কর্মীদের চাকরি বাঁচাতে ব্রড-গার্নিদের অভিনব উদ্যোগ

হ্যারি গার্নি অ্যালেক্স হেলস
Vinkmag ad

দেশের প্রধানমন্ত্রী ঘোষণা দিয়েছেন সকল পাব বন্ধ করার। এমতাবস্থায় নিজেদের পাবে কর্মরত কর্মীদের চাকরী বাঁচাতে এগিয়ে এসেছেন স্টুয়ার্ট ব্রড, হ্যারি গার্নিরা। নটিংহ্যামশায়ারের সতীর্থ স্টুয়ার্ট ব্রড ও হ্যারি গার্নি। তারা তাদের যৌথ মালিকানায় থাকা পাবকে টেকওয়ে ও অস্থায়ী গ্রাম্য দোকানে পরিণত করেছেন।

বন্ধু ড্যান ক্র্যাম্পের সঙ্গে স্টুয়ার্ট ব্রড ও হ্যারি গার্নি মিলে লেইচেস্টারশায়ারে একাধিক পাব দিয়েছেন। ২০১৮ সাল থেকে এই পাবগুলোর মালিকানা আছে ব্রড-গার্নিদের। করোনা ভাইরাসের মহামারী আকার ধারণ করার কারণে পাব ব্যবসা ক্ষতিগ্রস্থ হবে তা অনুমিতই ছিল। হলোও তাই। কিন্তু নিজেদের কর্মীদের (২০ জন) অর্থ উপার্জনের সুযোগ জিইয়ে রাখতে বদ্ধপরিকর ছিলেন গার্নি-ব্রডরা।

সম্প্রতি এক ক্রিকেট বিষয়ক ওয়েবসাইটকে হ্যারি গার্নি বলেন, ‘আমরা এটা সোমবারে শুরু করেছি (গ্রাম্য দোকান ও টেকওয়ে খাবারের দোকান)। প্রধানমন্ত্রী পাবগুলো এড়ানোর জন্য বলেছিলেন। তারপর শুক্রবার তিনি পাবগুলো বন্ধ করে দেওয়ার পরামর্শ দিলেন, তখন বিশেষ ওই পরিস্থিতি থেকে আমরা তিন-চার দিন এগিয়ে ছিলাম।’

কেনো এই উদ্যোগ? এর উত্তর দিলেন গার্নিই, এমনটি করার পেছনে কারণ হলো কর্মীদের চাকরি রক্ষা করা। কারণ আমরা জানতাম পাবের ব্যবসা রাতারাতি বন্ধ হয়ে যাবে। আমাদের পাবগুলোতে যারা কর্মী আছেন তারা তাদের ঋণের কিস্তি পরিশোধের জন্য আমাদের ওপর নির্ভর করে। আমরা এমন এক উপার্জনের উৎস খোঁজার চেষ্টা করছিলাম যাতে এই কর্মীদের সংকটের সময়েও অর্থের যোগান দিতে পারি।’

‘আমি শেষ সোমবারে একটা সভা ডেকেছিলাম। সেখানে সকল ম্যানেজমেন্টের সামনে বলেছি আমরা পরবর্তী সপ্তাহের মধ্যে এটা বন্ধ করতে বাধ্য হনো। তাই এর জন্য সবাই যেনো প্রস্তুত থাকি। আমরা যেনো কোনভাবেই কর্মী ছাঁটাই এর কথা না ভাবি।’

এই আপদকালীন মুহূর্তে ব্রড-গার্নিদের দোকানে বিক্রি করা হবে দুগ্ধজাত পণ্য ও বেকারি পণ্য। পানীয় থাকবে, যা পৌঁছে দেওয়া হবে ঘরে।

৯৭ ডেস্ক

Read Previous

৩৩ পেরোনো বাংলাদেশের পোস্টারবয়ের রেকর্ডনামা

Read Next

নিয়ম ভেঙে সৌরভকে বোর্ডে চান আইপিএল স্পট ফিক্সিং মামলার বাদী

Total
3
Share