প্রশংসার পাশাপাশি দাবিও তুলছেন ক্রিকেটাররা

আবু হায়দার রনি আবু জায়েদ রাহি
Vinkmag ad

করোনা সংক্রমণ আশঙ্কায় ঢাকা প্রিমিয়ার লিগের প্রথম রাউন্ডের পরই স্থগিত হয় দেশের সবধরণের ক্রিকেট। সময় যত এগোচ্ছে পরিস্থিতি যেন অবনতির দিকে। ফলে ঢাকা প্রিমিয়ার লিগই আয়ের মুল উৎস এমন ক্রিকেটারদের কপালে চিন্তার ভাঁজ। অন্যদিকে লিগের বাকি অংশ মাঠে না গড়ালে প্রথম শ্রেণির চুক্তিতে থাকাটা ক্রিকেটাররাও পড়বেন বড় অঙ্কের আর্থিক ক্ষতির মুখে। এদিকে জাতীয় দল ও প্রথম শ্রেণির চুক্তিতে না থাকাদের জন্য বোর্ড এই খারাপ সময়ে এককালীন ৩০ হাজার টাকা করে দেওয়ার ঘোষণা দিয়েছে।

বিসিবির এমন উদ্যোগের প্রশংসা করেছেন চুক্তিতে থাকা না থাকা সব ক্রিকেটারই। যদিও পুরো লিগ খেলে বড় অঙ্কের অর্থ পাওয়ার তুলনায় এই অঙ্ক নগন্যই বলতে হয়। ফলে আর্থিক অনিশ্চয়তা দূর করতে করোনা ভাইরাস প্রভাব শঙ্কামুক্ত হলে প্রিমিয়ার লিগ দিয়েই যেন ক্রিকেট ফেরে বাংলাদেশে তেমনটাই চান ক্লাবগুলোর ক্রিকেটাররা।

মোহামেডান স্পোর্টিং ক্লাবের বাঁহাতি পেসার আবু হায়দার রনি নিজে প্রথম শ্রেণির চুক্তিতে থাকলেও সামগ্রিকভাবে বিসিবির উদ্যোগকে সাদুবাদ জানিয়েছেন। ‘ক্রিকেট৯৭’ কে রনি বলেন, ‘আসলে কঠিন পরিস্থিতিতে বিসিবি যে উদ্যোগটা নিয়েছে সত্যি প্রশংসার দাবিদার। কারণ বেশিরভাগ ক্রিকেটারই চুক্তিতে নাই, খুব কম সংখ্যক চুক্তিতে আছে। এদের বাইরে যারা আছে তাদের জন্য বিসিবির এমন চেষ্টা, হতে পারে অঙ্কটা বেশ বড় নয় কিন্তু এই কঠিন সময়ে এটা কাজে দিবে যারা চুক্তিতে নাই।’

করোনা পরিস্থিতির দ্রুত অবসান ঘটলে প্রিমিয়ার লিগ দিয়েই দেশের ক্রিকেট আবার চালু হওয়ার দাবি বাঁহাতি এই পেসারের, ‘প্রিমিয়ার লিগ নিয়ে যদি আমি বলি তাহলে আমার চাওয়া থাকবে যে আমরা এই সংকটময় সময় খুব তাড়াতাড়ি কাটিয়ে উঠবো। পরিস্থিতি স্বাভাবিক হলে আমদের ক্রিকেটারদের চাওয়া বিসিবি যেন প্রিমিয়ার লিগ দিয়ে মৌসুমটা শুরু করে। এটাই চাওয়া থাকবে প্রিমিয়ার লিগ যেখানে শেষ হয়েছে সেখান থেকেই বাংলাদেশের সবধরণের ক্রিকেট ফিরবে।’

ঢাকা প্রিমিয়ার লিগে শেষ দুইবারের চ্যাম্পিয়ন প্রভাবশালী আবাহনী লিমিটেডের ডানহাতি পেসার শহিদুল ইসলামও চুক্তির বাইরের ক্রিকেটারদের সহযোগীতার উদ্যোগের প্রশংসা করেছেন। শহিদুল বলেন, ‘খুব ভালো সিদ্ধান্ত নিয়েছে (চুক্তির বাইরের ক্রিকেটারদের এককালীন সাহায্য)। এটা অনেকের উপকারে আসবে। প্রিমিয়ার লিগই অনেকের রুটি রুজি। পরিস্থিতি স্বাবভাবিক হলে আমরা আবার প্রিমিয়ার লিগটা শুরু করতে পারলেই সবার জন্য সবচেয়ে বেশি কাজে আসবে।’

তবে আয়ের মূল উৎস প্রিমিয়ার লিগের এবারের আসর যেন ফের শুরু হয় সে ব্যাপারে বেশ তৎপর শহিদুল। জাতীয় দলের খেলয়াড়েরা ব্যস্ত থাকলেও বাকীদের দিয়ে লিগ চালু করার পক্ষে মত এই পেসারের, ‘জাতীয় দলের ক্রিকেটাররা তখন ব্যস্ত থাকলেও বাকীদের নিয়ে সুযোগ করে প্রিমিয়ার লিগটা শেষ করতে পারলে সবার জন্য ভালো। এটাই আমাদের চাওয়া, আল্লাহ’র রহমতে যেন সব ঠিকঠাক হয় এবং প্রিমিয়ার লিগ মাঠে গড়াক।’

নাজমুল হাসান তারেক

Read Previous

ক্রিকেটারদের বেতন কেটে রাখবে ইসিবি!

Read Next

সরকারি তহবিলে অনুদানের সিদ্ধান্ত একাই নিবেন পাপন

Total
14
Share