১৫ বছরের ক্যারিয়ারের ইতি টানলেন সানা মির

সানা মির
Vinkmag ad

১৫ বছরের ক্রিকেট ক্যারিয়ারের ইতি টানলেন পাকিস্তান নারী দলের ক্রিকেটার সানা মির। ২০০৫ থেকে ২০১৯ সাল পর্যন্ত পাকিস্তানের পক্ষে ১২০ টি ওয়ানডে ও ১০৬ টি টি-টোয়েন্টি খেলেছেন সানা মির। ২২৬ আন্তর্জাতিক ম্যাচের মধ্যে ১৩৭ ম্যাচে (২০০৯ থেকে ২০১৭) পাকিস্তান নারী দলকে নেতৃত্ব দিয়েছেন তিনি।

এক বিবৃতিতে অবসরের ঘোষণা দিয়ে সানা মির জানান, ‘১৫ বছর ধরে আমার দেশকে সার্ভ করতে দেবার জন্য আমি পিসিবি’র (পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড) প্রতি কৃতজ্ঞতা জানাচ্ছি। আমার জন্য এটি ছিল গর্বের উপলক্ষ। আমার ক্যারিয়ারে, নারীদের ক্রিকেটে উন্নতিতে যেসব সাপোর্ট স্টাফ, খেলোয়াড়, গ্রাউন্ড স্টাফ ছিলেন সবার প্রতি আমার কৃতজ্ঞতা।’

‘আমি আমার পরিবার ও মেন্টরদের ধন্যবাদ জানাতে চাই। আন্তর্জাতিক অঙ্গনে পাকিস্তানকে প্রতিনিধিত্ব করার সুযোগ তাদের সমর্থন ছাড়া আসতো না আমার কাছে। এছাড়া আমার ডিপার্টমেন্টাল টিম জেডটিবিএল আমার ক্যারিয়ারজুড়ে সমর্থন দেওয়ার জন্য ধন্যবাদ জানাতে চাই। ডিপার্টমেন্টাল ক্রিকেট চললে আমি তাদের হয়ে খেলে যাব।’

নারীদের ক্রিকেটে অভূতপূর্ব উন্নতি এসেছে উল্লেখ করে আইসিসিকে ধন্যবাদ জানান সানা মির। বিশ্বজুড়ে সমর্থকদেরও ধন্যবাদ জানিয়েছেন তিনি।

পিসিবির প্রধান নির্বাহী ওয়াসিম খান সানা মিরের অবসর প্রসঙ্গে বলেন, ‘পাকিস্তান ক্রিকেটের পক্ষ থেকে আমি সানা মিরকে সফল ক্রিকেটীয় ক্যারিয়ারের জন্য অভিনন্দন জানাতে চাই। অনেক বছর ধরেই সে পাকিস্তান নারী দলের প্রধান মুখ। নারীদের ক্রিকেটে তরুণীদের আসতে সে অনুপ্রেরণা হিসাবে কাজ করবে।’

‘সানা নারীদের ক্রিকেটে একজন কিংবদন্তি। আমি নিশ্চিত সে নারীদের ক্রিকেটে সামনেও অবদান রাখবে।’

২০০৫ সালে করাচিতে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে ওয়ানডে অভিষেক হয় সানা মিরের। শেষ ওয়ানডে খেলেছেন লাহোরে ২০১৯ সালের নভেম্বরে বাংলাদেশের বিপক্ষে। ১২০ ওয়ানডেতে ১৫১ উইকেট নেওয়া সানা মির রান করেছেন ১৬৩০।

নারীদের ক্রিকেটে আনিসা মোহাম্মদের সঙ্গে যৌথভাবে চতুর্থ সর্বোচ্চ উইকেটের মালিক এই ডানহাতি অফব্রেক বোলার। ২০১৮ সালে আইসিসি র‍্যাংকিংয়ে বোলারদের মধ্যে শীর্ষে ছিলেন তিনি। ১০০+ উইকেট ও ১০০০+ রানের ডাবল পাওয়া নয়জন নারী ক্রিকেটারের একজন তিনি।

১০৬ টি-টোয়েন্টি খেলে ৮৯ উইকেট নেওয়া সানা মিরের আছে ৮০২ রান।

উইজডেনে নারীদের টিম অব দ্য ডিকেডে ঠাই পাওয়া সানা মির পাকিস্তানকে দুই বিশ্বকাপ (২০১৩ ও ২০১৭) ও ৫ টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে (২০০৯, ২০১০, ২০১২, ২০১৪, ২০১৬) নেতৃত্ব দিয়েছেন।

৯৭ ডেস্ক

Read Previous

করোনাকালে স্থগিত হল আরো এক সিরিজ

Read Next

ভুল ধরিয়ে দিয়ে জেসন রয় বললেন ‘৫’ নয়, ‘৩’

Total
56
Share