এশিয়া কাপ পিছিয়ে আইপিএল, মানবে না পাকিস্তান

এহসান মানি ওয়াসিম খান পিসিবি
Vinkmag ad

করোনা ভাইরাসের কারণে দুই দফা স্থগিত হয়েছে আইপিএল (ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগ)। ভারত জুড়ে চলমান লকডাউন শেষ হলেও মাঠে ক্রিকেট ফেরাতে ঠিক কত সময় লাগবে তা স্পষ্ট নয়। এমতাবস্থায় লাভজনক টুর্নামেন্ট আইপিএল মাঠে গড়াতে দেখতে চাইবে বিসিসিআই (বোর্ড অব কন্ট্রোল ফর ক্রিকেট ইন ইন্ডিয়া)। সেক্ষেত্রে পেছানোর প্রস্তাব আসতে পারে এশিয়া কাপ। যদি এমনটি হয় তবে তা মানা হবেনা বলে জানিয়ে দিয়েছেন পিসিবির প্রধান নির্বাহী ওয়াসিম খান।

ওয়াসিম খান পাকিস্তানের জিটিভি নিউজ চ্যানেলে বলেন, ‘আমাদের অবস্থান পরিষ্কার। সূচী অনুযায়ী এশিয়া কাপ হবার কথা সেপ্টেম্বরে। সেটা কেবল একভাবেই পেছাতে পারে- করোনা ভাইরাসের জন্য। এই উইন্ডোতে আইপিএলের জন্য জায়গা করে দিতে এশিয়া কাপ সরিয়ে নেবার প্রস্তাবে আমরা সায় দেবো না।’

তিনি যোগ করেন, ‘আমি শুনেছি এশিয়া কাপ সরিয়ে নভেম্বর-ডিসেম্বরে করার কথা। কিন্তু আমাদের জন্য এটা সম্ভব নয়। যদি এশিয়া কাপ সরানো হয় তাহলে সেটা কেবল একটি দেশের জন্য করা হবে যা সঠিক নয়, এবং এটা আমাদের সমর্থন পাবে না।’

এবারের এশিয়া কাপের আয়োজনের দায়িত্ব পাকিস্তানের কাঁধে। আয়োজক হলেও নিজেদের দেশে এশিয়ার শ্রেষ্ঠত্বের লড়াইয়ের মঞ্চায়ন করতে পারবে না পাকিস্তান। সেটা ভারত পাকিস্তানে যেয়ে খেলবে না দেখেই। যেকারণে সেপ্টেম্বরে নিরপেক্ষ ভেন্যুতে সংযুক্ত আরব আমিরাতে এশিয়া কাপ হবার কথা।

আইসিসির সিইসি (চীফ এক্সিকিউটিভ কমিটি) সভায় অক্টোবর-নভেম্বরে অনুষ্ঠিতব্য টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ আয়োজন স্থগিত করা নিয়ে কোন আলাপ হয়নি। বরং যথাসময়ে সেটি আয়োজনে আশাবাদী আয়োজক ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া সহ আইসিসির সব সদস্য রাষ্ট্র। এর পেছনে রয়েছে আর্থিক কারণ।

এই প্রসঙ্গে পিসিবির প্রধান নির্বাহী বলেন, ‘অস্ট্রেলিয়ায় এবারের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ হয়তো ক্লোজ ডোর স্টেডিয়ামে হতে পারে। যদি আমরা বিশ্বকাপ না খেলি তাহলে প্রতিটি বোর্ড ১৫ থেকে ২০ মিলিয়ন ডলার করে ক্ষতির সম্মুখিন হবে।’

৯৭ ডেস্ক

Read Previous

এখনো নিজের প্রিয় উইকেটের ভিডিও দেখেন রুবেল

Read Next

কোহলি-ভিলিয়ার্সের চোখে সেরা ভারত-দক্ষিণ আফ্রিকার মিলিত ওয়ানডে একাদশ

Total
260
Share