তামিমের নেতৃত্বে কাজলের পরিবারের পাশে দাড়িয়েছেন ক্রিকেটাররা

কাজী রিয়াজুল ইসলাম কাজল
Vinkmag ad

গত ২৭ মে না ফেরার দেশে পাড়ি জমান খুলনা জেলা ক্রিকেট দলের অধিনায়ক কাজী রিয়াজুল ইসলাম কাজল। খুলনার ক্রীড়াঙ্গনের এই প্রিয় মুখ হৃদযন্ত্রের ক্রীয়া বন্ধ হয়ে মারা যান। ৩২ বছর বয়সী কাজল তার পরিবারের একমাত্র উপার্জনক্ষম ব্যক্তি ছিলেন। তার মৃত্যুতে আর্থিক অনিশ্চয়তায় পড়া পরিবারের পাশে দাঁড়িয়েছেন জাতীয় দলের ক্রিকেটাররা।

কাজলের মৃত্যুর পর খুলনা বিভাগের আরেক ক্রিকেটার পেসার রুবেল হোসেন তার ফেসবুকে একটি পোস্ট দেন। পোস্ট নজরে পড়তেই করোনাকালে মানবতার সেবায় নিজেকে উজাড় করে দেওয়া ওয়ানডে দলের অধিনায়ক তামিম ইকবাল এগিয়ে আসেন কাজলের পরিবারকে সাহায্য করতে। ক্রিকেটারদের বেতন-ভাতা দিয়ে গঠিত তহবিল থেকে আর্থিক সাহায্য পাঠানোর ব্যবস্থা করেন সদ্য প্রয়াত ক্রিকেটার ও কোচ কাজলের পরিবারের কাছে।

রুবেল হোসেন তার ফেসবুক পেইজে দেওয়া পোস্টে এই সাহায্য কার্যক্রমের ব্যাপারটি তুলে ধরেন। সাথে অন্যান্য ক্রিকেটার, ক্লাব ও কর্মকর্তাদেরও খুলনার এই ক্রিকেটারের পরিবারকে সাহায্য করতে এগিয়ে আসার আহ্বান জানান।

তিনি লিখেন, ‘আপনারা জানেন, শ্বাসকষ্টের কারণে আকস্মিকভাবে মৃত্যুবরণ করেছেন খুলনার সুপরিচিত ক্রিকেটার কাজল। তার সঙ্গে আমার অনেক স্মৃতি রয়েছে। দীর্ঘদিন আমরা একসঙ্গে বাগেরহাট থেকে শুরু করে ঢাকা লিগে খেলেছি। কাজলের মৃত্যু নিয়ে আমার ফেসবুক পেইজে একটি পোস্ট দিয়েছিলাম। তা দেখেই তামিম ভাই আমাকে ফোন দিয়েছিলেন।’

‘কাজলের পরিবারের পাশে দাঁড়ানোটা আমাদের সবার নৈতিক দায়িত্বও বটে। আপনারা হয়তো অনেকেই জানেন না, কাজলের পরিবারে উপার্জনক্ষম ব্যক্তি বলতে একমাত্র সে-ই ছিল। তার বাবা নেই। চার বছরের ছোট্ট একটি কন্যা শিশু রয়েছে। বুঝতেই পারছেন, অকালে স্বামীকে হারিয়ে দিশেহারা কাজলের স্ত্রী! তামিম ভাই ফোন দিয়ে আমার কাছে কাজলের পরিবার সম্পর্কে খোঁজখবর নেওয়ার পর তাৎক্ষনিকভাবে তাদের পাশে দাঁড়ানোর সিদ্ধান্ত নেন। এরই প্রেক্ষিতে আজ কাজলের স্ত্রীর কাছে আমি আর্থিক সহায়তা পৌঁছে দিয়েছি। মানসিক ভাবে অনেক শান্তি লাগছে।’

তার পোস্ট দেখে অন্য অনেকেই এগিয়ে আসবেন বলে বিশ্বাস রুবেল হোসেনের, ‘আমার পোস্ট দেখে যেমন একজন তামিম ইকবাল এগিয়ে এসেছেন। ঠিক তেমনি আমার বিশ্বাস পুনরায় আমার এই পোস্ট দেখে, সাবেক ক্রিকেটার, সংগঠক কিংবা ক্লাবের মালিকরাও কাজলের পরিবারের সাহায্যে এগিয়ে আসবেন।’

উল্লেখ্য, কাজী রিয়াজুল ইসলাম কাজল গত ২৭ মে যশোরে শশুর বাড়িতে অবস্থানকালে পুরোনো শ্বাসকষ্টে ভুগতে থাকেন। পরে অবস্থা খারাপের দিকে গেলে যশোর সদর হাসপাতালে নেওয়া হয়, সেখান থেকে খুলনা মেডিকেলে ভর্তির পরামর্শ দেওয়া হয়। খুলনা মেডিকেলে নেওয়ার পথেই রাত তিনটায় শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন কাজল।

খুলনার খালিশপুরে নিজ এলাকায় দাফন করা হয় এই ক্রিকেটারকে। ঢাকা লিগ, প্রথম বিভাগ ক্রিকেট খেলা এই ব্যাটসম্যান কোচ হিসেবে কাজ করছিলেন স্থানীয় একটি একাডেমিতে।

৯৭ প্রতিবেদক

Read Previous

মুশফিকের চেয়ে সাকিবের সঙ্গে বোঝাপড়া বেশি ভাল মাহমুদউল্লাহর

Read Next

মেসির সাথে সাক্ষাতের সহজ অপশন বেঁছে নিতে চাননি সাকিব

Total
7
Share