আইসোলেশনে থাকার আগে টুইটারে কিউই পেসারের বক্তব্য

mitchell mcclenaghan
Vinkmag ad

করোনাভাইরাসের বিস্তার রোধে ‘সেলফ-আইসোলেট’ হতে হবে নিউজিল্যান্ডে ফিরে আসা প্রত্যেককেই। পাকিস্তান সুপার লিগে খেলা নিউজিল্যান্ডের পেসার মিচেল ম্যাকক্লেনাগান দেশে ফিরেছেন বাসায় ফিরে রেফ্রিজারেটরে একটি নোটিশ দেখতে পান ম্যাকলেনাহান। হাসিমুখে সেই নোটের সাথে নিজের একটি ছবি টুইট করেছেন

বাবা-মায়ের কাছে চলে যাওয়ার আগে তার স্ত্রী একটি নোট লিখেছেন। কথাগুলো মিচেল ম্যাকক্লেনাগানকে উদ্দেশ করে,

‘যখন হতাশ লাগবে…ভেবে নিও….এটা আরও বাজে হতে পারত। তোমাকে অন্তত বউয়ের সঙ্গে ঘরে আটকে থাকতে হচ্ছে না।’

সেই নোট টুইটারের পোস্ট করে নিজের বক্তব্যও জানালেন ম্যাকক্লেনাগান।

বৈশ্বিক মহামারি করোনাভাইরাসের কারণে নিউজিল্যান্ড সরকার দেশটিতে ভ্রমণের ক্ষেত্রে নতুন বিধিনিষেধ আরোপ করেছে। যার ফলশ্রুতিতে অস্ট্রেলিয়ার মাটিতে তিন ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজ অসমাপ্ত রেখেই দেশে ফেরত আসে কিউই ক্রিকেটাররা। পিএসএল টুর্নামেন্ট খেলতে থাকা পেসার মিচেল ম্যাকলেনাহানও ফিরে এসেছেন নিউজিল্যান্ডে।

নিউজিল্যান্ড সরকার নিজেদের সীমান্তে বিধিনিষেধ জোরদার করেছে। তারা ঘোষণা দেয়, অস্ট্রেলিয়া কিংবা অন্য কোনো দেশ থেকে নিউজিল্যান্ডে প্রবেশ করলে তাকে ১৪ দিনের বাধ্যতামূলক কোয়ারেন্টাইনে থাকতে হবে।

অন্য সবার মতো ১৪ দিনের ‘সেলফ-আইসোলেশন’-এ থাকতে হচ্ছে মিচেল ম্যাকক্লেনাগান। আইসোলেশনে যাওয়ার আগে তাকে মানসিক ভাবে চাঙ্গা রাখার জন্য মজা করে একটি নোট লেখেন ম্যাকক্লেনাগানের স্ত্রী।

বাসার রেফ্রিজারেটরে থাকা স্ত্রীর নোটের ছবি টুইটারে পোস্ট করে মিচেল ম্যাকক্লেনাগান লিখেছেন,

‘আইসোলেশনে থাকতে সরাসরি বাসায়। বাসায় ফিরে আমার কিংবদন্তি স্ত্রীর এই নোটিশ পেলাম। সে কয়েক সপ্তাহের জন্য তার বাবা-মায়ের সঙ্গে আছে। ১৪ দিন পর দেখা হবে সবার সঙ্গে।’

৯৭ প্রতিবেদক

Read Previous

আশরাফুল, মাশরাফির ব্যর্থতার দিনে দল পেল বড় জয়

Read Next

লম্বা সময়ের জন্য ক্রিকেটীয় কার্যক্রম বন্ধ দক্ষিণ আফ্রিকায়

Leave a Reply

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।

Total
7
Share