ভুলবশত বলে থুতু ব্যবহার করেছেন সিবলি

ডম সিবলি
Vinkmag ad

ওয়েস্ট ইন্ডিজের ১ম ইনিংসের ৪২তম ওভার। ডম বেস ম্যানচেস্টার টেস্টের ৪র্থ দিনের ১ম সেশনের পেনাল্টিমেট (শেষ ওভারের আগের ওভার) ওভার করতে প্রস্তুত। অনফিল্ড আম্পায়ার মাইকেল গফ ও রিচার্ড ইলিংওর্থ বল পরীক্ষা করেন, বল বেসের হাতে দেওয়ার আগে জীবাণুমুক্ত করেন।

কারণ, ডম সিবলি স্বীকার করেন যে তিনি ভুল বশত বলে থুতু লাগিয়ে ফেলেছিলেন। যা ক্রিকেটের দ্য নিউ নরমালের নিয়মের মধ্যে পড়ে না।

করোনাকালে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট মাঠে গড়িয়েছে ওয়েস্ট ইন্ডিজের ইংল্যান্ড সফর দিয়েই। ক্রিকেট নিয়ন্ত্রক সংস্থা আইসিসি (ইন্টারন্যাশনাল ক্রিকেট কাউন্সিল) এই সংকটকালীন সময়ে ক্রিকেটের নিয়মে বেশ কিছু পরিবর্তন এনেছে।

মূলত ক্রিকেট মাঠে স্বাস্থ ঝুঁকি কমাতেই এসব সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। নতুন নিয়মকানুন অবশ্য অন্তর্বর্তীকালীন সময়ের জন্য অনুমোদিত হয়েছে। এর মধ্যে একটি হল বলে থুতু বা লালা ব্যবহারে নিষেধাজ্ঞা।

লালা ব্যবহারে নিষেধাজ্ঞা ও পেনাল্টি-

লালা ব্যবহার না করার ক্ষেত্রে যে নিষেধাজ্ঞা আরোপিত হয়েছে তা শুরুর দিকে কিছুটা শিথিল। কারণ দীর্ঘদিনের এই প্রচলিত অভ্যাস দ্রুত বদলে ফেলার ক্ষেত্রে কিছুটা সমস্যা হতে পারে ক্রিকেটারদের। তবে নির্দিষ্ট সময় পর বেশ কড়াভাবেই আম্পায়ারকে সামলাতে হবে এই দিকটি। প্রতি ইনিংসে দলগুলো দুইবার করে সতর্ক বার্তা পাবে। তবে বার বার বলে লালা ব্যবহার করলে ব্যাটিং দল পাবে অতিরিক্ত পাঁচ রান।

৯৭ ডেস্ক

Read Previous

সিপিএলে খেলার জন্য ‘এনওসি’ পাননি লঙ্কান ক্রিকেটাররা

Read Next

স্মিথ-ওয়ার্নারদের কোচ হলেন হাথুরুসিংহে

Total
12
Share