ভারতে বিশ্বকাপঃ ভিসা ইস্যুতে নিশ্চয়তা চায় পাকিস্তান

ভারত পাকিস্তান
Vinkmag ad

ভারত-পাকিস্তানের রাজনৈতিক দ্বন্দ্বের প্রভাব ভালোভাবেই পড়েছে ক্রিকেটে। লম্বা সময় ধরে দ্বিপাক্ষিক সিরিজ নেই দুই দেশের মধ্যে। আইসিসি ইভেন্টেও একে অপরের মুখোমুখি হওয়া নিয়ে ক্রিকেট ভক্তদের দেখতে হয় নানা নাটকীয়তা। আসন্ন এশিয়া কাপ পাকিস্তানে আয়োজনের কথা থাকলেও ভারত খেলতে অনাগ্রহ দেখায়। ফলে করোনা প্রভাবে অনিশ্চয়তার দোলাচলে থাকা এশিয়া কাপের ভেন্যু পরিবর্তনের সিদ্ধান্তও নিতে হয় পিসিবিকে।

করোনা বাধা দূরে ঠেলে এশিয়া কাপ যদি মাঠে গড়ায় সেক্ষেত্রে শ্রীলঙ্কা কিংবা সংযুক্ত আরব আমিরাতে অনুষ্ঠিত হবে। এদিকে ২০২১ টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ ও ২০২৩ ওয়ানডে বিশ্বকাপ আয়োজনের কথা ভারতের। এ ক্ষেত্রেও পাকিস্তানি ক্রিকেটাদের যে ভিসা জটিলতায় পড়তে হবেনা এমন নিশ্চয়তা নেই। আর এ কারণেই আইসিসির মাধ্যমে আগেই পাকিস্তানি ক্রিকেটারদের ভারতীয় ভিসা দেওয়ার নিশ্চয়তা চাচ্ছে পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড।

টুর্নামেন্ট দুটি খেলার ব্যাপারে ভিসা জটিলতায় না পড়তে আইসিসির দ্বারস্থ হওয়ার কথা নিশ্চিত করেছেন পিসিবি প্রধান নির্বাহী ওয়াসিম খান। ‘ক্রিকেটবাজ’ নামক একটি ইউটিউব চ্যানেলে দেওয়া সাক্ষাৎকারে তিনি বলেন,

‘আমরা ২০২১ ও ২০২৩ সালে ভারতে অনুষ্ঠিতব্য বিশ্বকাপ দুটি নিয়েও ভাবছি। এবং ইতোমধ্যে আইসিসিকে বিসিসিআইয়ের কাছ থেকে লিখিত নিশ্চয়তা দেওয়ার জন্য বলেছি। যাতে ভিসা ও ছাড়পত্র পেতে আমাদের কোন সমস্যা না হয়।’

সম্প্রতি ভারতীয় গণমাধ্যম হিন্দুস্থান টাইমসের বরাত দিয়ে বলা হয়েছে বিসিসিআইকে বিষয়গুলো নিয়ে ভারত সরকারের সাথে খোলামেলা আলোচনা করতে অনুরোধ করে পিসিবি। ওয়াসিম খান বলছেন পরবর্তী টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ কোথায় অনুষ্ঠিত হবে সেটাই বড় প্রশ্ন। মূলত করোনা ভাইরাসের কারণে চলতি বছর অস্ট্রেলিয়ায় অনুষ্ঠিতব্য টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ ঝুলে থাকায় এমন প্রশ্নের উদ্ভব।

পিসিবি প্রধান নির্বাহী বলেন, ‘এখন সবচেয় বড় প্রশ্ন হল ২০২১ টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ কখন কোথায় অনুষ্ঠিত হচ্ছে? যেহেতু ভারত আগেই ২০২১ টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের আয়োজক হিসেবে নির্ধারিত।’

‘এ জন্য আমরা অগ্রিম আশ্বাস চেয়েছি। তবে শেষ পর্যন্ত এটি একটি আইসিসি ইভেন্ট। আর এটা তাদের দায়িত্ব যে পূর্ণ সদস্য দল ও স্বাক্ষরকারী হিসেবে আমাদের অংশগ্রহণ নিশ্চিত করা।

ভারতীয় বোর্ডের সাথে পিসিবির সু সম্পর্ক বিদ্যমান বলে জানান ওয়াসিম খান। কয়েকজন পাকিস্তানি সাবেক ক্রিকেটারের দাবি ক্রিকেটের স্বার্থেই ফেরানো হোক ভারত-পাকিস্তান দ্বিপাক্ষি সিরিজ। কিন্তু পিসিবি প্রধান নির্বাহী বলছেন বাস্তবিক কারণেই সেটা সম্ভব নয়, ‘বিসিসিআইয়ের সাথে আমাদের সুসম্পর্ক রয়েছে তবে আমরা জানি নিকট ভবিষ্যতে দ্বিপক্ষীয় সিরিজ সম্ভব নয়, আর এটিই বাস্তবসম্মত।’

৯৭ ডেস্ক

Read Previous

তামিম-মুমিনুলদের জন্য বিসিবি’র ‘ওয়েলনেস অ্যাপ’

Read Next

হোম সিরিজ আয়োজনের ব্যাপারে আশাবাদী কিউইরা

Total
7
Share