বিব্রত ওয়াকার, বিদায় বললেন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমকে

ওয়াকার ইউনুসওয়াকার ইউনুস
Vinkmag ad

বৃহস্পতিবার পাকিস্তানের বোলিং কোচ ওয়াকার ইউনুসের টুইটার আইডি থেকে একটি অশ্লীল ভিডিও লাইক করা হয়। যারপর থেকে পাকিস্তানে তো বটেই, বিশ্বব্যাপী সমালোচনার শিকার হন তিনি। বিব্রত ওয়াকার এক ভিডিও বার্তায় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে আর না আসার ঘোষণা দিয়েছেন।

ভিডিও বার্তায় ওয়াকার ইউনুস দাবি করেন তার টুইটার আইডি হ্যাক করা হয়েছিল। হ্যাকারই অশ্লীল ভিডিওতে লাইক দিয়েছেন বলে জানান তিনি।

এই ঘটনায় তার কোন দায় না থাকলেও পরিবারের সম্মানের কথা ভেবে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমকে বিদায় জানানোর ঘোষণা দেন তিনি।

ওয়াকার বলেন, ‘আমি যখন সকালে ঘুম থেকে উঠলাম, আমি দেখলাম কেউ একজন আমার টুইটার অ্যাকাউন্ট হ্যাক করেছে এবং আমার আইডি ব্যবহার করে এক অশ্লীল ভিডিও লাইক করেছে। এটা আমার ও আমার পরিবারের জন্য হতাশার, লজ্জার ও ব্যাথা পাবার মত ঘটনা।’

‘আমি ভাবতাম সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ভক্তদের সঙ্গে যোগাযোগ স্থাপন করার মাধ্যম। যাহোক, এবারই প্রথম এমন ঘটনা ঘটেনি, এর আগেও এমনটি হয়েছিল। যা বোঝা যাচ্ছে হ্যাকারকে আঁটকে রাখা অসম্ভব। যার কারণে আমি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে আর না আসার সিদ্ধান্ত নিয়েছি। আমি দুঃখিত কেউ যদি আঘাত পেয়ে থাকেন।’

পরে ওয়াকার ভিডিও আনলাইক করে দেন, যদিও তার আগেই অনেকে স্ক্রিনশট নিয়ে ফেলে। একই রকম এক টুইটে ওয়াকার ইউনুসের টুইটার থেকে লাইক দেওয়া হয়েছিল ২ বছর আগে।

৯৭ ডেস্ক

Read Previous

সাকিবের প্রশ্নে মাহমুদউল্লাহর কণ্ঠে মুমিনুলের সুর

Read Next

৫৫ ক্রিকেটারকে ট্রেনিংয়ে ফেরার নির্দেশ দিল ইসিবি

Total
3
Share