জিম্বাবুয়েকে হারাতে ঘাম ঝরলো বাংলাদেশের

তামিম মিঠুন লিটন বাংলাদেশ

সিলেটের সিলেট আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়ামে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে দ্বিতীয় ওয়ানডে খেলতে নেমেছে বাংলাদেশ দল। তিন ম্যাচের সিরিজের ১ম ম্যাচে রেকর্ড গড়া জয় পেয়েছিল স্বাগতিকরা। এই ম্যাচের সকল খুঁটিনাটি আপডেট এই লাইভ রিপোর্টে।

শেষ দুই বলে জিম্বাবুয়ের দরকার ছিল ৬ রান। তবে আল আমিনের করা শেষ দুই বলে ১ রানের বেশি নিতে পারেননি টিরিপানো। ৪ রানে ম্যাচ জিতে সিরিজ জয় নিশ্চিত হল বাংলাদেশের। জিম্বাবুয়ের আফসোস বাড়িয়ে দিয়েছেন অনফিল্ড আম্পায়ার পল রেইফেল। শেষ ওভারের ৫ম বলটাকে খালি চোখে ওয়াইড মনে হলেও তা দেননি রেইফেল।

সংক্ষিপ্ত স্কোর:

বাংলাদেশ ৩২২/৮ (৫০), তামিম ১৫৮, লিটন ৯, শান্ত ৬, মুশফিক ৫৫, মাহমুদউল্লাহ ৪১, মিঠুন ৩২*, মিরাজ ৫, মাশরাফি ১, তাইজুল ০, শফিউল ৫*; মুম্বা ৬৪/২, শুমা ৩৫/১, টিরিপানো ৫৫/২, মাধেব্রে ৩৮/১।

জিম্বাবুয়ে ৩১৮/৮ (৫০), কামুনুকামে ৫১, চাকাভা ২, টেইলর ১১, উইলিয়ামস ১৪, মাধেব্রে ৫২, সিকান্দার ৬৬, মুতুম্বামি ১৯, মুতোম্বোজি ৩৪, টিরিপানো ৫৫*, মুম্বা ০*; মাশরাফি ৫২/১, শফিউল ৭৬/১, মিরাজ ২৫/১, আল আমিন ৮৫/১, তাইজুল ৫২/৩।

ফলাফলঃ বাংলাদেশ ৪ রানে জয়ী।

ম্যাচসেরাঃ তামিম ইকবাল (বাংলাদেশ)।

ডোনাল্ড টিরিপানোর ফিফটিঃ

২৬ বলে ২ চার ও ৫ ছক্কায় ফিফটি পূর্ণ করলেন ডোনাল্ড টিরিপানো। ৫০ তম ওভারের ৩য় ও ৪র্থ বলে আল আমিন হোসেনকে টানা দুই ছক্কা হাঁকান টিরিপানো।

জিম্বাবুয়েকে আশা দেখাচ্ছেন টিরিপানো-মুতোম্বোজিঃ

৭ম ব্যাটসম্যান হিসাবে সিকান্দার রাজা যখন সাজঘরে ফেরেন তখন জিম্বাবুয়ের রান ২২৫। জয়ের জন্য দরকার ছিল আরো ৯৮ রান। জিম্বাবুয়ের আশা তখন কার্যত শেষ বলেই ধরে নিয়েছিল সবাই। তবে জিম্বাবুয়েকে আশা দেখাতে শুরু করেন টিনোটেন্ডা মুতোম্বোজি ও ডোনাল্ড টিরিপানো। দুজন মিলে ৪৫ বলে ৮ম উইকেটে যোগ করেন ৮০ রান। ২১ বলে ৩৪ রান করে মুতোম্বোজি যখন আউট হন জিম্বাবুয়ের তখন জিততে দরকার৪ বলে ১৮ রান।

তাইজুলের ৩য় শিকার মুতুম্বামি, রাজাকে ফেরালেন মাশরাফিঃ

তাইজুল ইসলামের ৩য় শিকার হয়ে সাজঘরে ফিরেছেন রিচমন্ড মুতুম্বামি (১৯)। দারুণ খেলতে থাকা সিকান্দার রাজাকে সাজঘরের পথ দেখান মাশরাফি বিন মর্তুজা। ৫৭ বলে ৫ চার ও ২ ছক্কায় ৬৬ রান করেন রাজা।

