ক্রিকইনফোর চোখে নতুন দশক মাতাবেন যারা

featured photo updated v 1
Vinkmag ad

২০২০ সালের শুরুটা ক্রিকেট কেবল নয়, কোন কিছুর ক্ষেত্রেই ভাল যায়নি। করোনার প্রকোপে এলোমেলো গোটা বিশ্ব। যদিও দুর্যোগ কেটে যাবে দ্রুত এমনটাই প্রত্যাশা সবার। আবার মাঠে ফিরবে ক্রিকেট, ক্রিকেটারদের পারফরম্যান্স নজড় কাড়বে ভক্ত-সমর্থকদের।

নতুন দশকে কারা ক্রিকেট মাঠ মাতাবেন তার একটা সম্ভাব্য তালিকা করা হয়েছে ইএসপিএনক্রিকইনফোর ক্রিকেট মান্থলিতে। যেখানে ১৫ জনের প্যানেল (কোচ, ক্রিকেটার, স্কাউটস, অ্যানালিস্ট, ইত্যাদি) বেঁছে নিয়েছেন ২০ জন ক্রিকেটার।

প্যানেলে যারা ছিলেন- টম মুডি, মাইক হেসন, দ্বীপ দাসগুপ্তা, হিল্টন ডিওন অ্যাকারম্যান, ইয়ান বিশপ, এআর শ্রীকান্ত, টিম উইগমোর, রাসেল আরনল্ড, পরশ মাম্ব্রে, হাসান চিমা, শ্রীনাথ বাশ্যাম, তামিম ইকবাল, অ্যাকন্ডি মোলস, জ্যারোড কিম্বার ও রবিন পিটারসন।

২০ জন ক্রিকেটারের মধ্যে বেশিরভাগই অনূর্ধ্ব-১৯ ক্যাটাগরির। ১৫ বছর বয়সী আফগান লেগ স্পিনার নুর আহমেদ সর্বকনিষ্ঠ, ২৬ বছর বয়সী পাকিস্তানি পেসার হারিস রউফ এই তালিকায় সবচেয়ে বেশি বয়সী। ২০১৯ সালের ৩১ ডিসেম্বর পর্যন্ত দেশের হয়ে ৫ টেস্ট/৭ ওয়ানডে/৭ টি-টোয়েন্টির বেশি খেলেননি এমন প্রতিশ্রুতিশীল ক্রিকেটারদের বিবেচনা করা হয়েছে।

চলতি বছরে অনুষ্ঠিত অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপ ফাইনাল খেলা ৩ জন ক্রিকেটার আছেন তালিকায়, আছেন যুবা টাইগারদের শিরোপা জয়ী অধিনায়ক আকবর আলি। বাংলাদেশ থেকে আছেন কেবল আকবরই।

ক্রিকেট মান্থলিকে আকবর আলি জানিয়েছেন তার পিতা মোহাম্মদ মোস্তফা তার কাছে সবসময়ের জন্য নায়ক। লম্বা সময়ের জন্য বাংলাদেশ দলের হয়ে খেলা তার স্বপ্ন। অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপের ফাইনাল তার কাছে সবচেয়ে প্রিয় ম্যাচ।

আকবর আলি সম্পর্কে অনূর্ধ্ব-১৯ দলের বিশ্বকাপজয়ী কোচের মূল্যায়ন, ‘সে গত দুই বছরে অবিশ্বাস্য কিছু করেছে। সে ৭ নম্বরে ব্যাট করে আমাদের জন্য কঠিনতম কাজটা করেছে। আমরা সবসময়ই জানতাম তার খেলা শেষ করে আসার টেম্পারমেন্ট ও কনফিডেন্স আছে। যতক্ষণ সে উইকেটে থাকে ততক্ষণ আমাদের এই আত্মবিশ্বাস থাকে যে আমরা ম্যাচ জিততে পারব।’

নতুন দশক মাতাবেন যারা-

শুবমান গিল (ভারত), টম ব্যান্টন (ইংল্যান্ড), নুর আহমেদ (আফগানিস্তান), নাসিম শাহ (পাকিস্তান), জশ ফিলিপ (অস্ট্রেলিয়া), রাচিন রাভিন্দ্রা (নিউজিল্যান্ড), কার্তিক তিয়াগি (ভারত), আকবর আলি (বাংলাদেশ), ওলি পোপ (ইংল্যান্ড), ইব্রাহিম জাদরান (আফগানিস্তান), গেরাল্ড কোয়েটজে (দক্ষিণ আফ্রিকা), যশ্বভী জাইসওয়াল (ভারত), রহমানউল্লাহ গুরবাজ (আফগানিস্তান), জেডেন সিলস (ওয়েস্ট ইন্ডিজ), হায়দার আলি (পাকিস্তান), কায়েস আহমেদ (আফগানিস্তান), জেক ফ্রেসার-ম্যাকগার্ক (অস্ট্রেলিয়া), পৃথ্বী শ (ভারত), হারিস রউফ (পাকিস্তান) ও লাসিথ এম্বুলদেনিয়া (শ্রীলঙ্কা)।

৯৭ ডেস্ক

Read Previous

না ফেরার দেশে রঞ্জি ট্রফির সর্বোচ্চ উইকেট সংগ্রাহক

Read Next

সুস্থ আছেন মাশরাফি, বাসায় থেকেই চিকিৎসা

Total
68
Share