৪২ লক্ষ টাকা দিয়ে ব্রেসলেট কিনে মাশরাফিকেই উপহার!

মাশরাফি বিন মর্তুজা ব্রেসলেট

করোনাকালে অসহায়দের পাশে দাঁড়াতে নিজের ১৮ বছরের ক্রিকেট ক্যারিয়ারের প্রিয় সঙ্গী হাতের ব্রেসলেটটি নিলামে তোলেন সদ্য বিদায়ী বাংলাদেশ কাপ্তান মাশরাফি বিন মর্তুজা। মাশরাফির প্রিয় এই স্মারকটি নিলামে বিক্রি হয়েছে রেকর্ড মূল্যে। ভিত্তিমূল্যের ৮ গুণ বেশি দামে কিনেছে বাংলাদেশ লিজিং অ্যান্ড ফিন্যান্স কোম্পানিস অ্যাসোসিয়েশন (বিএলএফসিএ)। নিলাম জেতার পরই তারা ব্রেসলেটটি মাশরাফিকে উপহার হিসেবে দেওয়ার ঘোষণা দেয়।

নিলাম আয়োজক প্রতিষ্ঠান ‘অকশন ফর অ্যাকশনের’ ফেসবুকে গত ১৬ মে ৫ লাখ টাকা ভিত্তিমূল্যে নিলামে উঠে ব্রেসলেটটি। গতকাল (১৭ মে) সন্ধ্যা নাগাদ ভিত্তিমূল্যের কয়েক গুণ দাম ছাড়িয়ে যায় দেশের সফলতম অধিনায়কের প্রিয় স্মারকের। শেষ পর্যন্ত ৪০ লাখ টাকায় কিনে নেয় আর্থিক ঋণদানকারী প্রতিষ্ঠানগুলোর অভিভাবক সংগঠন বিএলএফসিএ।

পুরো নিলাম কার্যক্রমে অগ্রণী ভূমিকা রাখে বিএলএফফসিএ এর সদস্য আইপিইডিসি ফিন্যান্স লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মমিনুল ইসলাম। তার অনুরোধেই নিলামে অংশ নেয় ঋণদানকারী প্রতিষ্ঠানগুলোর অভিভাবক সংগঠনটি। নিলামে সর্বোচ্চ দামের ৫ শতাংশ নিজেদের ফান্ড থেকেও যোগ করে আইপিডিসি। ফলে ব্রেসলেটটির প্রকৃত মূল্য দাঁড়ায় ৪২ লাখ টাকা।

এর আগে নিলামে ওঠা কোন বাংলাদেশি ক্রিকেটারের স্মারকের সর্বোচ্চ মূল্য ছিল ২০ লাখ। ‘অকশন ফর অ্যাকশনের’ নিলামেই সাকিব আল হাসানের গত বিশ্বকাপে রেকর্ড গড়া ব্যাটিং করার পথে ব্যবহৃত ব্যাটটি বিক্রি হয় ২০ লাখ টাকায়। মুশফিকুর রহিমের দেশের হয়ে প্রথম ডাবল সেঞ্চুরি হাঁকানোর পথে ব্যবহৃত ব্যাট বিক্রি হয় ১৭ লাখ টাকায়, কিনে নেয় পাকিস্তানি অলরাউন্ডার শহীদ আফ্রিদি।

১৮ বছরের আন্তর্জাতিক ক্যারিয়ার, সময়ের বিবর্তনে দেশসেরা পেসারের সাথে দেশসেরা অধিনায়কও হয়েছেন মাশরাফি বিন মর্তুজা। নানা চড়াই উতরাই, লড়াই আর চোট যুদ্ধতো ছিলই। বদলে যাওয়া মুহূর্তগুলোর ভীড়ে মাশরাফির সঙ্গী হয়ে সবসময় হাতে ছিল স্টিলের তৈরি ব্রেসলেটটি। ব্রেসলেটটিতে খোদাই করে মাশরাফির নাম লেখা আছে।

করোনা পরিস্থিতি স্বাভাবিক হলে অনুষ্ঠান করে মাশরাফিকে তার প্রিয় ব্রেসলেটটি উপহার হিসেবে ফিরিয়ে দেওয়ার ঘোষোণাও দেন মমিনুল ইসলাম। নিলাম সম্পন্নের পরই মাশরাফি তার হাত থেকে ব্রেসলেট খুলে রাখেন কিন্তু আইপিডিসি কর্মকর্তা মমিনুল মাশরাফিকে উদ্দেশ্য করে বলেন,

‘এটা আপনার প্রিয় জিনিস আপনার হাতেই মানায়। আমরা চাই আপনাকে ব্রেসলেটটা উপহার দিতে। আমরা যখন অনুষ্ঠান করবো সেদিন একটু খুলে আমাদের দিয়েন আমরা আনুষ্ঠানিকভাবে আপনাকে সেটা তুলে দিব। আপনার সাথে ভালো একটা সময় কাটাবো সেদিন।’

নিলাম থেকে অর্জিত অর্থের পুরোটাই যাবে মাশরাফির প্রতিষ্ঠিত ‘নড়াইল এক্সপ্রেস ফাউন্ডেশনে।’ সেখান থেকে বিভিন্ন সামাজিক কার্যক্রমে এই অর্থ ব্যয় করার পরিকল্পনা রয়েছে বলে জানান দেশের অন্যতম সফল এই অধিনায়ক।

নিলাম বিজয়ী সংগঠনটির এমন সিদ্ধান্তে দারুণ আনন্দিত মাশরাফি ধন্যবাদ জানান। যদিও মাশরাফি জানান ব্রেসলেটটি নিলাম বিজয়ী সংগঠনটি নিজেদের কাছে রাখলেও মন খারাপ হবেনা তার।

৯৭ প্রতিবেদক

Read Previous

নিলামে মাশরাফির ব্রেসলেটের আকাশছোঁয়া দাম

Read Next

হাথুরুসিংহে চাইলে ইমরুলের ক্যারিয়ার সমৃদ্ধ হত

Total
126
Share