সৌরভের অধিনায়কত্ব হারানোর নেপথ্যে ছিলেন বুকানন

জন বুকানন শাহরুখ খান কোলকাতা নাইট রাইডার্স সৌরভ গাঙ্গুলি
Vinkmag ad

আইপিএল (ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগ) এর প্রথম আসরেই ঘরের দল কোলকাতা নাইট রাইডার্সের নেতৃত্বভার পান সৌরভ গাঙ্গুলি। কিন্তু প্রথম আসরে দল হিসেবে সাফল্য না পাওয়াটা কোচ জন বুকাননের সাথে তার সম্পর্কের হেরফের ঘটায়। এমনকি বুকানন অধিনায়কত্ব থেকেই সরিয়ে দিতে চেয়েছিলেন ‘প্রিন্স অফ কোলকাতা’ কে। সে সময় কোলকাতার সাথে কাজ করা ভারতের সাবেক ওপেনার ও বর্তমান ধারাভাষ্যকার আকাশ চোপড়া এমনটাই জানালেন।

নিজের ইউটিউব চ্যানেলে আকাশ চোপড়া বলেন, ‘আইপিএলের প্রথম মৌসুম, জন বুকানন ছিলেন, রিকি পন্টিংও ছিলেন। সৌরভ গাঙ্গুলি অধিনায়ক ছিল (কোলকাতা নাইট রাইডার্সের)। আমি খুব কাছ থেকে দেখেছি তাদের (গাঙ্গুলি-বুকানন) সম্পর্ক শুরুতে ঠিকঠাক ছিল। যা পরে বেশ বাজে দিকে মোড় নেয়।’

অস্ট্রেলিয়ার ২০০৩ বিশ্বকাপজয়ী দলের কোচ বুকাননের কাজের ধরণের সাথে মিলতনা সৌরভ গাঙ্গুলির মেজাজ। পরের মৌসুমে কোলকাতায় একাধিক অধিনায়ক তত্ব প্রয়োগ করতে চেয়েছিলেন বুকানন। কিন্তু এমন প্রস্তাব ভালোভাবে নেয়নি বর্তমান বিসিসিআই সভাপতি সৌরভ গাঙ্গুলি।

এ প্রসঙ্গে আকাশ চোপড়া বলেন, ‘শেষদিকে সৌরভ গাঙ্গুলিকে অধিনায়কত্ব থেকে সরিয়ে দিতে চেয়েছিলেন বুকানন। যা আসলে পরের মৌসুমেই ঘটে (২০০৯ সালে কোলকাতার নেতৃত্ব বুঝে নেন ব্রেন্ডন ম্যাককুলাম)। কারণ প্রথম মৌসুমে সৌরভের নেতৃত্বে দল ৬ষ্ঠ অবস্থানে টুর্নামেন্ট শেষ করে। কিন্তু তার অধিনায়কত্ব হারানোর পর দল টুর্নামেন্ট শেষ করে অষ্টম অবস্থানে থেকে।’

২০০৯ মৌসুমে দলের ভরাডুবির কারণে উল্টো চাকরি হারান বুকানন। ঐ মৌসুমে অধিনায়কত্ব হারানো গাঙ্গুলিও ব্যাট হাতে হয়েছিলেন ব্যর্থ। ১৩ ম্যাচে করতে পারেননি ১৮৯ রানের বেশি। তবে পরের মৌসুমেই ফিরে পান অধিনায়কত্ব, ব্যাট হাতেও জ্বলে উঠেন। ১৪ ম্যাচে প্রায় ৩৮ গড়ে রান করেন ৪৯৩।

বুকাননের চাকরি হারানো প্রসঙ্গে চোপড়া যোগ করেন, ‘শেষ পর্যন্ত বুকাননকে চলে যেতে হয়েছে। অধিনায়কত্বে একটা জিনিস ভুল হলে অনেক কিছুতে প্রভাব পড়ে। ফলে সৌরভের অধিনায়কত্বে কিছুই ঠিকঠাক হচ্ছিলনা বলা হচ্ছিল।’

‘আমি একটা জিনিসের বিপক্ষে ছিলাম সেটা হল ম্যান ম্যানেজমেন্টের কার্যকলাপ। তারা বন্ধু বান্ধব, কাছের লোক, পরিবারের সদস্যরা একত্রিত হত প্রায়। এটা খুব ভালো দেখায়না। আপনি একদিকে সাবধানতার সাথে দল নির্বাচন করছেন অন্যদিকে পুরো পরিবারকে সাপোর্ট স্টাফ হিসেবে বয়ে নিচ্ছেন।’ কোলকাতার সাথে কাজ করার সময় বাজে অভিজ্ঞতা তুলে ধরতে গিয়ে জানান ভারতীয় এই ধারাভাষ্যকার।

৯৭ ডেস্ক

Read Previous

মইন, বেয়ারস্টোদের বাদ দিয়ে ইংল্যান্ডের স্কোয়াড ঘোষণা

Read Next

যেকারণে গাঙ্গুলিকে ঘৃণা করতেন নাসের হুসাইন

Total
4
Share