অনুশীলনে ফিরে স্মিথ বললেন এমন বিরতি স্বস্তির

স্মিথ
Vinkmag ad

দুই মাসের বেশি সময় পর আজ (১ জুন) অস্ট্রেলিয়ার শীর্ষস্থানীয় ক্রিকেটাররা অনুশীলনে ফিরেছে। সিডনি অলিম্পিক পার্কে অনুশীলন শেষে দলটির অন্যতম সেরা ব্যাটসম্যান স্টিভ স্মিথ বলছেন তার মানসিক ও শারীরিক ফিটনেস সেরা অবস্থায় আছে।

ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া ঘরোয়া মৌসুম দিয়ে ক্রিকেট ফেরাতে যাচ্ছে। ‘ক্লোজ ডোর’ ম্যাচগুলোর আগে অনুশীলন করার জন্য রিপোর্ট করাদের মধ্যে ডেভিড ওয়ার্নার ও মিচেল স্টার্কও ছিল।

করোনা ভাইরাসে কম ক্ষতিগ্রস্থ দেশগুলোর একটি অস্ট্রেলিয়া। এখনো পর্যন্ত করোনার শিকার হওয়া মানুষের সংখ্যা ৭ হাজার এর আশেপাশে। ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া ইতোমধ্যে ৯ আগস্ট থেকে তাদের আন্তর্জাতিক ক্রিকেট সূচী প্রকাশ করেছে।

অস্ট্রেলিয়ান গণমাধ্যম সিডনি মর্নিং হেরাল্ডকে স্টিভ স্মিথ বলেন, ‘আমি মনে হয় বছরের সেরা অবস্থানে আছি। প্রচুর দৌড়াদৌড়ি করেছে, বাড়িতে জিমও হয়েছে বেশ। কঠোর পরিশ্রমের দুটো মাস পার করেছি।’

শ্যাডো ব্যাটিং হোক কিংবা নেট অনুশীলন, অস্ট্রেলিয়ান তারকা ব্যাটসম্যান স্মিথ সবচেয়ে বেশি সময় দেওয়াদের একজন। অথচ লকডাউনের সময়টায় পুরো দুই মাস এসব থেকে দূরে থেকে বাধ্য হয়েছেন ফিটনেস ও মানসিক দিকে নজর দেওয়াতে।

লকডাউনে ব্যাট স্পর্শ করেননি উল্লেখ করে তিনি বলেন, ‘আমি সত্যি কোন ব্যাট স্পর্শ করিনি। বাড়িতে ছোটখাটো কিছু ড্রিল , আমি আসলে এসব থেকে কিছুটা দূরে থাকতেই চেয়েছি। যেটা খুব একটা হয়না আমার। আমি কেবল ফিটনেস নিয়েই ভেবেছি আর নিজেকে যতটা মানসিকভাবে চাঙ্গা রাখা যায় তা নিয়ে কাজ করেছি।’

এর আগে নিরাপত্তা বলয়ের মধ্যে থেকে ইংল্যান্ডের ক্রিকেটাররা শুরু করেছেন, আজ থেকে অনুশীলনে ফেরার কথা লঙ্কান ক্রিকেটারদেরও। ২০১৯ সালের ব্যস্ততায় ঠাঁসা সূচীর পর এমন একটা বিরতি নিজেকে সতেজ করেছে বলেই মত স্টিভ স্মিথের।

এই অজি তারকা ব্যাটসম্যান যোগ করেন, ‘আমি বাড়িতে কিছু অনলাইন ক্লাস নিয়েছি (ভক্তদের ক্রিকেট শেখানো) তবে এর বাইরে সত্যিই কোন ব্যাট হাতে তুলিনি। এটা একটু ভিন্ন ছিল তবে আমি নিশ্চিত বিশ্বকাপ, অ্যাশেজের পর এমন বিরতি অবশ্যই স্বস্তির হওয়ার কথা।’

৯৭ ডেস্ক

Read Previous

নিজেকে ছোট্ট বাচ্চা মনে হচ্ছে মিকি আর্থারের

Read Next

জাতিসংঘের গুডউইল অ্যাম্বাসেডর হলেন তামিম

Total
8
Share