ফিফটি করে ফিরলেন মাধেব্রেওঃ

অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপ খেলে আসা ওয়েসলি মাধেব্রের ওয়ানডে অভিষেক এই সিরিজেরই প্রথম ম্যাচে। আজ ক্যারিয়ারের ২য় ম্যাচে এসে তুলে নিয়েছেন ফিফটি। যদিও কামুনুকামের মতো ফিফটিকে বড় করতে পারেননি তিনি। ৫৭ বলে ৫ চারে ৫২ রান করে তাইজুল ইসলামের বলে লেগ বিফোর উইকেটের ফাঁদে পড়েন মাধেব্রে। সিকান্দার রাজার সঙ্গে ৮১ রানের জুটি গড়েন মাধেব্রে।

ফিফটি করে ফিরলেন কামুনুকামেঃ 

নিজের ৫ম ওয়ানডে খেলতে নেমে ক্যারিয়ারের প্রথম ফিফটি তুলে নিয়েছিলেন জিম্বাবুয়ে ওপেনার তিনাশে কামুনুকামে। তবে ফিফটি পূর্ণ করার পর আর বেশিক্ষণ টেকেননি তিনি। ৭০ বলে ৫ চার ও ২ ছয়ে ৫১ রান করে তাইজুল ইসলামের বলে বোল্ড হন এই ডানহাতি ওপেনার।

ফিরে গেলেন জিম্বাবুয়ে অধিনায়কঃ

নিয়মিত অধিনায়ক চামু চিবাবা আজ খেলছেন না অসুস্থতার কারণে, আজকের ম্যাচে জিম্বাবুয়ের অধিনায়কত্ব করছেন শন উইলিয়ামস। দলকে ৬৭ রানে রেখে তৃতীয় ব্যাটসম্যান হিসাবে আউট হলেন উইলিয়ামস। ২৪ বলে ৩ চারে ১৪ রান করে মেহেদী হাসান মিরাজের বলে লেগ বিফোর উইকেটের ফাঁদে পড়েন তিনি।

রান আউটে কাটা পড়লেন টেইলরঃ

১৫ রানের মাথায় ১ম উইকেটের পতনের পর উইকেটে এসেছিলেন ব্রেন্ডন টেইলর। ধীরে শুরু করা টেইলর উইকেটে থিতু হচ্ছিলেন। তবে ২১ বলে ২ চারে ১১ রান করে রান আউটে কাটা পড়লেন টেইলর। দলীয় ৪৪ রানের মাথায় পতন হলো জিম্বাবুয়ের ২য় উইকেটের। তিনাশে কামুনুকামেকে সঙ্গ দিতে চারে ব্যাট করতে নেমেছেন দলীয় অধিনায়ক শন উইলিয়ামস।

চাকাভাকে ফেরালেন শফিউলঃ

বড় রান তাড়া করতে নেমে জিম্বাবুয়ের শুরুটা ভালো হলনা। ৫ বলে ২ রান করে শফিউল ইসলামের বলে আউট হলেন রেজিস চাকাভা (লিটনের হাতে ক্যাচ দিয়ে)। দলীয় ১৫ রানের মাথায় প্রথম উইকেটের পতন ঘটল জিম্বাবুয়ের।

জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে রেকর্ড সংগ্রহঃ

আগের দিন জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে ৬ উইকেটে ৩২১ রান তুলেছিল বাংলাদেশ, যা ছিল জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে বাংলাদেশের সর্বোচ্চ দলীয় সংগ্রহ। আজ সেটাকেও টপকে গেলো বাংলাদেশ (৩২২/৮)।

সংক্ষিপ্ত স্কোর (১ম ইনিংস শেষে):

বাংলাদেশ ৩২২/৮ (৫০), তামিম ১৫৮, লিটন ৯, শান্ত ৬, মুশফিক ৫৫, মাহমুদউল্লাহ ৪১, মিঠুন ৩২*, মিরাজ ৫, মাশরাফি ১, তাইজুল ০, শফিউল ৫*; মুম্বা ৬৪/২, শুমা ৩৫/১, টিরিপানো ৫৫/২, মাধেব্রে ৩৮/১।

১৯ রান তুলতে ৪ উইকেটঃ

২৯২ থেকে ৩১১ রান পর্যন্ত পৌঁছাতে ৪ টি উইকেট হারিয়েছে বাংলাদেশ। তামিম ইকবালের পর সাজঘরে ফেরেন মেহেদী হাসান মিরাজ (৫), মাশরাফি বিন মর্তুজা (১), তাইজুল ইসলাম (০)।

