আইসিএল খেলতে যেতে ৮ কোটি টাকার প্রস্তাব পেয়েছিলেন মাশরাফি

মাশরাফি বিন মর্তুজা
Vinkmag ad

বিশ্বকাপ পরবর্তী সময়ে বাংলাদেশ ক্রিকেটে সবচেয়ে আলোচনার বিষয় ছিল ওয়ানডে অধিনায়ক মাশরাফি বিন মর্তুজার অবসর। গুঞ্জন থাকলেও বিশ্বকাপতো বটেই এরপর দেশে ফিরেও কোন ঘোষণা আসেনি তার কাছ থেকে। বরং চোটের কারণে শেষ মুহূর্তে শ্রীলঙ্কা সফর বাদ হলেও আগেরদিন পর্যন্ত মাশরাফিই অধিনায়ক হিসেবে সংবাদ সম্মেলনও করেছেন। চোট কাটিয়ে বিপিএল দিয়ে মাঠে ফেরা এই পেসার তখনো জানান এখনই অবসর নয়, খেলে যেতে চান আরও কিছুদিন।

অন্যদিকে বোর্ড থেকে গণমাধ্যমে নানাভাবে বোঝানোর চেষ্টা মাশরাফির অবসর চান তারা। মাশরাফি রাজি হলে জাঁকজমকপূর্ণ বিদায়ী সিরিজের আয়োজনও করতে চান। বোর্ড-মাশরাফির অমন আচরণের ফাঁকে বিভিন্ন ইস্যুতেই দেশের অন্যতম সফল এই অধিনায়ককে সমালোচনার সম্মুখীন হতে হয়েছে। যার মধ্যে আর্থিক ব্যাপারও ছিল।

টাইগারদের সাবেক অধিনায়ক বলছেন বোর্ড সভাপতি তাকে অনেক বেশি সম্মান দিলেও তার আশেপাশের লোকদের দ্বারা হয়েছেন অপমানিত।

দিন কয়েক আগে জানিয়েছেন বিশ্বকাপের শেষ ম্যাচেই অবসর নিতে চেয়েছেন। বোর্ডের অনিচ্ছাতেই ক্যাপ্টেন ফ্যান্টাস্টিক সেটা করতে পারেননি। তার অবসর ইস্যুতে সেই বোর্ডই যখন গণমাধ্যমে ফলাও করে চাপাচাপি শুরু করে তা খারাপ লাগার কথা তার। কিন্তু মাশরাফির খারাপ লাগেনি সেসবেও বরং তার ক্রিকেট খেলার সাথে আর্থিক সম্পর্ক টানাই বেশি আঘাত করেছে তাকে। বিশেষ করে বোর্ড সভাপতির সাথে তার আলোচনা সম্পর্কে না জেনে করা মন্তব্যও হতাশ করেছে দেশ সেরা এই পেসারকে।

ক্রিকেট ভিত্তিক ওয়েবসাইট ‘ক্রিকবাজকে’ মাশরাফি বলেন, ‘পাপন ভাই (বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন) আমার সাথে এটি (অবসর) নিয়ে কথা বলেছে। তিনি আমাকে আরও বলেছেন শুধু আমার সাথেই কথা বলবেন এই ইস্যুতে অন্য কারও সাথে নয়।’

‘সে বারবার আমাকে ফোন করে সিদ্ধান্ত নিতে বলেন। আমি তাকে বলেছি বিপিএল পর্যন্ত খেলতে চাই। এরপর তিনি গণমাধ্যমে গিয়ে বলেছেন। আমার স্পষ্ট মনে আছে তিনি সবাইকে রুম ছেড়ে যেতে বলেছেন কারণ আমার সাথে একান্তে কথা বলতে চেয়েছেন। এ ক্ষেত্রে তিনি আমাকে বেশ সম্মান দিয়েছেন।’

তবে কষ্টের জায়গাটা কোথায় তা পরিষ্কার করতে সাবেক এই অধিনায়ক যোগ করেন, ‘সমস্যাটা হল যারা সেখানে ছিল তারা গুজব ছড়িয়েছে। আমার ও পাপন ভাইয়ের মধ্যে কি আলোচনা হয়েছে তা তারা কেউই জানতনা। তারা আমার বেতন নিয়ে কথা বলেছে, জিজ্ঞাসা করে কেন বোর্ড কোন বিনিময় ছাড়া কাউকে কিছু দিয়ে দিবে? আমি কি ১৮ বছর ধরে টাকার জন্য ক্রিকেট খেলেছি? যদি টাকার কথা চিন্তা করতাম আমার অনেক সুযোগ ছিল।’

টাকার জন্য ক্রিকেট খেলেন না উল্লেখ করে মাশরাফি আরও বলেন, ‘আমি টাকার জন্য ক্রিকেট খেলিনি। সবচেয়ে খারাপ ব্যাপার হল তারা এমনভাবে গুজব ছড়িয়েছে যেন বিশ্বকাপে বাংলাদেশ সাড়ে ৯ জন নিয়ে খেলেছে। আপনি কি মনে করেন আমি এটার প্রাপ্য? হতে পারে বোর্ড আমাকে আরও ভালো বিদায় দিতে চেয়েছে। তবে আপনাকে আমার দিকটাও দেখতে হবে। আমার শ্রীলঙ্কা যাওয়া নিয়েও কথা হয়েছে, চোটে না পড়লে আমি শ্রীলঙ্কা সফরেও যেতাম।’

‘আমি শুধু জানি আমি আমার জীবনটা ক্রিকেটের জন্যই সঁপে দিয়েছি এমনকি নানা কষ্টে হৃদয়ে রক্তক্ষরণ হয়েছে বারবার তবুও ক্রিকেটই আমার সব। টাকাই যদি মাণদন্ড হত চোটে পড়ে ক্যারিয়ার শঙ্কায় পড়েছে অনেকবার তখনই কিন্তু ভিন্ন কিছু করতে পারতাম। ৮ কোটি টাকার প্রস্তাব পেয়েও আইসিএল খেলতে যাইনি। আমি আমার জীবন দিয়ে ক্রিকেট খেলেছি। হয়তো বড় কোন খেলোয়াড় হতে পারিনি কিন্তু নূন্যতম সম্মান আশা করতে পারি।’

৯৭ ডেস্ক

Read Previous

চাহাল ইস্যুতে যুবরাজের দুঃখ প্রকাশ

Read Next

তীব্র সমালোচনার পর পিসিবির সিদ্ধান্তে বদল

Total
248
Share