কেকেআরের অলটাইম ইলেভেনে সাকিব আল হাসান

সাকিব আল হাসান কোলকাতা নাইট রাইডার্স
Vinkmag ad

করোনা ভাইরাসের প্রভাবে ২২ গজে ক্রিকেটবিহীন সময়টায় বিভিন্ন তারকা, জনপ্রিয় সংবাদ মাধ্যমগুলো তৈরি করছে বিভিন্ন দৃষ্টিকোণ থেকে নিজেদের সেরা একাদশ। কেউ দিচ্ছে তার চোখে সর্বকালের সেরা টেস্ট একাদশ আবার কেউ দিচ্ছে সর্বকালের সেরা ওয়ানডে একাদশ। এমনকি অজি তারকা ব্যাটসম্যান মাইক হাসিতো  যাদের বিরুদ্ধে খেলেছেন তাদের নিয়ে সেরা শত্রু একাদশও দিয়েছেন। এবার ভারতের প্রভাবশালী আনন্দবাজার পত্রিকা বেছে নিয়েছে আইপিএলে কোলকাতা নাইট রাইডার্সের সেরা একাদশ। অলটাইম ইলেভেনে জায়গা পেয়েছেন বাংলাদেশের পোস্টারবয় সাকিব আল হাসান।

একাদশ ছাড়াও বেঞ্চের দুজন অতিরিক্ত খেলোয়াড়ের তালিকাও করেছে আনন্দবাজার। নেতৃত্বে থাকছেন কোলকাতাকে দুইবার আইপিএল চ্যাম্পিয়ন করা অধিনায়ক গৌতম গম্ভীর। সাত মৌসুমে কোলকাতার হয়ে খেলা গম্ভীর ব্যাট হাতেও ছিলেন উজ্জ্বল। তার সাথে ওপেনার হিসেবে থাকছেন নিউজিল্যান্ড তারকা ব্যাটসম্যান ও দলটির বর্তমান কোচ ব্রেন্ডন ম্যাককুলাম। ২০০৮ সালে আইপিএল অভিষেক ম্যাচেই খেলেছেন ১৫৮ রানের বিষ্ফোরক ইনিংস।

রবিন উথাপ্পা ও কোলকাতা যেন একই সুতোয় গাঁথা। উইকেটরক্ষক এই ব্যাটসম্যান খেলবেন তিন নম্বর পজিশনে। তবে কিপিং করবেন কিনা সেটা ম্যাককুলামের উপরই ছেড়ে দিয়েছে আনন্দ বাজার। ম্যাককুলাম না চাইলে উত্থাপাকে দেখা যাবে উইকেট কিপিংয়েও। কোলকাতার মিডল অর্ডারের ভরসা মনীশ পান্ডে থাকছেন চার নম্বরে। ২০১৪ সালে কোলকাতার শিরোপা জয়ে তার অবদানও কম নয়, ফাইনালে খেলেছেন ম্যাচ জেতানো ইনিংস।

ব্যাটে বলে টি-টোয়েন্টিতে যেকোন দলেরই প্রথম চাহিদা হবেন ক্যারিনিয়ান অলরাউন্ডার আন্দ্রে রাসেল। কোলকাতার হয়ে খেলছেন বেশ কয়েকটি মৌসুম। তার ১৮৮.৭৪ স্ট্রাইক রেট অন্তত ১২৫ বল খেলা ব্যাটসম্যানদের মধ্যে আইপিএলে সর্বোচ্চ স্ট্রাইক রেট। বল হাতেও নিয়েছেন ৫০ এর বেশি উইকেট। রাসেলের একাদশে থাকা তাই অনুমেয়ই ছিল।

সাকিব আল হাসানের আইপিএল অভিষেকটা হয়েছিল কোলকাতার হয়ে। খেলেছেন টানা ৭ মৌসুম। দুইবার চ্যাম্পিয়ন হওয়ার পেছনে ছিল ব্যাটে-বলে অবদান। সাকিবের একাদশে থাকা দলের ভারসাম্য বাড়াবে বলছেন প্রভাবশালী পত্রিকাটি। একাদশে সাকিবকে অন্তর্ভূক্ত করা আনন্দবাজার লিখেছে, ‘ব্যাটে নির্ভরযোগ্য, বল হাতে কৃপণ। সাকিবের উপস্থিতি ভারসাম্য বাড়াবে দলে। প্রায় সাত বছর কেকেআরে ছিলেন তিনি। কলকাতার দু’বার চ্যাম্পিয়ন হওয়ার নেপথ্যে ব্যাটে-বলে অবদান ছিল তাঁর।’

একাদশে আছে ক্যারিবিয়ান অফ স্পিনার সুনীল নারাইনও। কোলকাতার হয়ে বল হাতে নিয়েছেন ১১২ উইকেট, ব্যাট হাতে তুরুপের তাস হয়ে ওপেন করতে নেমে খেলেছেন কিছু ঝড়ো ইনিংসও।

লেগ স্পিনার পীযুষ চাওলা সুযোগ পেয়েছেন কোলকাতার হয়ে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ৬৬ উইকেট শিকারের বদলৌতে। ভারতীয়দের মধ্যে কোলকাতার হয়ে তার চাইতে বেশি উইকেট নেয়নি কেউ। বাঁহাতি চায়নাম্যান কুলদ্বীপ যাদব একাদশে টিকে গেছেন তার বোলিং স্টাইলের জন্যই। একাদশে একজন বাঁহাতি চায়নাম্যান রাখা দলে বৈচিত্র বাড়াবে।

পেসার হিসেবে একাদশে জায়গা নিশ্চিত করেছেন মোহামদ শামি ও উমেশ যাদব। মোহাম্মদ শামি কোলকাতার জার্সি গায়েই প্রথম পাদপ্রদীপের আলোয় আসেন, যাদবও নিজেকে পোক্ত করেন কোলকাতার জার্সিতেই।

পাকিস্তানের গতি তারকা ‘রাওয়ালপিন্ডি এক্সপ্রেস’ খ্যাত শোয়েব আখতার থাকছেন বেঞ্চ গরমে, তার সঙ্গী ফিনিশার হিসেবে সুনাম কুড়ানো ভারতীয় ব্যাটসম্যান সুরিয়াকুমার যাদব। পরিস্থিতি বিবেচনায় দুজনেই যেকোন সময় ঢুকে পড়তে পারেন একাদশে।

আনন্দবাজারের সেরা কোলকাতা নাইট রাইডার্স একাদশঃ

ব্রেন্ডন ম্যাককুলাম, গৌতম গম্ভীর (অধিনায়ক), রবিন উত্থাপা, মনীশ পান্ডে, আন্দ্রে রাসেল, সাকিব আল হাসান, সুনীল নারাইন, পীযুশ চাওলা, কুলদ্বীপ যাদব, উমেশ যাদব ও মোহাম্মদ শামি।

বেঞ্চঃ শোয়েব আখতার ও সুরিয়াকুমার যাদব।

৯৭ ডেস্ক

Read Previous

সৌম্য সরকারের ব্যাটের ভিত্তি মূল্য ৩ লক্ষ টাকা

Read Next

মুশফিকের ব্যাটের নিলামে বিড করবেন তামিম

Total
145
Share