শেষ ওভারের রোমাঞ্চে দোলেশ্বর হারালো ব্রাদার্সকে

prime
Vinkmag ad

তাইবুর রহমান পারভেজের অপরাজিত সেঞ্চুরি ও রেজাউর রহমানের ৪ উইকেটে ঢাকা প্রিমিয়ার লিগের এবারের আসর জয় দিয়েই শুরু করলো প্রাইম দোলেশ্বর স্পোর্টিং ক্লাব। রোমাঞ্চকর ম্যাচে ব্রাদার্স ইউনিয়নকে ৮ রানে হারায় দোলেশ্বর।

ফতুল্লার খান সাহেব ওসমান আলী স্টেডিয়ামে টস হেরে আগে ব্যাট করে তাইবুর রহমানের সেঞ্চুরিতে ৭ উইকেটে ২৩৮ রান করে প্রাইম দোলেশ্বর। জবাবে ব্যাট করতে নেমে ২৩০ রানে অলআউট হয় ব্রাদার্স ইউনিয়ন। রেজাউর ৩৬ রানে ৪ উইকেট শিকার করে দলের জয়ে দারুণ ভাবে অবদান রাখেন।

২৩৮ রান টপকাতে নেমে শুরুতেই বিপাকে ব্রাদার্স ইউনিয়ন। ৩৫ রানে নেই শুরুর দুই ব্যাটসম্যান। ওপেনার মিজানুর ১৭ রানে, আর তিনে নামা মাইশুকুর ৩ রানে। রেজাউর রহমানের বলের কাছে যেন ব্রাদার্স বিপর্যস্ত। এরপর দলকে স্বস্তিতে ফেরান জুনায়দে সিদ্দিকি-তুষার ইমরান জুটি।

তৃতীয় উইকেটে জুনায়েদ সিদ্দিকী ও তুষার ইমরানের ব্যাটে আসে  ৯২ রানের জুটি। ফিফটি পূর্ণ করার সঙ্গে-সঙ্গেই লেগ বিফোরের ফাঁদে তুষার ইমরানের বিদায়। শেষ ৬ বলে দরকার ৯ রান। হাতে ২ উইকেটে। বোলার রেজাউর রহমান।  ওভারের প্রথম বলে নাইম ইসলাম জুনিয়র ফিরেছেন রান আউটে। ৪র্থ বলে আউট জুনায়েদ; সেঞ্চুরির কাছে গিয়েও শেষ পর্যন্ত ৯৭ রান করে শেষ ব্যাটসম্যান হিসেবে আউট হন। ২৩০ রানে অলআউট হয় ব্রাদার্স ইউনিয়ন।

এর আগে ব্যাট করতে নেমে শুরুটা ভালো হয়নি দোলেশ্বরের। ২৯ বল মোকাবেলা করে মাত্র ৪ রান করে বোল্ড হয়ে যান ওপেনার সাইফ হাসান। সাইফের পথেই হাঁটলেন ফজলে মাহমুদ। ৫২ রানে নেই ৩ উইকেট। উইকেটে থিতু হয়েও ইনিংস বাড়াতে পারলেন না ইমরান। অধিনায়ক মার্শাল আইয়ুবেরও একই অবস্থা। ৪৬ বলে খেলেন ২৬ রানের ইনিংস।

অধিনায়ক প্যাভিলিয়নে হাঁটলেন আর একপ্রান্তে দাঁড়িয়ে সেঞ্চুরির ছক আঁকলেন তাইবুর রহমান। দেখেছেন ব্যাটসম্যানদের আসা-যাওয়ার মিছিল। সপ্তম উইকেটে এনামুল হক জুনিয়রকে নিয়ে লড়াই করেন তাইবুর। ৬২ রানের জুটি গড়েন তারা।

ইনিংসের শেষ ওভারে যেয়ে সেঞ্চুরি স্পর্শ করেন তাইবুর। তাইবুরের লড়াকু সেঞ্চুরিতেই ২০০ রানের পথ পাড়ি দেয় প্রাইম দোলেশ্বর। শেষ পর্যন্ত নির্ধারিত ৫০ ওভারে ৭ উইকেট হারিয়ে ২৩৮ রান সংগ্রহ করে দোলেশ্বর।

সংক্ষিপ্ত স্কোরঃ

প্রাইম দোলেশ্বের: ৫০ ওভারে ২৩৮/৭ (সাইফ ৪, ইমরান ৩৪, মাহমুদ ৬, মার্শাল ২৬, তাইবুর ১১০*, শরিফউল্লাহ ১৩, শামীম ৪, এনামুল জুনিয়র ২৩, রাব্বি ২*; বাবু ৯-১-৩৫-১, রাহাতুল ৯-০-৩৭-১, নাঈম জুনিয়র ৭-০-২৩-০, সাকলাইন ৭-১-২৭-২, শাহজাদা ৮-০-৬১-০, মাইশুকুর ৫-০-১৯-১, কাইয়ুম, ৫-০-৩২-১)

ব্রাদার্স ইউনিয়ন: ৪৯.৪ ওভারে ২৩০/১০ (মিজানুর ১৭, জুনায়েদ ৯৭, মাইশুকুর ৩, তুষার ৫১, কাইয়ুম ০, জাহিদ ৪, রাহাতুল ৩১, শাহজাদা ১৩, বাবু ২, নাঈম জুনিয়র ১, সাকলাইন ০*; রাব্বি ৮-০-৫৫-১, শামীম ১০-০-৩৫-১, রেজাউর ৯.৪-০-৩৬-৪, শরিফউল্লাহ ১০-০-৪৭-২, রায়হান ৫-০-২৭-০, এনামুল জুনিয়র ৩-০-১২-০, সাইফ ৪-০-১৫-১)

ফলাফলঃ প্রাইম দোলেশ্বর ৮ রানে জয়ী

ম্যাচ সেরাঃ তাইবুর রহমান

৯৭ প্রতিবেদক

Read Previous

ধারাভাষ্য প্যানেল থেকে বাদ পড়ে সঞ্জয় মাঞ্জরেকারের প্রতিক্রিয়া

Read Next

টেস্টেও কখনো এমন হয়নি মুশফিকের!

Leave a Reply

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।

Total
10
Share