ফাইনালে সুপার ওভারের আগে স্টোকস নিয়েছিলেন ‘সিগারেট বিরতি’!

বেন স্টোকস
Vinkmag ad

গেলবছরের আজকের এই দিনে (১৪ জুলাই) লর্ডসে বিশ্বকাপের শিরোপা জিতেছিল এউইন মরগানের নেতৃত্বাধীন ইংল্যান্ড দল। ফাইনালে অনবদ্য ব্যাটিং করে ম্যান অব দ্য ফাইনাল হয়েছিলেন বেন স্টোকস। রোমাঞ্চকর সেই ম্যাচে নিজের ওপর চাপ কমাতে সুপার ওভারের আগে সিগারেট বিরতি নিয়েছিলেন স্টোকস।

‘মরগান’স মেন: দ্য ইনসাইড স্টোরি অব ইংল্যান্ড’স রাইজ ফ্রম ওয়ার্ল্ড কাপ হিউমিলিয়েশন টু গ্লোরি’ নামক বইয়ে স্টোকস কীভাবে চাপ সামলেছিলেন তা বর্ণনা করা হয়েছে।

স্টাফ ডট কো ডট এনজেডে প্রকাশিত এক প্রতিবেদন নিক হল্ট ও স্টিভ জেমসের লেখা এই বইয়ের বেশ কিছু অংশ তুলে ধরা হয়।

যেখানে লেখা হয়েছে সুপার ওভারের আগে এউইন মরগান যখন দলকে ড্রেসিংরুমে শান্ত করার কাজ করছেন তখন অপরাজিত ৮৪ রানের ইনিংস খেলা বেন স্টোকস কেউ নেই এমন এক জায়গা খুঁজে সেখানে সিগারেট ধরান।

D f7cotUcAAXTO6

stuff.co.nz এ প্রকাশিত প্রতিবেদনে ঐ বইয়ের কিছু প্রাসঙ্গিক অংশ-

‘Finding a quiet spot as the frenzy of the Super Over approached was hard in a ground packed out with 27,000 supporters and television cameras following the players from the middle, through the Long Room and up the stairs to the dressing room.

‘But Ben Stokes had played at Lord’s many times. He knows every nook and cranny. As Eoin Morgan tries to bring calm to the England dressing room and sort out their tactics, Stokes nips off for a moment of peace.

‘He is covered in dirt and sweat. He has batted for two hours and 27 minutes of unbelievable tension. What does Stokes do? He goes to the back of the England dressing room, past the attendant’s little office and into the showers. There he lights up a cigarette and has few minutes on his own.

‘If the DJ at the ground had known this he would surely have played Bach’s Air on a G String, for the music from the Hamlet advert from the 1980s would have been the perfect backdrop as Stokes tried to make peace with the task ahead of him.’

২ ঘন্টা ২৭ মিনিট ধরে ব্যাটিং করা বেন স্টোকস চাপ কমাতেই এমনটি করেন। পরে সুপার ওভারে বাটলারের সঙ্গে ব্যাটিং করতে নামেন। ৩ বলে ৮ রান করেন স্টোকস, বাটলার করেন ৩ বলে ৭ রান।

সুপার ওভারে নিউজিল্যান্ডও তোলে ঠিক ১৫ রান। পূর্বে নির্ধারিত নিয়ম অনুযায়ী ইংল্যান্ডের ব্যাটসম্যানরা বাউন্ডারি বেশি মারায় ম্যাচ জিতে নেয়।

৯৭ ডেস্ক

Read Previous

‘বাটলার টেস্ট ক্যারিয়ার বাঁচাতে কেবল দুইটি ম্যাচ পাবে’

Read Next

সালিশি মামলায় ৮৫০ কোটি রুপি জিতল বিসিসিআই

Total
137
Share