চাহাল ইস্যুতে যুবরাজের দুঃখ প্রকাশ

যুবরাজ সিং
Vinkmag ad

অনেকটা মজার ছলেই যুজবেন্দ্র চাহাল ও কুলদ্বীপ যাদবকে উদ্দেশ্য করে জাতিবিদ্বেষী মন্তব্য করে বিপাকে পড়েছেন ভারতের সাবেক অলরাউন্ডার যুবরাজ সিং। আইনজীবী রজত কালসান যিনি কিনা দলিত সমাজের হয়ে কাজ করেন, পুলিশি অভিযোগ করেছেন যুবরাজের বিরুদ্ধে। আজ এই ইস্যুতে দুঃখ প্রকাশ করেছেন যুবরাজ, জানিয়েছেন ইচ্ছাকৃত ভাবে কোন কিছু করেননি তিনি।

নিজের টুইটার আইডিতে অনুশোচনামূলক বার্তা দেন যুবরাজ।

প্রসঙ্গত, দলিত সমাজের বিরুদ্ধে ব্যাঙ্গাত্মক মন্তব্য করার অভিযোগে রজত কালসান নামক ঐ উকিল হরিয়ানার হিসারের কাছাকাছি হাসিতে লিখিত অভিযোগ (পুলিশের কাছে) করেছেন। অভিযোগ দায়ের করে তিনি যুবরাজকে গ্রেফতারের দাবি জানিয়েছেন।

শুধু যুবরাজ নন, রোহিত শর্মার বিরুদ্ধেও অভিযোগ তার। তিনি বলেন, ‘সে দিন যুবরাজের সঙ্গে ওই ভিডিও চ্যাটে আড্ডা দিচ্ছিলেন রোহিত। এমন জাতিবিদ্বেষী মন্তব্য করা সত্ত্বেও কোনও প্রতিবাদ করেননি ভারতীয় দলের (ওয়ানডে ও টি-টোয়েন্টি) সহ-অধিনায়ক।’

এপ্রিলের শেষ দিকে ইনস্টাগ্রামে লাইভ সেশনে আড্ডা দিচ্ছিলেন যুবরাজ সিং ও রোহিত শর্মা। সেখানেই এই ঘটনার উৎপত্তি। চাহাল প্রসঙ্গে বলতে যেয়ে যুবরাজ বলেন, ‘ইয়ে b***gi লোগ কো কইয়ি কাম নেহি হ্যয় ইয়ে ইউজি (যুজবেন্দ্র) অউর ইসকো (কুলদীপ)! (যুজবেন্দ্র ও কুলদ্বীপের মত মানুষের কোন কাজ নেই)!’

এই b***gi কথা নিয়েই বিপত্তির শুরু। এই শব্দটিকে ঘিরেই আপত্তি মানুষের। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে মানুষের অভিযোগ জাতপাত নিয়ে কটু কথা বলেছেন যুবরাজ।

ভিডিওটি আগের হলেও টিকটকের মাধ্যমে নতুন করে এই ইস্যু সামনে এসেছে। যা পুলিশি অভিযোগ পর্যন্ত গেছে। টুইটারে Yuvraj_Maafi_Maango (যুবরাজ মাফ চাও) হ্যাশট্যাগও ট্রেন্ডিং হয়েছে।

৯৭ ডেস্ক

Read Previous

জুনিয়রদের চাঙ্গা রাখতে যা করছেন অধিনায়ক মুমিনুল

Read Next

আইসিএল খেলতে যেতে ৮ কোটি টাকার প্রস্তাব পেয়েছিলেন মাশরাফি

Total
2
Share