ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়াকে ৩০০ মিলিয়ন ডলার দিচ্ছে সরকার

ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া
Vinkmag ad

কোভিড-১৯ (করোনা ভাইরাস) মহামারীর কারণে বড় ক্ষতির সম্মুখীন হতে যাওয়া অস্ট্রেলিয়ার ক্রিকেট বোর্ডকে (ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া) চলতি বছর শেষ দিকে ঘরের মাঠে ভারতের বিপক্ষে সিরিজের ক্ষেত্রে ৩০০ মিলিয়ন ডলার আর্থিক সহায়তা দিতে যাচ্ছে দেশটির সরকার।

বিশ্বব্যাপী চলমান লকডাউনের কারণে ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া (সিএ) বিশাল অঙ্কের আর্থিক সংকটের মুখে দাঁড়িয়ে, ইতোমধ্যে ৮০ শতাংশ কর্মীকে দেওয়া হয়েছে অব্যহতি। বছরের একদম শেষ দিকে ভারতের বিপক্ষে ঘরের মাঠে চার ম্যাচ টেস্ট সিরিজটি  তাদের স্বস্তি এনে দিতে পারে।

করোনা প্রভাবে সেপ্টেম্বর পর্যন্ত অস্ট্রেলিয়ার সীমান্তগুলো বন্ধ করে রাখা হয়েছে কিন্তু পরিস্থিতির অবনতির কারণে বাড়তে পারে বহিরাগতদের প্রবেশে নিষেধাজ্ঞাও। সেক্ষেত্রে ডিসেম্বর-জানুয়ারিতে ভারতের অস্ট্রেলিয়া সফর পিছিয়ে গেলে ক্ষতিটা ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়ারই। আর এ কারণেই ভারতের অস্ট্রেলিয়া সফরের বিষয়টি বিশেষ বিবেচনায় নিচ্ছে অস্ট্রেলিয়া সরকার।

ক্রিকেট বিষয়ক জনপ্রিয় ওয়েবসাইট’ইএসপিএনের’ প্রতিবেদন মতে, ‘প্রশাসনিক সংস্থা (ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া) সরকারের দৃষ্টিভঙ্গির বিষয়ে ইতিবাচক খবর পেয়েছে। অন্তত লাভজনক ভারত সফর বেশ ভালোভাবে বিবেচনায় আছে।’

প্রাথমিকভাবে টিভি সম্প্রচার সত্ব থেকে ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া এই আর্থিক চক্রে ৫০০ মিলিয়ন অস্ট্রেলিয়ান ডলার আয়ের প্রত্যাশা করছিল। এমনকি যদি দর্শকের অনুমতি না মিলে এবং ক্রিকেট শুধু টিভি দর্শক নির্ভর হয়ে যায় তারা ৫০ মিলিয়ন অস্ট্রেলিয়ান ডলার ক্ষতিতে পড়বে। কিন্তু ভারত যদি সফরই করতে না পারে তাহলে ফলস্বরূপ অনেক বড় অঙ্কের আর্থিক ক্ষতিতে পড়তে হবে।

অস্ট্রেলিয়ার প্রধানমন্ত্রী স্কট মরিসন বলছেন তার সরকার খেলাধুলা পুনরায় মাঠে ফেরানোর ক্ষেত্রে সর্বোচ্চ বিকল্পগুলোকে বিবেচনায় নিবে। এ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘এটি করতে সবচেয়ে নিরাপদ উপায় যেটি সেটিই আমরা সর্বোচ্চভাবে বিবেচনায় নিব। সবগুলো রাজ্যজুড়েই আমাদের ধারাবাহিকতা বজায় থাকবে। আর এটিই সবগুলো রাজ্য একসাথে সমর্থন করেছে, আশা করছি এ পথেই সহায়ক ব্যাপারগুলো খুঁজে পাওয়া যাবে।’

৯৭ ডেস্ক

Read Previous

শচীনের চোখে বিশ্বের শীর্ষ ৫ অলরাউন্ডার

Read Next

একাধিক স্মারক নিলামে তুলছেন অ্যান্ডারসন

Total
4
Share