‘আগের ম্যাচ থেকে এই ম্যাচে ভালো বোলিং করেছি’

মাশরাফি বিন মর্তুজা প্রেস

বিশ্বকাপে ৮ ম্যাচে উইকেট নিতে পেরেছেন মাত্র একটি, ক্যারিয়ারের পড়ন্ত বেলায় সমালোচনার ঝড় সইতে হয় ওয়ানডে কাপ্তান মাশরাফি বিন মর্তুজাকে। বিশ্বকাপ শেষে অবসরের যাওয়ার গুঞ্জন উঠলেও পুরোদস্তুর প্রস্তুত ছিলেন শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে সিরিজে খেলার জন্য। চোটের কারণে দল বিমানে চড়ার একদিন আগে ছিটকে গেলে লম্বা সময় মাঠের বাইরেই কাটাতে হয় টাইগারদের ওয়ানডে অধিনায়ককে। জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে চলতি সিরিজের আগে ছিলনা কোন ওয়ানডে, ফলে প্রায় ৮ মাস পর লাল সবুজ জার্সিতে দেখা যায় নড়াইল এক্সপ্রেসকে।

মাঠে নেমেছেন তবে হাজারটা প্রশ্ন আর চাপের বোঝা নিয়ে। অবসর, ফিটনেস ইস্যুতে সমালোচনা, বোর্ডের সাথে অবসর প্রসঙ্গে দোটানা। তবে মাঠে নিজেকে নির্ভার প্রমাণেই ব্যস্ত ছিলেন টাইগার দলপতি। বিশ্বকাপের তৃতীয় ম্যাচে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে একমাত্র শিকারের পর উইকেট শূন্য ছিলেন ৫ ম্যাচ। জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে প্রথম ওয়ানডেতে চামু চিবাবাকে মাহমুদউল্লাহ রিয়াদের ক্যাচ বানিয়ে ২৬৬ দিন পর পান উইকেট, ম্যাচে নেন ৬.১ ওভারে ৩৫ রান খরচায় ২ উইকেট।

দ্বিতীয় ওয়ানডেতে গতকাল (৩ মার্চ) ১০ ওভারে ৫২ রান খরচ করে নেন এক উইকেট। শেষ দুই ওভারে ২২ রান না দিলে ফিগারওটা হতে পারতো আরও ভদ্রস্থ। লম্বা সময় পর ফিরে প্রথম ম্যাচে কিছুটা জড়তা থাকলেও দ্বিতীয় ম্যাচে নিজেই অনুভব করেছেন ভালো করেছেন আগের ম্যাচের তুলনায়।

ম্যাচ শেষে সংবাদ সম্মেলনে মাশরাফি বলেন, ‘গত ম্যাচের চাইতে আজকে আমি অনুভব করছি ভালো হয়েছে। এরিয়া যেটা বলি আমরা সাধারনত, ধারাবাহিকভাবে একই এরিয়াতে বল করতে পারা। আমার কাছে মনে হয় গত ম্যাচ থেকে আজকে আমি একটু বেশি ধারাবাহিক ছিলাম বল ভালো জায়গায় ফেলার, ভালো ফিল করেছি।’

এদিকে মাঠে পারফরম্যান্সের সাথে মাশরাফির ফিটনেস নিয়ে সমালোচনাটাও বেশ কিছুদিন ধরে নিয়মিত চর্চা। শুধু মাত্র এক ফরম্যাট খেলেন সাথে জড়িয়েছেন রাজনীতিতে। আর এতেই ভাবা হয় মাশরাফি বুঝি নিয়মিত জিম, ট্রেইনিং করার ফুসরত পান না। কিন্তু অনেকটা নিরবেই মিরপুর একাডেমি জিমনেশিয়ামে ভোরের আলো ফোটার আগে মাশরাফির নিবিড় অনুশীলনের ঘটনাও খবরের শিরোনাম হয় বেশ ভালো করে। যদিও গণমাধ্যমকে এড়িয়ে যেতেই নীরবে নিভৃতে তার অমন অনুশীলন ছিল।

বিপিএলে পুরোদস্তুর ফিট বোলিং প্রদর্শন করলেন, লম্বা সময় পর জাতীয় দলের জার্সিতে ফিরেও খুব একটা মন্দ করেননি। অন্তত ফিটনেস ঘাটতিটা পড়েনি চোখে, বলা বাহুল্য জাতীয় দলের বিপ টেস্টে এখনো পর্যন্ত নির্ধারিত বেঞ্চ মার্ক উতরাতে পারেননি মাশরাফি এমন নজির নেই একবারও। গতকাল (৩ মার্চ) সংবাদ সম্মেলনে আসে তার ফিটনেস প্রসঙ্গও। মুচকি হাসির সাথে ছোট্ট বাক্যে হয়তো লুকালেন ভেতরের কষ্ট।

আপনার ফিটনেস ইস্যু নিয়ে সমালোচনা হচ্ছে অনেকদিন ধরে। গত দুই ম্যাচেই ছিলেন ছন্দে, মনে হচ্ছে ফিটনেসেও কোন ঘাটতি নেই। আপনার নিজের কি মনে হচ্ছে? এমন প্রশ্নে টাইগার দলপতির হাসি মেশানো উত্তর, ‘না কিছু বলার নাই, ধন্যবাদ।’

নাজমুল হাসান তারেক

Read Previous

সাইফউদ্দিনের না খেলাকে যে কারণে ইতিবাচক বলছেন মাশরাফি

Read Next

ডি ভিলিয়ার্সের আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ফেরার তারিখ জানালেন বাউচার

Leave a Reply

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।

Total
10
Share