বাংলাদেশ আমার হৃদয়ে অন্যরকম জায়গা দখল করে আছে: ওয়াসিম আকরাম

ওয়াসিম আকরাম বাংলাদেশ

ঢাকার ক্রিকেট একটা সময় নিয়মিত বিদেশি ক্রিকেটারের পদচারণায় মুখরিত ছিল। খেলে গেছেন সনাথ জয়সুরিয়া, অর্জুনা রানাতুঙ্গা, সেলিম মালিক হয়ে ওয়াসিম আকরামদের মত তারকা ক্রিকেটাররা। পাকিস্তানের কিংবদন্তী পেসার ওয়াসিম আকরাম ঢাকা লিগ খেলা ছাড়াও আন্তর্জাতিক ক্রিকেট খেলার পাশাপাশি ধারাভাষ্যকার হিসেবেও বহুবার এসেছেন বাংলাদেশে। বাংলাদেশ বিশেষভাবে জায়গা করে নিয়েছে তার হৃদয়ে।

এখানকার মানুষ থেকে খাবার সবকিছুতেই মুগ্ধ ওয়াসিম আকরাম। আকরাম-নান্নুদের সাথে খেলা পাকিস্তানি তারকা পেসার গর্বিত হন সাকিব-তামিমদের উন্নতি দেখে। সাম্প্রতিক সময়ে বাংলাদেশে আসা হয়না বলে আক্ষেপও আছে এই বাঁহাতি কিংবদন্তী পেসারের।

করোনাকালে ভক্তদের সময়টা উপভোগ্য করতে নিয়মিত ফেসবুক লাইভ আডায় মেতেছেন জাতীয় দলের ওয়ানডে অধিনায়ক তামিম ইকবাল। দেশি-বিদেশি তারকারা আসছেন তার লাইভ শো তে অতিথি হয়ে।

গতকাল (১৯ মে) তার সাথে আড্ডা দেন সাবেক তারকা ক্রিকেটার মিনহাজুল আবেদিন নান্নু, আকরাম খান ও খালেদ মাসুদ পাইলট। বিশেষ অতিথি হিসেবে যোগ দেন পাকিস্তানের বিশ্বকাপজয়ী দলের সদস্য ওয়াসিম আকরাম।

১৯৯৪-১৯৯৫ মৌসুমে আবাহনীর হয়ে ঢাকা লিগ খেলতে আসা এই পাকিস্তানি তারকা বাংলাদেশ ও আকরাম-নান্নু-পাইলট সম্পর্কে বলতে গিয়ে জানান,

‘এই তিনজনের সাথে আমি অনেক খেলেছি যখন আবাহনীর হয়ে বাংলাদেশে খেলতে যাই। আমি তাদের সাথে খেলেছি, তাদের বিপক্ষে খেলেছি। তারা সবসময়ই আমার ভালো বন্ধু।’

‘আমি ধারাভাষ্য করতে বাংলাদেশে নিয়মিত যেতাম ইএসপিএন, স্টার স্পোর্টসের হয়ে, তাদের সাথে আমার আড্ডা হত। রিজওয়ান, আতহার, আমার অনেক বন্ধু আছে ওখানে, চট্টগ্রামের সালমান, শাকির সবাই আমার কাছের।’

বাংলাদেশকে মিস করেন জানিয়ে ওয়াসিম বলেন, ‘আমি বাংলাদেশে যাওয়াটা মিস করি। বাংলাদেশ সবসময়ই আমার হৃদয়ে অন্যরকম জায়গা দখল করে আছে। এখানকার মানুষ, খাবার, দেশটা এবং ক্রিকেট আমাকে টানে।’

সময়ের বিবর্তনে বিশ্ব ক্রিকেটে বাংলাদেশ ধীরে ধীরে নিজেদের অবস্থান শক্ত করছে। বাংলাদেশ পেয়েছে সাকিব, তামিম, মুশফিক, মুস্তাফিজদের মত ক্রিকেটার যা গর্বিত করে ওয়াসিম আকরামকেও,

‘এটা আমার জন্য বড় গর্বের বাংলাদেশ ক্রিকেটকে এমন অবস্থায় দেখা যেভাবে তারা গত ১০-১২ বছরে উন্নতি করেছে। দুর্দান্ত সব ক্রিকেটার যেমন তুমি (তামিম), সাকিব আল হাসান, মুস্তাফিজুর রহমান, মুশফিকুর রহিমকে দেখতে পাওয়া সত্যি ভালো লাগে। এদের (নান্নু-পাইলট-আকরাম) সময়কার বাংলাদেশ ফিল্ডিংয়ে এত ভালো না হলেও এখন বাংলাদেশ ফিল্ডিংয়ে অন্যতম সেরা দল (হাসি)।’

৯৭ প্রতিবেদক

Read Previous

বিশ্বকাপে বাংলাদেশের বিপক্ষে হারা ম্যাচ নিয়ে ওয়াসিম আকরামের মূল্যায়ন

Read Next

তামিম-আকরামকে পাইলট: ‘চাচা-ভাতিজা মিলে আমার পিছে লাগছে!’

Total
20
Share