আর্চারের ভয়ে ওপেন করতে নামেননি মাশরাফি

জফরা আর্চার মাশরাফি বিন মর্তুজা মুস্তাফিজুর রহমান
Vinkmag ad

মাঠের ক্রিকেটে খেলার সময়টাই কেবল সামনে আসে দর্শক, ভক্ত-সমর্থকদের। কিন্তু এর বাইরে ড্রেসিংরুমে হয় হাজারটা মজার কান্ড। একটা সেঞ্চুরি, দলের জয় এমনকি কারও ব্যাটিং অর্ডারে পরিবর্তনের পেছনেও থাকে হাসির খোরাক যোগানো কোন উপকরণ। আর মানুষটা যদি বাংলাদেশ দলের সদ্য বিদায়ী অধিনায়ক মাশরাফি বিন মর্তুজা হন, তাহলেতো আর কথাই নেই। সতীর্থদের সাথে মজার স্মৃতি রোমন্থন করতে গেলে লেখা যাবে কয়েকটি বইও।

করোনা ভাইরাস সংক্রমণের সময়টায় গৃহবন্দী হয়ে পড়েছেন ক্রিকেটাররা। নিজেদের পাশাপাশি ভক্ত-সমর্থকদের এই সংকটময় সময়টা উপভোগ্য করতে ভিন্ন কিছুর চেষ্টা টাইগারদের নয়া ওয়ানডে কাপ্তান তামিম ইকবালের। নিয়মিত লাইভ সেশনে হাজির হচ্ছেন সতীর্থ কোন ক্রিকেটারকে নিয়ে। গতকাল (৪ মে) ফেসবুক লাইভে তার সঙ্গী ছিলেন মাশরাফি বিন মর্তুজা। দুজনের আড্ডায় ক্রিকেটের বাইরে তাদের প্রিয় মুহূর্ত, স্মৃতি ভক্তদের সামনে উঠে আসে।

জাতীয় দলের বর্তমান পারফরম্যান্স অ্যানালিস্ট শ্রীনিবাস চন্দ্রশেখর বিসিবির সাথে যুক্ত হয়েছেন বছর দুয়েক আগে। বন্ধুত্বপূর্ণ আচরণে মাশরাফি, তামিম, সাকিবদের কাছের একজন বনে গিয়েছেন ভারতীয় এই অ্যানালিস্ট। জাতীয় দলের আগেই রংপুর রাইডার্সের অ্যানালিস্ট হয়ে কাজ করার সুবাদে মাশরাফির মজার কান্ড, কীর্তির স্বাক্ষী আগে থেকেই। গতকাল মাশরাফি-তামিমের লাইভ আড্ডায় যুক্ত হন আইপিএল, বিপিএল, পিএসএল ও ভারতীয় ঘরোয়া ক্রিকেটে লম্বা সময় কাজ করে অভিজ্ঞ শ্রীনিবাসও।

শ্রীনিবাসকে মাশরাফি নিয়ে মজার একটি স্মৃতি বলতে অনুরোধ করেন তামিম। জাতীয় দলের এই অ্যানালিস্ট বিপিএলে রংপুর রাইডার্সের একটি মুহুর্ত তুলে ধরেন যেখানে প্রতিপক্ষ বোলার জফরা আর্চারকে সামলাতে হবে বলে ভিন্ন কৌশলে সোহাগ গাজীকে দিয়ে ওপেন করান মাশরাফি। শ্রীনি বলেন, ‘আমি আর টম মুডি ম্যাশ ভাইয়ের রুমে গেলাম। সেদিন একটা অতিরিক্ত বোলার খেলাতে গিয়ে একজন ব্যাটসম্যান কম নিয়ে খেলতে হয়েছিল। তো সেই ম্যাচে আমাদের একটা ব্যাটসম্যান ইনজুরিতে পড়ে।’

‘পরে মুডি বললো, ম্যাশ তুমি তো ভালো ব্যাটিং করছো। তুমি আজ ওপেনিংয়ে খেল। মাশরাফি ভাই তো জানে আর্চারের বলে গতি আছে, তো মাশরাফি ভাই সম্মতি জানালেন। তখন গাজী (সোহাগ গাজী) নাস্তা করছিল। সেই সময় মাশরাফি ভাই গাজীকে গিয়ে বলেন, গাজী তোর আজ ওপেন করতে হবে। মনটা বড় কর, আর যা ব্যাটিং কর।’

পরে মাশরাফিও জানালেন ইংলিশ পেসার (তখনো অভিষেক হয়নি ইংল্যান্ডের হয়ে) জফরা আর্চারের গতিকে কতটা ভয় পেয়েছিলে, ‘জফরা আর্চার ১৪৫ কিলোমিটার গতিতে বল করে। টম মুডি আমাকে বলে তুমিতো এই মৌসুমে অনেক ভালো ব্যাটিং করছো, তুমি ওপেন করো। আমি বললাম কোন ব্যাপার না!’

‘পরে মুডিকে বললাম কোচ, ও (গাজী) খুব ভালো ব্যাটিং করে, টেস্টে একশো আছে, ও ওপেনিংয়ে খেলতে পারবে। মুডি আমাকে বলে, তুমি নিশ্চিত? তুমি নিশ্চিত? আমি বললাম একশভাগ নিশ্চিত। টেস্টে শতক আছে, জফরা আর্চারের মত বোলিং কোনো ব্যাপারই না। গাজী তো দেখি কোনো কথা না বলে ব্যাট-প্যাড নিয়ে নেমে গেছে। আমিতো তখন শুকরিয়া আদায় করছি!’

৯৭ প্রতিবেদক

Read Previous

তামিমকে ম্যাচ উইনারদের কাঁধে হাত রাখতে বললেন মাশরাফি

Read Next

নেট বোলার ও বলবয়দের সাহায্যে এগিয়ে আসলেন মুশফিক

Total
38
Share