদি দিওয়ালির উইকেন্ড পর্যন্ত টেনে নেওয়া যায় তাহলে তারা বাকি অংশ সর্বোচ্চ দামে বিক্রি করতে পারবে।’

৯৭ ডেস্ক

Read Previous

ওপেন করতে নেমে স্টোকসের রেকর্ড

Read Next

টাইগারদের অনুশীলনে যোগ দিচ্ছেন আরও দুই ক্রিকেটার

Total
12
Share