গ্যাস সিলিন্ডার বিস্ফোরণে আহত লিটন দাসের স্ত্রী

লিটন দাস সঞ্চিতা
Vinkmag ad

করোনা শঙ্কায় থমকে আছে গোটা পৃথিবী, স্থগিত হয়ে আছে দেশের সবধরণের ক্রিকেটও। আর এই কঠিন পরিস্থিতিতেই দূর্ঘটনার শিকার হয়েছেন জাতীয় দলের ক্রিকেটার লিটন দাসের স্ত্রী সঞ্চিতা। বাসার সিলিন্ডার বিস্ফোরণে আহত হয়ে অল্পের জন্য প্রাণে রক্ষা পেয়েছেন সঞ্চিতা।

মাঠে খেলা নেই, করোনা সংক্রমণ প্রতিহতের লক্ষ্যে পুরোপুরি বাসাতেই অবস্থান অন্য ক্রিকেটারদের মত লিটনেরও। সঙ্গী তার স্ত্রী দেবশ্রী বিশ্বাস সঞ্চিতা। গত পরশু (২৭ মার্চ) চা বানাতে গিয়েই দুর্ঘটনা ঘটে, অল্পের জন্য ভয়ঙ্কর বিপদ থেকে রক্ষা পান লিটন পত্নী।

পারিবারিক সূত্রে জানা যায় সিলিন্ডার সংযোগে ছিদ্র থেকে বিষ্ফোরণের সৃষ্টি। এমন ভয়াবহ পরিস্থিতিতে মুখের সামনের অংশ বাঁচাতে গিয়ে হাতের কিছু অংশ পুড়ে যায়, অন্যদিকে চুলের বেশিরভাগ অংশেও আগুন লাগে। বিষ্ফোরণের ফলে রান্নাঘরের কেবিনেটের কিছু অংশও ভেঙে পড়ে সঞ্চিতা শরীরের উপর।

শারীরিকভাবে মোটামুটি ভালো চোটে পড়লেও বড় বিপদ থেকে বেঁচেছেন লিটনের স্ত্রী বলতেই হয়। শারীরিক অবস্থা কিছুটা উন্নতি হওয়ার পর আজ (২৯ মার্চ) নিজেও একটি ফেসবুক পোস্টে ঘটনার উল্লেখ করেন সঞ্চিতা।

মৃত্যুকে খুব কাছ থেকে দেখা সঞ্চিতা লিখেন, ‘আমি আমার অনুভূতি প্রকাশ করতে পারবোনা। আর সেতা আমার পক্ষে ভালো ও সহজ হবেনা। কারণ মৃত্যুর খুব কাছ থেকে ফিরে এসেছি। আমি হাত দিয়ে মুখ না ঢাকলে হয়তো পুরো মুখই পুড়ে যেত। এখন আমার চুলগুলো কাটতে হবে (পুড়ে যাওয়ায়)। এটা খুবই বিরক্তিকর, কিন্তু আমি সুস্থ হয়ে ফিরতে পারবো। যদি মুখে আগুন লেগে যেত জানিনা কি হত। সুতরাং সবাই সাবধান।’

কদিন আগেই লিটন দাস ও তার স্ত্রী খবরের শিরোনাম হয়েছিলেন দুস্থদের প্রতি সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিয়ে।

পড়ুনঃ নিম্ন আয়ের মানুষের জন্য লিটন-সঞ্চিতার উদ্যোগ

৯৭ প্রতিবেদক

Read Previous

করোনা ত্রাণে অক্ষয়ের ২৫ কোটি, টুইটারে হার্দিক-চাহালদের প্রশংসা

Read Next

নারী ক্রিকেটারদের সাহায্যে এগিয়ে এলো বিসিবি

Total
608
Share