ঈদ আনন্দ, বিবেকে বাধছে তাসকিনের

তাসকিন আহমেদ ও তার পিতা
Vinkmag ad

মুসলমানদের অন্যতম দুই ধর্মীয় উৎসবের একটি ঈদুল ফিতর। দীর্ঘ এক মাস সিয়াম সাধনার পর আনন্দের উপলক্ষ্য হয়ে আসে ঈদ। ক্রিকেটাররাও খেলার ব্যস্ততা না থাকলে এই সময়টা কাটান নিজেদের মত উৎসবের আমেজে। তবে করোনা ভাইরাস প্রভাবে এবারের ঈদ এসেছে ভিন্নভাবে। জাতীয় দলের পেসার তাসকিন আহমেদ যেমন এই দূর্যোগের সময় বেঁচে থাকাটাকেই এগিয়ে রাখছেন, মানুষের জন্য অনেক বেশি কিছু করতে না পারার আক্ষেপও আছে কণ্ঠে।

করোনা ভাইরসা প্রভাব বিস্তারের পর কর্মহীন হয়ে পড়া মানুষের পাশে দাঁড়িয়েছেন ক্রিকেটাররা। নিজ উদ্যোগে পেসার তাসকিন আহমেদও সাহায্য করেছেন সাধ্যমত। জন্মদিনে বাবাকে অনুরোধ করে নিজ বাসার ভাড়াটিয়াদের এক মাসের ভাড়াও মওকুফ করেছেন। নিলামে তুলেছেন ২০১৭ সালে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে হ্যাট্রিক করা বলটিও।

নিলাম থেকে অর্জিত চার লাখ টাকা তুলে দেন সামাজিক কার্যক্রম পরিচালনা করা বেশ কয়েকটি সংগঠনকে। তবে এরপরও মানুষের জন্য আরও বেশি কিছু করতে না পারার আফসোস আছে এই গতি তারকার। সাধারণ মানুষের জন্য আরও বেশি কিছু করতে পারেননি বলে ঈদ আনন্দ করতে বিবেকে বাধছে ২৫ বছর বয়সী এই পেসারের।

তাসকিন বলেন, ‘ঈদের আগে সাধারণ মানুষের জন্য কিছু করার ইচ্ছে ছিল, তা পারছি না। তাই ঈদের আনন্দ করবো পরিবার নিয়ে তা ভাবতে আমার বিবেকে বাধে। আমি বুঝতে পারছি না অনেকে কেন ঈদের কেনাকাটার জন্য বাইরে যাচ্ছেন! এটা না করে যদি পারেন যাদের ঘরে খাবার নেই তাদের তা দিতে।’

‘আপনি বাঁচলে আপনার পরিবার ঈদ করতে পারবে আরো অনেক অনেক বার। না বেঁচে থাকলে সবার সুখ আপনি কেড়ে নিয়ে যাবেন। তাই একটাই অনুরোধ, সচেতন হন। নিজে বাঁচেন পরিবার ও আশেপাশের মানুষকে বাঁচান। তাহলে খুশির ঈদ জীবনে অনেক আসবে।’

৯৭ প্রতিবেদক

Read Previous

সাকিবকে দেখে দৃঢ়প্রতিজ্ঞ হন লিটন

Read Next

স্মারক নিলামের অর্থ যেভাবে ব্যয় করছেন আকবর

Total
6
Share