আলাদিনের দৈত্যের কাছে মাশরাফির ‘৩’ চাওয়া

মাশরাফি বিন মর্তুজা
Vinkmag ad

ক্যারিয়ারে ছিল নানা চড়াই উতরাই, শত বাঁধা বিপত্তি পেরিয়ে দেশের সফল অধিনায়ক হিসেবে নিজেকে প্রতিষ্ঠা করেছেন। চোট জর্জরিত ক্যারিয়ারটা বল হাতে হতে পারতো আরও সমৃদ্ধ, যে সম্ভাবনা নিয়ে বাংলাদেশ দলে এসেছেন তাতে হতে পরিসংখ্যান বিবেচনায় হতে পারতেন বিশ্ব তারকাদের একজন। কিন্তু আলাদিনের দৈত্য এসে ইচ্ছে পূরণ করতে চাইলেও মাশরাফি সবার আগে সেই আক্ষেপ গুছানো নয় বরং ফিরে যেতে চাইবেন শৈশবে।

গতকাল (১৭ মে) নিলামে বিক্রি হয় মাশরাফির ১৮ বছরের ক্যারিয়ারের প্রিয় সঙ্গী হাতের ব্রেসলেটটি। রেকর্ড ৪২ লাখ টাকায় নিলাম আয়োজক প্রতিষ্ঠান ‘অকশন ফর অ্যাকশনের’ মাধ্যমে সদ্য বিদায়ী টাইগার অধিনায়কের স্মারকটি কিনে নেয় বাংলাদেশ লিজিং অ্যান্ড ফিন্যান্স কোম্পানিস অ্যাসোসিয়েশন (বিএলএফসিএ)। লাইভ নিলাম অনুষ্ঠানে মাশরাফিও ভক্তদের বিভিন্ন প্রশ্নের উত্তর দেন।

‘অকশন ফর অ্যাকশন’ কর্মকর্তা টাইগারদের সফল অধিনায়ককে প্রশ্ন করেন আলাদিনের দৈত্য এসে ইচ্ছে পূরণের কথা বললে কোন তিনটি ইচ্ছের কথা জানাবেন?

নড়াইল এক্সপ্রেস খ্যাত এই পেসার শুরুতেই বলেন ফিরে যেতে চাইবেন শৈশবে, স্কুল জীবনে, ‘আমি প্রথম চাইব অবশ্যই প্রতিটা মানুষ যেটা চায়, শৈশবে ফিরে যেতে। আমি আমার স্কুল জীবনে ফিরে যেতে চাই। স্কুলের বন্ধু, স্কুল জীবনে ফিরে যেতে চাইব।’

চোটের কারণে ক্যারিয়ার থেকে হারিয়ে গেছে গুরুত্বপূর্ণ কয়েকটি বছর, প্রায় এক যুগ আগে চলে যেতে হয় অঘোষিত টেস্ট অবসরে। এসব নিয়ে খুব একটা আক্ষেপ না থাকলেও ইচ্ছে পূরণের সুযোগ থাকলে ফিরে পেতে চাইবেন ক্যারিয়ারের শুরুর দুরন্ত মাশরাফিকে,

‘দ্বিতীয় জিনিস চাইব শৈশব পার করার পর আমার ক্যারিয়ারের শুরুর দিকের সময়টায় ফিরে যেতে। আমাকে দিয়ে অনেক কিছু হতে পারত, আমাকে দিয়ে বাংলাদেশের ফলাফল আরও ভালো হতে পারত, আমি যদি ফিট থাকতাম, সুস্থ থাকতাম। তবে আলহামদুলিল্লাহ, আল্লাহর অশেষ রহমত ছিল, আল্লাহর মেহেরবানি যে আমি এতদিন পর্যন্ত খেলতে পেরেছি এত কিছুর পরও।’

‘তো এটা নিয়ে আমার কোনো কষ্ট নেই। তবে যেহেতু প্রশ্ন করলেন তাই বললাম আমি যদি শুরুর দিকের ক্যারিয়ারে ফিরে যেতে চাই, তাহলে আমি বুঝতে পারব কীভাবে মেইন্টেইন করলে আমি সুস্থ থাকব এবং দেশের হয়ে আরও ভালো কিছু করতে পারব। তো এটা হবে আমার দ্বিতীয় চাওয়া, ক্যারিয়ারের শুরুর দিকে ফিরে যাওয়া।’

এর আগেও বেশ কয়েকবার বলেছেন যে পরিবারে জন্মেছেন তাকে আশীর্বাদই মনে করেন, জীবনের অন্যতম বড় প্রাপ্তিও মানেন। গতকাল আবারও জানালেন সুযোগ থাকলে এই পরিবারেই ফিরে আসা,

‘আমার তৃতীয় চাওয়া হবে, অবশ্যই যে পরিবারে জন্মগ্রহণ করেছি, এই পরিবারেই আবার নিজেকে ফিরে পেতে চাওয়া।’

৯৭ প্রতিবেদক

Read Previous

মাশরাফিকে অবসর নেওয়ার আহ্বান জানালেন ওটিস গিবসন

Read Next

বাংলা টাইগার্সের টিম ডিরেক্টর হলেন ক্লুজনার

Total
6
Share