আইসিসির সিদ্ধান্ত নিতে দেরি, বিরক্ত বিসিসিআই

আইসিসি টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ আইপিএল
Vinkmag ad

করোনা ভাইরাস প্রভাবে এলোমেলো চলতি বছরের ক্রিকেট সূচী। তবে ধীরে ধীরে মাঠে গড়াতে শুরু করেছে ক্রিকেট। ফুটবলসহ অন্যান্য খেলাতো আরও আগেই চালু হয় পুরোদমে। কিন্তু দফায় দফায় বৈঠক করেও অস্ট্রেলিয়ায় অনুষ্ঠিতব্য টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ নিয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নিতে পারছেনা আইসিসি। আর এতেই বেশ বিরক্ত ভারতীয় ক্রিকেটের নিয়ন্ত্রক সংস্থা বিসিসিআই। মূলত বিশ্বকাপের সিদ্ধান্তের উপর ভিত্তি করেই আইপিএল নিয়ে পরিকল্পনা সাজাবে তারা।

গত ২৯ মার্চ মাঠে গড়ানোর কথা ছিল আইপিএলের এবারের আসর। কিন্তু করোনা থাবায় অনির্দিষ্ট কালের জন্য স্থগিত হয় ফ্র্যাঞ্চাইজি ভিত্তিক শীর্ষ এই টুর্নামেন্ট। আর সেটি এই বছরই আয়োজনে বদ্ধপরিকর বিসিসিআই। প্রয়োজনে ভারতের বাইরে আয়োজনের বিকল্প নিয়েও ভাবছে তারা। তবে সবকিছুর পরও একটা সময় অবশ্যই দরকার, আর সেটা ঝুলে আছে বিশ্বকাপের উপর।

অক্টোবর-নভেম্বরে বিশ্বকাপ মাঠে না গড়ালে ঐ ফাঁকা সময়ে আইপিএল আয়োজন করতে চায় বিসিসিআই। আর সে কারণেই বিশ্বকাপের সিদ্ধান্ত নিতে দেরি হচ্ছে বলে যত বিরক্তি তাদের। এখনই মাঠে ক্রিকেট ফেরানো সেরা সময় হিসেবে দেখছেন বিসিসিআই কোষাধ্যক্ষ অরুণ ধুমাল।

তিনি বলেন, ‘ বছরটা বেশ বাজেভাবে শুরু হয়েছে এবং সামনেও যে খুব বেশি স্বস্তি অপেক্ষা করছে তা না। কিন্তু যেহেতু সময় গড়াচ্ছেই আমাদের প্রয়োজন এসব মেনে নিয়ে যেকোন অবস্থার জন্য প্রস্তুত থাকা। ক্রিকেট আলাদা কোন কিছু না। বিসিসিআইয়ের জন্য এটিই সেরা সময় সামনের দিনগুলোর জন্য পরিকল্পনা করার।’

করোনা পরবর্তী বাস্কেটবল, ফুটবল, রাগবির সাথে বিশ্বজুড়ে ক্রিকেটও শুরুর দ্বারপ্রান্তে। তাই বিসিসিআইয়ের তরুণ এই কর্মকর্তার মতে ঘরোয়া ক্রিকেটের দিকে মনযোগ দেওয়া উচিৎ এখনই।

আইসিসির সিদ্ধান্ত তাদের হাতে নেই উল্লেখ করে অরুণ ধুমাল বলেন, ‘এসব ঘোষোণা ও ফলাফল আমাদের হাতে নেই। উদাহরণস্বরূপ টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ পিছিয়ে দেওয়া হচ্ছে, তাই ঘোষণাটি যখন আসা দরকার তখনই আসুক।’

‘আমেরিকাতে এনবিএ শুরু হতে যাচ্ছে। বুন্দেসলিগা প্রথম দেখিয়েছে খেলা ফেরানোর ব্যাপারটি, ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগও একই অবস্থা। এমনকি অস্ট্রেলিয়ার ঘরোয়া রাগবিও মাঠে গড়াচ্ছে। এই হল বর্তমান অবস্থা। বিসিসিআই সেসব নিয়েই কথা বলছে, এমনকি সেপ্টেম্বর পর্যন্ত একই পরিস্থিতি থাকলেও। তো আমরা এখানে কীসের সাক্ষী হচ্ছি?’

‘যখন অলিম্পিক ও বিশ্বকাপের মত আসর পিছিয়ে যায় আমাদের উচিৎ ঘরোয়া লিগে মনযোগ দেওয়া। কারণ ঘরোয়া লিগগুলো বাহ্যিক বিষয়ের সাথে খুব একটা সম্পৃক্ত না। আয়ের খাতগুলোও স্থানীয় ভিত্তিক, ফলে একটু বাড়িয়ে-কমিয়ে হলেও এ দিকটায় মনযোগ দেওয়া যেতে পারে। যাতে একটা ভালো উইন্ডো খুঁজে পাওয়া যায়। টেলিভিশনে দেখানোটাও সহজ হয় কারোন তারা স্থানীয় সময়ের সাথে মানিয়ে নিতে পারবে।’ যোগ করেন বিসিসিআই কোষাধ্যক্ষ।

৯৭ ডেস্ক

Read Previous

‘দ্য সাকিব আল হাসান ফাউন্ডেশন’ এর আরো এক প্রশংসনীয় উদ্যোগ

Read Next

যে যুক্তি দিয়ে সৌরভকে স্ট্রাইক এন্ডে পাঠাতেন শচীন

Total
15
Share