নিজেকে ছাড়িয়ে গেলেন তামিমঃ

২০০৯ সালে বুলাওয়েতে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে ১৫৪ রানের ইনিংস খেলে ম্লান করে দেন চার্ল কভেন্ট্রির ১৯৪ রানের ইনিংসকে। তামিমের ঐ ইনিংসে ভর করেই ৩১২ রানের লক্ষ্য সহজেই তাড়া করে জেতে বাংলাদেশ। ১৩৮ বলে খেলা দুর্দান্ত ইনিংসটিই এতদিন বাংলাদেশের হয়ে ওয়ানডেতে সর্বোচ্চ ব্যক্তিগত ইনিংস হিসেবে টিকে ছিল। আজ (৩ মার্চ) সিলেট আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়ামে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষেই নিজের রেকর্ড ভেঙে নতুন করে লেখান তামিম ইকবাল।

প্রায় ১১ বছর টিকে থাকা রেকর্ড ভাঙার কাছাকাছি গিয়েছিলেন মুশফিকুর রহিম, ইমরুল কায়েস। দুজনেই অবশ্য থেমেছেন ১৪৪ রানে। ৩৭ তম ওভারেই সেঞ্চুরিতে পৌঁছানো তামিমের সামনে ছিল রেকর্ড নতুন করে লেখানোর সুযোগ, লম্বা সময় পর স্বরূপে ফেরা তামিম কাজেও লাগান সেই সুযোগ। ৪৫তম ওভারের শেষ বলে ১৫০ পার করেন বাঁহাতি এই ওপেনার।

২০ চার ২ ছক্কায় ১৫০ পেরোনো তামিম নিজের ১৫৪ রানের সর্বোচ্চ ইনিংসের রেকর্ডকে অতীত করেন ৪৬ তম ওভারের প্রথম বলেই মুম্বাকে ইনিংসে নিজের তৃতীয় ছক্কা হাঁকিয়ে। এই ইনিংসের ফলে ওয়ানডেতে ১৫০ পেরোনো দুটি ব্যক্তিগত ইনিংসের মালিকই এখন তামিম। অবশ্য ১৩৬ বলে ১৫৮ রান করে আউট হয়েছেন তিনি।

 

View this post on Instagram

 

High scores in ODI for Bangladesh (updated). #BANvZIM

A post shared by cricket97 (@cricket97bd) on

ফিরে গেলেন মাহমুদউল্লাহঃ

তামিম ইকবালের সঙ্গে ১৭ ওভার স্থায়ী জুটিতে ১০৬ রান যোগ করে সাজঘরে ফিরলেন মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ। শুমার বল উড়িয়ে মারতে যেয়ে বাউন্ডারির কাছে মাধেব্রের হাতে ধরা পড়েন রিয়াদ। এই জুটিতে মাহমুদউল্লাহ’র অবদান ৫৭ বলে ৪১ রান।

১৯ মাস পর তামিমের সেঞ্চুরিঃ

নেইল ম্যাকেঞ্জির গতকালের (২ মার্চ) বার্তার পর অন্য এক তামিম ইকবালের দেখা মিলল আজ (৩ মার্চ) সিলেট আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে স্টেডিয়ামে। জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে দ্বিতীয় ওয়ানডেতে পুরোনো আগ্রাসী তামিমের আবির্ভাব হয়। আগের ম্যাচে ৪৩ বলে ২৪ রান করা তামিম ৪২ বলেই তুলে নেন ফিফটি। বেশ সাবলীলভাবে খেলে সফরকারী বোলারদের শাসন করে তুলে নেন ১২ তম ওয়ানডে সেঞ্চুরিও।

সময়ের হিসেবে ১৯ মাস পর ও ২৩ ইনিংস পর ওয়ানডে সেঞ্চুরির দেখা পেলেন তামিম। প্রথম বাংলাদেশি হিসেবে ৭০০০ ওয়ানডে রানের মাইলফলক স্পর্শ করার দিনে ১০৬ বলে ১৪ চারে তুলে নেন সেঞ্চুরি। ২০১৮ সালে ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফরে ২৮ জুলাই সেন্ট কিটসে সবশেষ (আজকের আগে) ওয়ানডে শতক আসে তামিমের ব্যাট থেকে।

মুশফিকের ফিফটিঃ

৪৭ বলে ৫ চারে পঞ্চাশ রান পূর্ণ করলেন মুশফিকুর রহিম। ওয়ানডে ক্যারিয়ারে এটি মুশফিকের ৩৮ তম ফিফটি। যদিও ফিফটি করার পর টেকেননি বেশিক্ষণ। ৫০ বলে ৬ চারে ৫৫ রান করে মাধেব্রের বলে ক্যাচ দেন মুতোম্বোজিকে।

