বৈধ হচ্ছে বল টেম্পারিং!

ক্রিকেট বল টেম্পারিং
Vinkmag ad

বাহ্যিক পদার্থ ব্যবহার করে ক্রিকেট বলকে পলিশ করাকে এতদিন ধরে বল টেম্পারিং বলা হতো, তবে তা এখন বৈধ করার চিন্তা ভাবনা চলছে । কোভিড-১৯ মহামারীর পরে খেলা চালু হলে ক্রিকেট বলে থুথু (লালা) দিয়ে পলিশ করাটা সতর্কজনকভাবে দেখা হতে পারে।

ইএসপিএনের সূত্রমতে আম্পায়ারদের তদারকির মধ্য দিয়ে বলে বাহ্যিক পদার্থ ব্যবহারের অনুমতি নির্দেশকরা দিতে পারেন বলে জানা যায়, যা বর্তমানে বল টেম্পারিং নামে অবৈধ রয়েছে।

আইসিসির মেডিকেল কমিটির দাবি অনুযায়ী ক্রিকেট বলে লালা দিয়ে পলিশ করাটা একদমই অনিরাপদ বলে বিবেচিত ছিল। করোনা ভাইরাসের প্রভাবে আপাতত সকল ধরণের ক্রিকেটীয় কার্যক্রম নিষিদ্ধ রয়েছে।

বল মসৃণ করে পেসাররা সুইং পেতে সুবিধা পায়, যা প্রচলিত টেস্ট ক্রিকেটের একটি অভ্যন্তরীণ বিষয় ছিল।

যদি এই সিদ্ধান্ত সামনের দিকে অগ্রসর হয়, তবে ক্রিকেট নির্দেশকদের জন্য এটা দুর্ভাগ্যই বলা যায়। ২০১৮ সালের বল টেম্পারিং ইস্যুতে বলে শিরিষ কাগজ দিয়ে মসৃণ করার কারণে স্টিভেন স্মিথ এবং ডেভিড ওয়ার্নারকে এক বছরের জন্য নিষিদ্ধ করা হয়েছিল (ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া করেছিল)।

বৃহস্পতিবার আইসিসি প্রধান নির্দেশকদের আলোচনায় মেডিকেল কমিটির পিটার হারকোর্ট এই বিষয়টি তুলে ধরেন।

‘আমাদের পরবর্তী পদক্ষেপ হচ্ছে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটের জন্য একটি কর্মসূচি তৈরি করা এবং এটি বিভিন্ন আলোচনা-পর্যালোচনার ভিত্তিতে তৈরি হবে।’

‘খেলোয়াড়দের প্রস্তুতি, সরকারি বিধি-বিধান ও ধর্মীয় অনুশাসন এই কর্মসূচির মধ্যে অন্তর্ভূক্ত থাকবে। বর্তমানে করোনার প্রভাবে বিশ্বব্যাপী ক্রিকেট শুরু করা সম্ভব হচ্ছে না’, হারকোর্ট বলেন।

সাম্প্রতিক সময়ে অস্ট্রেলিয়ান পেসার জশ হ্যাজেলউড বলেন যে বল প্রয়োজোনীয় মুভমেন্ট না থাকার কারণে বোলারদের জন্য টেস্ট ক্রিকেটে খেলাটা কঠিন হয়ে যাচ্ছে।

‘আমার মতে সাদা বল ঠিক আছে, কিন্তু টেস্ট ক্রিকেট আসলেই কঠিন। বোলাররা বাতাসের যেকোন মুভমেন্টের জন্য নির্ভরশীল থাকে’।

‘যদি আপনি ৮০ ওভার পর্যন্ত বল নিয়ন্ত্রণ করতে না পারেন, তাহলে নতুন বলের মসৃণতা চলে যাওয়ার পরে ব্যাটসম্যানরা সহজে খেলতে পারে। যেখানে একজন থুথু অথবা ঘাম ব্যবহার করে বলে মসৃণতা আনতে পারে।’

প্রাক্তন ভারতীয় পেসার ভেংকটেশ প্রসাদ বলে থুথু ব্যবহারকে সমর্থন দেননি। ভারতের হয়ে ৩৩টি টেস্ট ও ১৬১টি ওয়ানডে ম্যাচ খেলা প্রসাদ পিটিআইকে বলেন, ‘যখন খেলা শুরু হবে, বোলাররা শুধুমাত্র তাদের শরীরের ঘাম কিছুটা সময় বলে ব্যবহার করতে পারে।’

যদিও তিনি মনে করেন আকস্মিকভাবে এটা বন্ধ করলে বোলারদের জন্য কঠিন হয়ে দাঁড়াবে।

৯৭ ডেস্ক

Read Previous

ছেলের ক্যারিয়ার শেষ ভেবে যুবরাজের কাছে জার্সি চেয়েছিলেন ক্রিস ব্রড

Read Next

কোচিং স্টাফে বদলের ইঙ্গিত দিলেন বিসিবি কর্তা

Total
9
Share