সালিশি মামলায় ৮৫০ কোটি রুপি জিতল বিসিসিআই

বিসিসিআই
Vinkmag ad

সাবেক আইপিএল কমিশনার লোলিত মোদির বিসিসিআই (বোর্ড অব কন্ট্রোল ফর ক্রিকেট ইন ইন্ডিয়া) থেকে বের হওয়ার পর তার শাসনামলের বেশ কিছু বিতর্কিত মামলা ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডের দিকে ঝুঁকে পড়েছে। যার মধ্যে একটি ওয়ার্ল্ড স্পোর্টস গ্রুপের (ডব্লিউএসজি) সাথে একটি সালিশি মামলা জয়। যার বদলৌতে ৮৫০ কোটি রুপি জমা হবে বিসিসিআই অ্যাকাউন্টে।

২৮ জুন, ২০১০ সুপ্রিম কোর্টের বিচারপতি (অবসরপ্রাপ্ত) সুজাতা মনোহর, মুকুন্তকাম শর্মা ও এস এস নীজারের সমন্বয়ে গঠিত একটি সালিশি ট্রাইব্যুনাল বিদেশি অঞ্চলগুলোর জন্য ডব্লিউএসজি এর সাথে আইপিএল মিডিয়া সত্ব চুক্তির সমাপ্তি বহাল রাখে।

ফলে ৮৫০ কোটি রুপির বেশি ভারতীয় বোর্ডে জমা পড়ার কথা ছিল। যদি বিসিসিআই চুক্তি বাতিল না করে তবে নিজেদের লাভের অংশ দাবি করে ডব্লিউএসজি যা পরবর্তীতে সালিশে চলে যায়। ভুলভাবে চুক্তি সমাপ্তি হওয়ায় ক্ষতিপূরণও চায় তারা। বিসিসিআই এটিকে প্রতারণা হিসেবে প্রকাশ করছিল।

বিসিসিআই প্রতিনিধি রঘু রামন বলছেন, ‘প্রমাণিত হয়েছে যে লোলিত মোদি ডব্লিউএসজি কর্মকর্তাদের সাথে ষড়যন্ত্র করে প্রতারণা করেছেন। এবং বিসিসিআইকে বিতর্কিত করেছেন।’

২০১০ সালের জুনেই বিসিসিআই প্রতিষ্ঠানটির সাথে বিদেশি অঞ্চলের জন্য মিডিয়া চুক্তি বাতিল করে। কিন্তু বিতর্কের সৃষ্টি হয় ৪২৫ কোটি রুপি সুবিধা ফি বাবদ প্রদান নিয়ে। ডব্লিউএসজি ২০০৯ সালের ১৫ মার্চ আইপিএল কমিশনের সাথে তিনটি চুক্তি করে কিন্তু তারা কোন সম্প্রচার অংশীদার পায়নি।

এমএসএম (সনি) ৪২৫ কোটি রুপির সুবিধা চুক্তিতে আবদ্ধ হয় ডব্লিউএসজি’র সাথে। তখনো ডব্লিউএসজি’র সাথে উপমহাদেশে আইপিএল সম্প্রচারের সত্ব চুক্তি সম্পন্ন হয়নি বিসিসিআইয়ের। বিদেশে সম্প্রচারের চুক্তি তাদের কাছেই ছিল তবে ফের সুবিধা চুক্তির বিনিময়ে অন্য কাউকে দেওয়াটা বিসিসিআই অনুচিত বলে আখ্যা দেয়।

এরপর সনি ডব্লিউএসজি’র সাথে চুক্তি বাতিল করে এবং বিসিসিআইকে ৩০০ কোটি রুপি প্রদানের পাশাপাশি ডব্লিউএসজি’র কাছ থেকে আদায় করে আরও ১২৫ কোটি রুপিও দেওয়ার আশ্বাস দেয়।

লোলিত মোদি বোর্ড ছাড়ার ১০ বছর পর বিসিসিআই বিতর্কিত সেসব আর্থিক লেনদেন নিজেদের পক্ষে আনতে সক্ষম হয়। যা ভারতীয় বোর্ডকে ৮৫০ কোটি রুপি আর্থিক সুবিধা দিচ্ছে।

রঘু রামন আরও যোগ করেন, ‘বিসিসিআই ২০১০ সালে চেন্নাই পুলিশের কাছে অভিযোগ করে। এখন একটি সিভিল ট্রাইব্যুনাল বলছে এটি লোলিত মোদি ও ডব্লিউএসজি’র কর্মকর্তাদের দ্বারা একটি প্রতারণা ছিল।’

৯৭ ডেস্ক

Read Previous

ফাইনালে সুপার ওভারের আগে স্টোকস নিয়েছিলেন ‘সিগারেট বিরতি’!

Read Next

এক মুহূর্তের জন্য নিজেদের ‘মৃত’ মনে হয়েছিল মরগানের!

Total
4
Share