লালাকে হরভজন-নেহরার ‘হ্যা’, ভ্যাসলিনকে ‘না’

নেহরা হরভজন সিং
Vinkmag ad

করোনা ভাইরাস যখন বিশ্বব্যাপী মহামারি রূপ ধারণ করেছে তখন ক্রিকেট খেলায় বোলারের মুখের লালা, ঘাম ব্যবহার না করার সিদ্ধান্তে আসতে পারে আইসিসি। এর বিকল্পও খোঁজা হচ্ছে। তবে বেশ কিছু ক্রিকেটার বলছেন প্রাকৃতিকভাবে সুবিধা নেবার বিক্লপ নেই বোলারদের। কৃত্রিম দ্রব্যাদি ব্যবহার করে বোলিংয়ে সুবিধা পাবার বিপক্ষে তারা।

ভারতের সাবেক পেসার আশিস নেহরা ও সাবেক স্পিনার হরভজন সিং মনে করে বল শাইন করতে মুখের লালার বিকল্প নেই।

প্রসঙ্গত, মুখের লালার ব্যবহার নিরুৎসাহিত করতে বল টেম্পারিং (কৃত্রিম উপায়ে বলের গুণগত মান পরিবর্তন) কে বৈধতা দিতে পারে আইসিসি।

এই প্রসঙ্গে নেহরা দ্বিমত পোষণ করে বলেন, ‘একটা বিষয় পরিষ্কার হওয়া দরকার। বল সুইং করবে না যদি বলে ঘাম বাঁ মুখের লালা ব্যবহার না করা হয়। সুইং বোলিংয়ের মূল দরকার এটিই। বলের একপ্রান্তের অবস্থা যখন খারাপ হয়ে যায় তখন অপর পাশে ঘাম বাঁ লালা ব্যবহার করতেই হবে (সুইং পেতে)।’

ভ্যাসলিন ব্যবহার করে সুইং করা যাবে। তবে সেক্ষেত্রে আগে মুখের লালা বাঁ ঘাম ব্যবহার করে নিতে হবে বলে মনে করেন নেহরা। এই ক্ষেত্রে তিনি ইংল্যান্ডের বোলার লেভারের উদাহরণ দেন। যিনি বলে ভ্যাসলিন ব্যবহার করে সফল হয়েছিলেন। নেহরার মতে লেভার আগে লাল ব্যবহার করে তবেই ভ্যাসলিন ব্যবহার করেছিলেন।

এদিকে হরভজন সিং বলেন, ‘যদি আপনি বল টেম্পারিংকে বৈধতা দিয়ে দেন তাহলে দেখা যাবে ইনিংসের ৫ম ওভার থেকেই বল রিভার্স সুইং করা শুরু করছে। সেটা কি ভালো কিছু হবে? লালাকে সমীকরণের বাইরে রাখার মানে হল সুইংকে বাইরে রাখা। যেটা মোটেও ভালো কোন পরিকল্পনা হতে পারে না।’

৯৭ ডেস্ক

Read Previous

বিশ্বকাপের মেডেল হারিয়ে ফেলেছেন আর্চার!

Read Next

কপিলের সিদ্ধান্তে ভিভ রিচার্ডসের সাধুবাদ

Total
4
Share