 

View this post on Instagram

 

38th ODI fifty for Mushfiqur Rahim. #BANvZIM

A post shared by cricket97 (@cricket97bd) on

তামিমের ঝড়ো ফিফটিঃ

৪২ বলে ১০ চারে ৫০ রান পূর্ণ করলেন তামিম ইকবাল। ওয়ানডে ক্যারিয়ারে এটি তামিমের ৪৮ তম ফিফটি।

 

View this post on Instagram

 

48th ODI fifty for Tamim Iqbal. #BANvZIM

A post shared by cricket97 (@cricket97bd) on

তামিমের ভুলে ফিরলেন শান্তঃ

আগের ম্যাচে ভালো শুরু করেও তামিম ইকবালের রিভিউ নষ্টের খেসারত দিয়ে ফিরতে হয়েছে নাজমুল হোসেন শান্তকে। আজ দ্বিতীয় ওয়ানডেতেও তামিমের ভুল ডাকে রান আউটে কাটা পড়ে ফিরতে হয় বাঁহাতি এই ব্যাটসম্যানকে। মাধেব্রের করা ১১ তম ওভারের দ্বিতীয় বলে ফাইন লেগ অঞ্চলে ঠেলে দেন শান্ত, কিন্তু বল সরাসরি পৌঁছায় ব্রেন্ডন টেইলরের হাতে। যেখান থেকে রান নেওয়া প্রায় অসাধ্য, অথচ শান্ত নিজের জায়গায় থাকলেও তামিম ঠিকই পৌঁছে যান স্ট্রাইকিং প্রান্তে। বোকা বনে যাওয়া শান্তকে ফিরতে হয় ৬ রান করেই।

রান আউটে কাটা পড়লেন লিটনঃ

আগের ম্যাচেই করেছিলেন দারুণ এক সেঞ্চুরি। আজও শুরু করেছিলেন ভালোই। তবে দুর্ভাগ্যজনকভাবে রান আউট হয়ে সাজঘরে ফিরলেন লিটন দাস। ১৪ বলে ২ চারে ৯ রান করেন এই ডানহাত ব্যাটসম্যান।

বাংলাদেশ একাদশঃ

তামিম ইকবাল, লিটন দাস , মুশফিকুর রহিম (উইকেটরক্ষক), মোহাম্মদ মিঠুন, মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ, নাজমুল হোসেন শান্ত, শফিউল ইসলাম, মেহেদী হাসান মিরাজ, তাইজুল ইসলাম, মাশরাফি বিন মর্তুজা (অধিনায়ক) ও আল আমিন হোসেন।

জিম্বাবুয়ে একাদশঃ

তিনাশে কামুনুকামে, রেজিস চাকাভা, ব্রেন্ডন টেইলর, শন উইলিয়ামস (অধিনায়ক), সিকান্দার রাজা, ওয়েসলি মাধেব্রে, রিচমন্ড মুতাম্বামি (উইকেটরক্ষক), টিনোটেন্ডা মুতোম্বোজি, ডোনাল্ড টিরিপানো, চার্লটন শুমা ও চার্ল মুম্বা।

টসঃ

সিলেট আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়ামে আজও টসে জিতেছেন বাংলাদেশ দলপতি মাশরাফি বিন মর্তুজা। আজও আগে ব্যাট করবে টাইগাররা। বাংলাদেশ একাদশে এসেছে দুই পরিবর্তন। মোহাম্মদ সাইফউদ্দিন ও মুস্তাফিজুর রহমান বাদ পড়েছেন, একাদশে ঢুকেছেন শফিউল ইসলাম ও আল আমিন হোসেন। জিম্বাবুয়ে দলের হয়ে আজ টস করতে নামেন শন উইলিয়ামস। এই সিরিজে নিয়মিত অধিনায়ক চামু চিবাবা অসুস্থ বিধায় আজ একাদশেই নেই। ক্রেইগ আরভিন এখনো সেরে ওঠেননি। ক্রিস পোফুর স্থানে জিম্বাবুয়ে একাদশে ঢুকেছেন চার্লটন শুমা।

৯৭ প্রতিবেদক

Read Previous

নতুন ঠিকানায় এসে রোমাঞ্চিত আকবর, জয়, সাকিবরা

Read Next

সাত হাজারি ক্লাবে প্রথম বাংলাদেশি তামিম

Leave a Reply

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।

Total
30
Share