কোহলির মতো স্লেজিং তাঁতিয়ে দেয় মুশফিককেও

মুশফিকুর রহিম ভিরাট কোহলি
Vinkmag ad

তামিম ইকবালের লাইভ আড্ডায় এসে ভিরাট কোহলি জানিয়েছেন তার ভালো খেলার পেছনে অবদান আছে মুশফিকুর রহিমদের তথা উইকেট রক্ষকদেরও। মূলত ব্যাটিংয়ের সময় করা স্লেজিংই তাকে তাঁতিয়ে দেয় বুঝাতে গিয়েই মুশফিককে টেনে আনা। কোহলিকে মুশফিক কেমন স্লেজিং করেছিলেন তা জানতে ভক্ত-সমর্থকদের মধ্যে কৌতুহলের শেষ নেই। সম্প্রতি একটি লাইভ আড্ডায় এসে মুশফিক খোলাসা করেছেন ব্যাপারটি। জানিয়েছেন কোহলির মত স্লেজিং তাকেও ভালো খেলতে অনুপ্রেরণা দেয়।

জনপ্রিয় অনলাইন পোর্টাল ‘বিডিনিউজ২৪ডটকম’ এর লাইভ আড্ডায় অংশ নিয়ে মুশফিক জানালেন কোহলিকে খুব অস্বাভাবিক কোন স্লেজিং করেননি, ‘বিশেষ তেমন কিছু বলিনি। এটা তো স্বাভাবিকই, ভিরাট কোহলি যেটা বলেছে। এটা তো খেলার একটা কৌশল। অনেক সময় সামনে কী আসতে পারে বা এটা ডট হলে বা বড় রান তাড়া করতে হলে বা টার্গেট সেট করতে হলে, ছোট ছোট কিছু জিনিস আছে যেগুলো রিমাইন্ডার…এগুলো যে কেউ যে কোনো সময় করতে পারে। এমনিতে ওকে এত স্লেজিং করার মতো এত বড় খেলোয়াড় এখনও হয়নি।’

কোহলির মত মুশফিকও স্লেজিংকে ভালো খেলার পাথেয় হিসেবেই নেন, নিয়মিত পাচ্ছেন সাফল্যও। এমনকি ভারতীয় কাপ্তানের অভিষেকের পর ভারতের বিপক্ষে ভালো খেলা ম্যাচগুলোর কৃতিত্বও দিচ্ছেন তাকে। ব্যাটিংয়ের সময় স্লেজিংকে শক্তিতে পরিণত করে ভালো করা সম্পর্কে মুশফিক বলেন, ‘আমিও এটি বলতে চাই, কোহলি আসার পর থেকে ভারতের বিপক্ষে যতগুলি ভালো ইনিংস খেলেছি, তার কৃতিত্বও তাকে দিতে চাই।’

‘আমি যখনই উইকেটে যাই, সে আমাকে অন্যরকমভাবে স্লেজিং করেছে। সবসময়ই করে আসছে। আমাকে স্পেশাল নাকি জানি না, হয়তো সবাইকেই করে। কারণ মাঠে অনেক আগ্রাসী থাকে সে, চায় সামনে থেকে নেতৃত্ব দিতে। আমাকে যতবার স্লেজিং করেছে, যেটা ওর ক্ষেত্রে হয়েছে, সেটা আমার ক্ষেত্রেও একই। আমাকেও উজ্জীবিত করেছে অনেক বেশি। এজন্যই আপনারা খেয়াল করবেন, আমার রেকর্ড অন্য দলগুলির চেয়ে ভারতের বিপক্ষে একটু হলেও তুলনামূলক ভালো।’

ভারতের বিপক্ষে খেলা ভালো কিছু ইনিংসের উদাহরণ টেনে উইকেট রক্ষক এই ব্যাটসম্যান যোগ করেন, ‘ওদের স্লেজিং বাড়তি অনুপ্রেরণা যোগাত যে কিছু একটা করতে হবে। চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফিতে ফিফটি করেছিলাম যখন, ফতুল্লায় এশিয়া কাপে সেঞ্চুরি, তখনও অনেক কিছু বলেছে। ভারতে সম্প্রতি যে টেস্ট সিরিজ খেলেছি, হয়তো সেঞ্চুরি করতে পারিনি, তবে দুটি ফিফটি করেছি, ওখানেও অনেক কথা বলেছে। সব মিলিয়ে এটা আমার জন্য ভালো হয়েছে। আমার মনে হয়, এটা আমার খেলার সঙ্গে মানিয়ে যায়।’

শুধু ভারত নয় যেকোন প্রতিপক্ষ এমনকি ঘরোয়া ক্রিকেটেও স্লেজিংকে ইতিবাচক হিসেবে নিয়ে নিজের কাজটা ঠিকঠাকভাবে করেন মিস্টার ডিপেন্ডেবল খ্যাত মুশফিক, ‘তামিমের বিপক্ষেও যখন কোন ঘরোয়া লিগের ম্যাচ খেলি তামিম খুব ভালো করে জানে যে ইনিংসে আমাকে বেশি কথা বলেছে সে ইনিংসটাই দেখা যেত খুব ভালো হয়েছে। এরপর থেকে খুব কম সময়েই আমাকে স্লেজিং কম করতো কারণ সে জানে এটা হিতে বিপরীত হতে পারে।’

৯৭ ডেস্ক

Read Previous

‘বাংলাদেশ নিয়ে ভাবলেই সামনে বাঁহাতি স্পিনার ভেসে উঠে’

Read Next

নিজের বায়োপিকে লিড রোলে আমির খানকে চান মুশফিক

Total
20
Share