ওয়াসিম-ওয়াকারদের সামনে খেই হারিয়ে ফেলেছিলেন শচীন

শচীন টেন্ডুলকার
Vinkmag ad

শচীন রমেশ টেন্ডুলকার ২৪ বছরের আন্তর্জাতিক ক্যারিয়ারে গড়েছেন নানা কীর্তি। নিজেকে নিয়ে গেছেন অনন্য উচ্চতায়, ক্রিকেটপ্রেমীদের চোখে যিনি ক্রিকেট ঈশ্বর! অথচ ক্যারিয়ারের শুরুতে করেছেন নানা সংগ্রাম, কেটেছে অনিশ্চিত জীবন। আর সেসব নিয়ে কথা বলতে গিয়েই জানালেন শুরুর দিকে কতটা খেই হারিয়ে ফেলা অবস্থায় ছিলেন, এমনকি নিজের শেষ টেস্ট ভেবে কান্নাও করতেন।

মাত্র ১৬ বছর বয়সে টেস্ট অভিষেক করাচির ন্যাশনাল স্টেডিয়ামে পাকিস্তানের বিপক্ষে। সদ্য কিশোর তকমা গায়ে লাগা শচীনের হৃদ কম্পন বাড়াতে সেদিন অপেক্ষায় ছিলেন ওয়াকার ইউনুস, ইমরান খান, ওয়াসিম আকরামদের মত গতি, সুইংয়ে নাকাল করে তোলা পেসাররা। অভিষেক ইনিংসে করতে পারেননি ১৫ রানের বেশি। ঐ টেস্টের পর শচীন খেলেছেন ভারতের হয়ে আরও ১৯৯ টেস্ট।

তবে অভিষেকে ভালো কিছু করতে না পেরে অজানা শঙ্কায় থাকার কথা গোপন করেননি ভারতীয় এই কিংবদন্তী। ইংলিশ ধারাভাষ্যকার নাসের হুসেইনের সাথে স্কাই স্পোর্টসের একটি অনুষ্ঠানে শচীন বলেন,
‘আমি খেই হারিয়েছিলাম, এটা স্বীকার করতেই হবে। আমি প্রথম টেস্ট যখন খেলি মনে হচ্ছিল কোন স্কুল ক্রিকেটের ম্যাচ খেলছি।’

অভিষেক টেস্টেই ওয়াকার, আকরামদের সামলানো প্রসঙ্গে টেন্ডুলকার বলেন, ‘ওয়াসিম ও ওয়াকার দ্রুত গতিতে বোলিং করছিল। তারা শর্ট বল এবং বিভিন্ন ধরণের ভয়ঙ্কর বৈচিত্র ব্যবহার করছিল। আমি এর আগে কখনো এমন চ্যালেঞ্জের সামনে পড়িনি। সুতরাং প্রথম আউটটা আমার জন্য আনন্দের ছিলনা।’

‘আমি মাঝে মাঝে তাদের গতিতে পরাস্ত হচ্ছিলাম কিন্তু যখন ১৫ রান করে আউট হয়েছি (ওয়াকার ইউনুসের বলে) তখন ড্রেসিং রুমে যাওয়ার পথে বিব্রতবোধ করছিলাম।’

ড্রেসিং রুমে গিয়ে সোজা বাথরুম এরপর শচীনের কান্না, ‘আমি নিজেকে প্রশ্ন করতে লাগলাম তুমি এটা কী করলে? কেন এভাবে খেললে? এরপর ড্রেসিং রুমে পৌঁছেই সোজা বাথরুমে গেলাম ততক্ষণে প্রায় কান্না শুরু করে দিয়েছি।’

বর্তমানে অসংখ্য রেকর্ডের মালিক শচীন তখন নিজকে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটের জন্য যথার্থ মনে করতে পারছিলেন না, ‘আমি পুরোপুরি ভাবতে শুরু করি আমি জায়গাটার জন্য প্রস্তুত নই। আমি নিজের দিকে তাকালাম, নিজেকে প্রশ্নবিদ্ধ করে বললামঃ দেখে মনে হচ্ছে এটাই তোমার প্রথম ও শেষ টেস্ট। আমি অনুভব করছিলাম যে আমি যথেষ্ট যোগ্য নই।’

৯৭ ডেস্ক

Read Previous

কপিলের সিদ্ধান্তে ভিভ রিচার্ডসের সাধুবাদ

Read Next

ইমিউনিটি বাড়াতে যা করছেন রায়না

Total
12
Share