যেকারণে পানেসারে অনুপ্রাণিত ভির্দি

অমর ভির্দি
Vinkmag ad

ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে টেস্ট দিয়ে করোনা পরবর্তী আন্তর্জাতিক ক্রিকেট মাঠে ফেরাতে যাচ্ছে ইংল্যান্ড। ৮ জুলাই সাউদাম্পটন টেস্ট দিয়ে প্রত্যাবর্তন হচ্ছে ক্রিকেটের। সিরিজ সামনে রেখে ৩০ সদস্যের প্রাথমিক স্কোয়াডও ঘোষণা করে ইংল্যান্ড ও ওয়েলস ক্রিকেট বোর্ড (ইসিবি)। যেখানে নাম আছে সারে কাউন্টি দলের অফ স্পিনার অমর ভির্দির।

সংখ্যালঘু হয়েও ইংলিশ ক্রিকেটের চূড়ান্ত পর্যায়ে বিবেচিত হওয়ার পথটা মসৃণ ছিলনা তার জন্য। সম্প্রতি ২১ বছর বয়সী এই ক্রিকেটার শোনালেন তার অনুপ্রেরণার গল্প।

সাবেক ইংলিশ অফ স্পিনার গ্রায়েম সোয়ান ও বাঁহাতি অর্থোডক্স মন্টি পানেসারকে দেখে অনুপ্রাণিত হতেন ভির্দি। তবে একই সম্প্রদায়ের (শিখ) বলে মন্টি পানেসার তাকে আলাদা করে টানে। বিশেষ করে সংখ্যালগুদের কেউ জাতীয় পর্যায়ে ভালো কিছু করাটা পুরো সম্প্রদায়কেই গর্বিত ও অনুপ্রাণিত করে। ইংল্যান্ডের হয়ে ৫০ টেস্ট খেলে শিখ সম্প্রদায়ের জন্য তেমন কিছুই করেছিলেন পানেসার।

WATCH: Umar Gul shares his experience of playing in IPL for ...

ছোটবেলার ক্রিকেট নায়কদের কথা জানাতে গিয়ে তাই অমর ভির্দিও মন্টি পানেসারকে টেনে আনলেন। তরুণ এই অফ স্পিনার ইংলিশ গণমাধ্যমে বলেন, ‘আমার মনে পড়ে আমি বড় হয়েছি গ্রায়েম সোয়ান ও মন্টি পানেসারের বোলিং দেখে। এটা আমার কাছে খুবই অনুপ্রেরণার ছিল। অবশ্যই মন্টির ব্যাপারটা আলাদা কিছু কারণ তার সাথে আমার মিল রয়েছে, বিশেষ করে দুজনেই একই সম্প্রদায়ের (শিখ)।’

‘বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই আমরা সংখ্যালঘু হিসেবে আছি। আপনি যে ক্ষেত্রে আছেন সেখানে কেউ উন্নতি করছে এবং ভালো করছে এটা দেখা সত্যি অনুপ্রেরণার। ব্যাপারটি এমন যে তারা যদি করতে পারে আপনিও পারবেন।’

ইংল্যান্ড লায়ন্সের হয়ে ২০১৯-২০ মৌসুমে অস্ট্রেলিয়া সফরে যাওয়া তরুণ এই অফ স্পিনার ২৩ ম্যাচে ৬৯ প্রথম শ্রেণির উইকেট শিকার করেছেন। ২০১৭ সালে সারে কাউন্টি ক্লাবের হয়ে প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটে অভিষেক হয় তার। সংখ্যালঘু হওয়ার কারণে নিজেদের সম্প্রদায়ের বাইরে ক্রিকেট খেলে ভালো পর্যায়ে যাওয়া কঠিনই ছিল।

অমর ভির্দি বলেন, ‘সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের কারও জন্য ব্যাপারটা অনেক কঠিন যে নিজেদের গন্ডির মধ্যে খেলা ও বড় ক্লাবে সুযোগ পাওয়া। উদাহরণস্বরূপ আমার কথাই বলি, আমি ইন্ডিয়া জিমখানায় শুরু করি যেখানে সংখ্যাগরিষ্ঠ ছিল এশিয়ানরা। আমি বুঝতে পেরেছি সানবুরি ক্রিকেট ক্লাবে যাওয়া কতটা দুশ্চিন্তার ছিল আমার জন্য। যা আমি ১২ বছর বয়সে করেছি।’

‘তবে এটা আমার ক্রিকেট ক্যারিয়ারের সেরা পদক্ষেপ ছিল। কারণ একটি স্বীকৃত মান বজায় থাকে এমন জায়গায় খেলা গুরুত্বপূর্ণ ছিল। যেখানে আপনি নিজেকে মেলে ধরতে পারবেন এবং পূর্ণ সমর্থন পাবেন।’

Off-spinner Amar Virdi wants to emulate Monty Panesar and make a ...

 

নিজের বোলিংয়ে পাকিস্তানি সাবেক কিংবদন্তী অফ স্পিনার সাকলাইন মুশতাক ও ইংলিশ স্পিনার প্যাট পোককের প্রভাবও তুলে ধরেন ভির্দি। তিনি বলেন, ‘স্পষ্টতই তরুণ বয়সে আমি সাকলাইন মুশতাকের কাছে কোচিং করতে পারাটাকে গুরুত্বপূর্ণ বলবো। যিনি দুসরা আবিষ্কার করেছেন, তার মত একজন কিংবদন্তীকে কোচ হিসেবে পাওয়া ভাগ্যের ব্যাপার। এ ছাড়া প্যাট পোকক আমাকে স্পিন বোলিংয়ের ব্যাপারে বেশ উৎসাহী করেছে। ব্যাপারটা অনেকটা এরকম যে, মিষ্টির দোকানে গেলে একজন বাচ্চার যেমন অনুভূতি হয় সেরকম।’

৯৭ ডেস্ক

Read Previous

দ্বিতীয় দফা করোনা টেস্টে নেগেটিভ ‘৬’ পাকিস্তানি ক্রিকেটার

Read Next

বাংলাদেশ ক্রিকেট ও ভক্তদের অবদান নিয়ে বিশেষ ওয়েবিনার

Total
1
Share