সীমা না ছাড়িয়ে যাবার আর্জি জানালেন রমিজ রাজা

রমিজ রাজা
Vinkmag ad

সাম্প্রতিক সময়ে সাবেক তো বটেই বর্তমান ক্রিকেটাররাও মজেছেন ইউটিউব চ্যানেলে। বাড়তি আয়ের পাশাপাশি নিজের একান্ত মতামত ব্যক্ত করার সহজ মাধ্যম বলা যায় এটিকে। পাকিস্তানি সাবেক ক্রিকেটার ও বর্তমান ধারাভাষ্যকার রমিজ রাজা ইউটিউবে নিয়মিত বেশ লম্বা সময় ধরে। তাকে অনুসরণ করে এ পথে আসা বর্তমান ও সাবেক ক্রিকেটারদের জন্য রমিজ রাজা দিয়েছেন বিশেষ পরামর্শ।

অহেতুক কাদা ছোড়াছুঁড়ি করে পাকিস্তানের ভাবমূর্তি নষ্ট না করার আর্জিও জানিয়েছেন তিনি। জনপ্রিয় এই ধারাভাষ্যকার বলেন ইলেকট্রনিক ও ডিজিটাল মিডিয়াতে নিজের মতামত ব্যক্ত করার ক্ষেত্রে সচেতনতা অবলম্বন জরুরী।

সাবেক পাকিস্তানি এই ক্রিকেটার বলেন, ‘মাইক্রোফোন একটি শক্তিশালী মাধ্যম। যা কারও প্যান্ট টেনে নামাতে দুই সেকেন্ড সময় লাগায়। তাই আমাদের খুব সতর্ক হওয়া দরকার। সম্মান দেওয়া প্রয়োজন এবং হজম করা যাবে এমন কথা বলতে হবে।’

দিন কয়েক আগে নেতিবাচক মন্তব্য করে পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ডের সমালোচনার শিকার হন শোয়েব আখতার। সাবেক এই গতি তারকার বিরুদ্ধে সাইবার ক্রাইম মামলাও করা হয়েছে। ঐ প্রসঙ্গ টেনে ৫৭ বছর বয়সী এই ধারাভাষ্যকার বলেন, ‘আমি এসব বলছি কারণ পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড একজন বা দুইজনের বিরুদ্ধে সাইবার অপরাধে মামলা করেছে। কিছু লোক সীমা ছাড়িয়ে গিয়েছে, কারণ আপনি যখন হতাশ হবেন তখনই নিজেকে জাহির করবেন। তবে এটি করার ভিন্ন উপায় আছে।’

সাবেক ক্রিকেটারদের গঠনমূলক সমালোচনা করা উচিৎ বলে মনে করেন রমিজ রাজা, ‘অনেক সাবেক ক্রিকেটার ইউটিউব চ্যানেল খুলছেন। দয়া করে এমনভাবে মন্তব্য করুন যাতে এটি ব্যক্তিগতভাবে কাউকে আঘাত না করে কিংবা আপনার বিরুদ্ধে ফেডারেল ইনভেস্টিগেশন এজেন্সির (এফআইএ) কাছে রিপোর্ট করতে হয়।’

‘প্রতিটি সাবেক-বর্তমান ক্রিকেটারের রুটি রুজি নির্ভর করে ক্রিকেটের উপরই। পাকিস্তান ক্রিকেট গত এক মাসে এসবের জন্য ভুল শিরোনাম হয়েছে যা তার ভাবমুর্তি ক্ষুণ্ণ করেছে। আপনি সমালোচনা করতে পারেন কারন সিস্টেমে ত্রুটি আছে কিন্তু সেটা অবশ্যই বুদ্ধিমত্তার সাথে।’

৯৭ ডেস্ক

Read Previous

সালমা-রুমানাদের জন্য আসছেন ইউরোপিয়ান কোচ

Read Next

করোনা জয়ের গল্প শোনালেন তৌফিক ওমর

Total
3
Share