স্টিভ রোডসের যাওয়ার কারণ খুঁজে পান না মাশরাফি

মাশরাফি বিন মর্তুজা স্টিভ রোডস
Vinkmag ad

২০১৮ সালের ৭ জুন বাংলাদেশ দলের হেড কোচ হিসাবে দায়িত্ব নেন স্টিভ রোডস। ২০২০ সালের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ পর্যন্ত তার মেয়াদ থাকলেও ২০১৯ বিশ্বকাপের পরেই তাকে ছাঁটাই করে বিসিবি (বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড)। এই বছরেই ওয়ানডে দলের নেতৃত্ব ছেড়ে দেওয়া মাশরাফি বিন মর্তুজা মনে করেন স্টিভ রোডস খুবই দুর্ভাগা। তার বিদায়ের কারণ খুঁজে পাননা তিনি।

জনপ্রিয় ওয়েবসাইট বিডিনিউজ২৪ডটকমকে মাশরাফি বলেন, ‘এসব ক্ষেত্রে একেক জনের একেক রকম মতামত থাকে। আপনি যদি আমার কথা জিজ্ঞাসা করেন, আমার মতে স্টিভ রোডসের যাওয়ার কোন কারণ আমি খুঁজে পাইনি।’

‘বিশ্বকাপের পর আমার ওপর দিয়েই তো সব গিয়েছে, তো একজনই যথেষ্ট ছিল। এধরণের টুর্নামেন্ট যখন খারাপ যায় তখন একজনের ওপর ঝড় ওঠে। আমার ওপর দিয়ে গেলে আমি ফ্যাক্ট বলতাম, পারফর্ম করিনি, তুমি সাইড হও। এটা হচ্ছে বাস্তবতা। পারফরম্যান্সই যদি বিবেচ্য হয় তাহলে স্টিভ রোডসের বাংলাদেশের সেরা কোচদের একজন হওয়া উচিৎ।’

স্টিভ রোডস
ছবিঃ ক্রিকেট৯৭

স্টিভ রোডস কোচ থাকাকালীনই বাংলাদেশ দল প্রথমবারের মতো কোন ত্রিদেশীয় সিরিজের শিরোপা জিতেছে। সাকিব-তামিমকে ছাড়াই উঠেছে এশিয়া কাপের ফাইনালে। স্টিভ রোডসকে সফল কোচ উল্লেখ করে তাকে দুর্ভাগা বলেন মাশরাফি।

‘স্টিভ রোডসের পরিসংখ্যান যদি দেখেন, ও ওর প্রথম অ্যাসাইনমেন্টে ওয়েস্ট ইন্ডিজে যেয়ে দুটো টেস্ট হেরেছে। এরপর থেকে কিন্তু ও জেতা শুরু করেছে। বাংলাদেশ প্রথম কোন ট্রাইনেশন জিতেছে স্টিভ রোডসের আমলে। এশিয়া কাপের ফাইনালে সাকিব-তামিমকে ছাড়া বাংলাদেশ উঠেছে। ওয়েস্ট ইন্ডিজকে তাদের হোমে যেয়ে হারানো, আমাদের মাঠে হারানো- দুইবার হারিয়েছে। এই ক্ষেত্রে বললে আমি বলবো স্টিভ রোডস সাকসেসফুল কোচ ছিলেন।’

‘আমার মতে স্টিভ রোডস খুবই আনফরচুনেট কোচ। বিশ্বকাপে শেষ দুই ম্যাচের আগ পর্যন্ত বাংলাদেশ সেমিতে যাবার দৌড়ে ছিল। আমি তাকে কোন জায়গা থেকে আনসাকসেসফুল দেখিনা। তবে বোর্ডের সিদ্ধান্তকে সবাইকে স্বাগত জানাতে হবে।’

৯৭ ডেস্ক

Read Previous

যুবরাজের কাছে মাশরাফির নাম সুপারিশ করেছিলেন সাঙ্গাকারা

Read Next

লারার ছোট্ট ছেলের সঙ্গে নিজের মিল খুঁজে পেলেন শচীন

Total
52
Share