বাদ পড়ার কারণ খুঁজে না পাওয়া সৌরভ বলছেন এখনো রান করতে পারবেন

সৌরভ গাঙ্গুলি
Vinkmag ad

২০০৭ সালে ওয়ানডেতে পঞ্চম সর্বোচ্চ রান সংগ্রাহক ছিলেন সাবেক ভারতীয় অধিনায়ক ও বর্তমান বিসিসিআই সভাপতি সৌরভ গাঙ্গুলি। ভারতীয়দের মধ্যে তার চেয়ে বেশি রান করেন কেবল যুবরাজ সিং ও শচীন টেন্ডুলকার। ঐ বছর ৩২ ম্যাচে ৪৪.২৮ গড়ে ১২৪০ রান করেছিলেন গাঙ্গুলি। তবে বছরের শেষদিকে খুব একটা ভালো কাটেনি, পাকিস্তানের বিপক্ষে সিরিজে ৪ ম্যাচে করতে পারেননি ৮৯ রানের বেশি, বাদ পড়েছেন পঞ্চম ম্যাচে।

সেই যে বাদ পড়েছেন আর ভারতীয় জার্সিতে ওয়ানডে খেলা হয়নি ভারতের অন্যতম সফল এই অধিনায়কের। পরের বছর টেস্ট থেকেও বিদায় নিয়ে জাতীয় দলের পার্টই চুকিয়ে ফেলেন। কিন্তু ওয়ানডেতে বাদ পড়ার কারণ এখনো খুঁজে পাননা বর্তমান বিসিসিআই সভাপতি। পুরো বছর ধারাবাহিক পারফর্ম করে এক সিরিজের বিবেচনাতেই দরজা বন্ধ হয়ে যাওয়াতেই হয়তো আক্ষেপ সৌরভের।

ওয়ানডে দল থেকে বাদ পড়া প্রসঙ্গে সোরভ গাঙ্গুলি বলেন, ‘এটা একরকম অবিশ্বাস্য ছিল। ঐ পঞ্জিকাবর্ষে সর্বোচ্চ রান সংগ্রাহক হওয়ার পরেও আমাকে ওয়ানডে থেকে বাদ দেওয়া হয়েছিল। আপনার পারফরম্যান্স কত ভালো সেটা বিষয় না যদি আপনার কাছ থেকে মঞ্চটাই দূরে সরিয়ে রাখা হয়। আপনি কি প্রমাণ করতে পারেন? আর কার কাছেই প্রমাণ করবেন? এমন কিছুই হয়েছিল আমার সাথে।’

ভারতীয় বাংলা দৈনিক ‘সংবাদ প্রতিদিনকে’ দেওয়া সাক্ষাৎকারে ১৮ হাজারের বেশি আন্তর্জাতিক রানের মালিক গাঙ্গুলি আরও বলেন, ‘যদি আমাকে ওয়ানডেতে আরও দুটি সিরিজ সুযোগ দেওয়া হত আমি আরও বেশি রান করতাম। আমি নাগপুরে (২০০৮) অবসর না নিলে পরের দুটি টেস্ট সিরিজেও রান করতে পারতাম।’

২০০৮ সালে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট থেকে অবসর নিলেও ২০১২ সাল পর্যন্ত খেলেছেন আইপিএল ও ঘরোয়া ক্রিকেট। ৪৮ বছর বয়সী সৌরভের বিশ্বাস পর্যাপ্ত অনুশীলন ও ট্রেনিংয়ের সুযগ পেলে এখনো ভারতের হয়ে রান করার সামর্থ্য রাখেন।

‘এখন আমাকে ট্রেনিংয়ের জন্য ৬ মাস সময় দিন। তিনটি রঞ্জি ট্রফির ম্যাচ খেলার সুযোগ দিন আমি ভারতের হয়ে টেস্টে রান করতে পারবো। ৬ মাসেরও দরকার নেই আমাকে ৩ মাস দেন, আমি রান করবো।’ যোগ করেন বর্তমান বিসিসিআই সভাপতি।

৯৭ ডেস্ক

Read Previous

এসএসসি’র ক্রিকেট কমিটির চেয়ারম্যান হলেন জয়াবর্ধনে

Read Next

ডার্বিশায়ারে একে অপরের মুখোমুখি আজহার-বাবররা

Total
3
Share