স্পোর্টস ইভেন্টে সেশন জট, সঠিক সময়ে হবে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ?

17mcgworldcup
Vinkmag ad

করোনা ভাইরাসের প্রভাবে থমকে গেছে বিশ্বের প্রায় সব খেলাধুলা। ঘরোয়া-আন্তর্জাতিক সব ধরণের ক্রিকেটেও স্থগিতাদেশ জারি করেছে সংশ্লিষ্ট ক্রিকেট খেলুড়ে দেশগুলো। বেশ ভালোভাবেই সূচী বিপর্যয় ঘটতে যাচ্ছে এক প্রকার নিশ্চিত। তবে অক্টোবর -নভেম্বরে অস্ট্রেলিয়ায় অনুষ্ঠিতব্য টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ আয়োজন নিয়ে আশাবাদী ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়ার প্রধান নির্বাহী।

দেশটির ফুটবল লিগ স্থগিত রাখা হয়েছে করোনা ভাইরাসের আশঙ্কায়। আর এটিই পুরো সূচীকে করছে জটিল। কারণ বিশ্বকাপে যেসব ভেন্যুতে ম্যাচ অনুষ্ঠিত হবে সেসব মাঠ আবার দেশটির ফুটবল ক্লাবগুলোর হোমগ্রাউন্ড। স্থগিত ফুটবল লিগ মাঠে গড়ানোর সম্ভাবনাও ঠিক ঐ সময়টায়।

তবে ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়ার প্রধান নির্বাহী কেভিন রবার্টস অবশ্য সব প্রতিকূলতা পেছনে ফেলে যথাসময়ে বিশ্বকাপ আয়োজনের ব্যাপারে বেশ আশাবাদী। ১৫ নভেম্বর মেলবোর্ন ক্রিকেট গ্রাউন্ডে বিশ্বকাপ ফাইনাল আয়োজনের জন্য বদ্ধপরিকর ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া। পরিকল্পনা সাজানো হচ্ছে সেভাবেই, জানান কেভিন রবার্টস।’

আজ (১৭ মার্চ) ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়ার প্রধান নির্বাহী বলেন, ‘আমরা সত্যি আশাবাদী সবধরনের খেলাধুলা কয়েক সপ্তাহ বা অল্প কয়েক মাসের মধ্যেই মাঠে গড়াবে। আমরা কেউই এই পরিস্থিতির বিশেষজ্ঞ নই কিন্তু আশাবাদী যে অক্টোবর-নভেম্বরে অবস্থার পরিবর্তন হবে যখন পুরুষদের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা রয়েছে।’

চলতি মাসে মেলবোর্নে অনুষ্ঠিত নারী বিশ্বকাপের ফাইনালের মত ১৫ নভেম্বর পুরুষদের ফাইনাল ম্যাচও মেলবোর্নে আয়োজনের পূর্ণ প্রস্তুতি রাখছে ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া। এ প্রসঙ্গে কেভিন রবার্টস বলেন, ‘এই অবস্থায় আমরা পরিকল্পনা করছি গত সপ্তাহের নারী বিশ্বকাপের ফাইনালের মত ১৫ নভেম্বর পুরুষদের বিশ্বকাপের ফাইনালেও যেন মেলবোর্নের গ্যালারি হাউজফুল করতে পারি।’

অস্ট্রেলিয়ান ফুটবল লিগের স্থগিত হওয়া ম্যাচগুলো বিশ্বকাপের সময়টায় অনুষ্ঠিত হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে বলে দু পক্ষ মধ্যস্থতার মাধ্যমে বিশ্বকাপ আয়োজনের ব্যাপারটিও চূড়ান্ত হতে পারে বলে মনে করেন কেভিন রবার্টস। ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়ার প্রধান নির্বাহী বলেন, ‘আমরা এখনো এএফএল (অস্ট্রেলিয়ান ফুটবল লিগ) এর সাথে কথা বলিনি। তারাও এখনো যোগাযোগ করেনি।’

‘কিন্তু আমি মনে করি সব খেলাধুলা যেসব আমাদের সামনে আছে তাদের সাথে পারস্পরিক যোগাযোগ স্থাপন হবে। আমরা এএফএল ও অন্যান্য খেলাধুলার সাথে এই পরিস্থিতিতি কীভাবে সামলে নেওয়া যায় সেটা নিয়ে একটি সম্মেলন আহ্বান করেছি।’

উল্লেখ্য, অক্টোবর ১৮-২৩ টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের কোয়ালিফাইং রাউন্ড ও ২৪ অক্টোবর সিডনি ক্রিকেট গ্রাউন্ডে অস্ট্রেলিয়া-পাকিস্তান এবং পার্থে ভারত-দক্ষিণ আফ্রিকা ম্যাচ দিয়ে বিশ্বকাপের মূল পর্ব শুরু হওয়ার কথা রয়েছে। আর সূচী অনুযায়ী ১৫ নভেম্বর মেলবোর্ন ক্রিকেট গ্রাউন্ডে অনুষ্ঠিত হবে ফাইনাল ম্যাচ।

৯৭ ডেস্ক

Read Previous

অ্যালেক্স হেলস ইস্যুতে সরগরম টুইটার, চটেছেন হেলস

Read Next

করোনায় নিরাপদ থাকতেই মাঠে খেলা চান সুজন

Leave a Reply

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।

Total
9
Share