আমরা স্কুলমাস্টার না যে তামিমকে শিখিয়ে দেবোঃ ম্যাকেঞ্জি

তামিম ইকবাল নিল ম্যাকেঞ্জি

দেশের ক্রিকেটের অন্যতম সফল ব্যাটসম্যান তামিম ইকবাল। দেশের ক্রিকেটের ব্যাটসম্যানদের প্রায় সব রেকর্ডই তার দখলে। ক্যারিয়ারের শুরুর আগ্রাসী তামিম ২০১৫ বিশ্বকাপের পর একেবারেই বদলে ফেলেন নিজেকে। খোলসবন্দী তামিম পান দারুণ সাফল্যও। ফিটনেস থেকে, ব্যাটিং অনুশীলনে সময় পার করেন অন্য অনেকের চেয়ে বেশিও। কিন্তু সাম্প্রতিক সময়ে তামিম নিজের ব্যাটিং ধরণে অনেকটা মুখস্থ তত্ত্বে ইনিংস গড়ছেন। ফরম্যাট যাই হোক তামিম যেন বেরই হতে পারছেন না নিজের তত্ত্ব থেকে।

শুরুতে একদম খোলসবন্দী শুরু, ডট খেলাটা রীতিমত অভ্যাসে পরিণত হয়েছে বাঁহাতি এই ব্যাটসম্যানের। প্রতিপক্ষ যেই হোক ক্রিজে তামিমের শুরু হাঁসফাঁসে স্পষ্ট কতটা আত্মবিশ্বাসের ঘাটতি। গতকাল (১ মার্চ) খর্ব শক্তির জিম্বাবুয়ের বিপক্ষেও ওপেন করতে নেমে ৪৩ বলে খেলেন ২৪ রানের ইনিংস। অথচ অপর প্রান্তে সঙ্গী লিটন ছিলেন বেশ সাবলীল, আক্রমণাত্মক খেলেই তুলে নেন সেঞ্চুরিও (১২০ স্ট্রাইক রেটে)।

তামিমের সমস্যাটা কোথায় তা সবচেয়ে ভালো জানার কথা দলের ব্যাটিং পরামর্শক নেইল ম্যাকেঞ্জির। ম্যাকেঞ্জি অবশ্য বলছেন মাঠে খেলাটা খেলতে হবে তামিমকেই, নিজেরা স্কুল মাস্টার না উল্লেখ করে দক্ষিণ আফ্রিকান সাবেক এই ব্যাটিং তারকা বলেন তাদের দেওয়া টেকনিক্যাল পরামর্শ প্রয়োগ করতে হবে ব্যাটসম্যানকেই। তার ধীর গতির ব্যাটিং নিয়ে প্রশ্নটা বেশ কিছু দিন আগে থেকেই। দলের নির্দেশনা মেনেই তামিম ধীরে ব্যাটিং করেন এমন খবরও প্রকাশ হয়েছিল দিন কয়েক আগে।

519A9631
ছবিঃ বিসিবি

তবে ম্যাকঞ্জি বলছেন তামিমকে গেম প্ল্যান দেওয়ার কিছু নেই সে নিজেই জানে মাঠে তার কি করতে হবে, ‘না, সে তার গেমপ্ল্যান জানে। আমরা এখানে কেউ স্কুলমাস্টার না যে বলবো কি করতে হবে, কি করতে হবে না। আমরা আমাদের মতামত দিই, টেকনিক্যাল পরামর্শ দিই। প্লেয়ারদের দায়িত্ব খেলায় সেটা প্রয়োগ করা। আমি তরুণ ক্রিকেটারদের কথা বলছি না, আমি সিনিয়র ক্রিকেটারদের কথা বলছি।’

‘বিশ্বাস করেন, যদি আপনারা মনে করেন সে কোন ভুল করেছে; আপনার বোঝার আগে সে বুঝে যাবে যে সে ভুল করেছে। তামিম নিজের ওপর অনেক প্রেশার দেয়। সে যদি আরো দুই-একটা বাউন্ডারি আদায় করে নিতে পারে তাহলে আপনারা সব ভুলে বলবেন ‘হি ইজ ব্যাক।’

তবে তামিমের চেষ্টা নিয়ে সন্দেহ নেই এই দক্ষিণ আফ্রিকানের, ‘এমন না সে চেষ্টা করছে না, এমনও না যে সে ফিট না। সে অন্য যেকোন সময়ের চেয়ে বেশি ফিট। আমার তামিমকে নিয়ে কোন দুশ্চিন্তা নেই। আমি অনুশীলনে তার পেশাদারিত্ব দেখেছি।’

ম্যাকেঞ্জি মনে করেন এক যুগের বেশি সময় ধরে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট খেলা তামিম নিজেই জানে তাকে কি করতে হবে। তিনি বলেন, ‘যখন একজন ক্রিকেটার অনেকদিন ধরে ক্রিকেট খেলে সে জানে তাকে কি করতে হবে। আমি তামিমের সঙ্গে কথা বলবো। আমার মনে হয় তার আরো কিছু বাউন্ডারি দরকার। সে এটা কিভাবে পাবে সেটা তার অ্যাপ্রোচ। কেউ তামিমের হয়ে ব্যাট করে দিবে না। তামিমকে নিজেই তার জন্য ব্যাট করতে হবে।’

তামিমের সামর্থ্য সম্পর্কেও কোন সংশয় নেই জাতীয় দলের ব্যাটিং পরামর্শকের। উদাহরণ হিসেবে টেনেছেন বিপিএলের ৬ষ্ঠ আসরে ফাইনালে কুমিল্লাকে শিরোপা জেতানো বিধ্বংসী ইনিংসকে, ‘আমি দেখছি না সে ধীরে ব্যাট করছে নাকি দ্রুত রান তুলছে। আমরা জানি সে আমাদের জন্য কত গুরুত্বপূর্ণ। সে ভালো মানের বোলারদের বিপক্ষে ভালো শট খেলেছে। আমরা যেটা চাচ্ছি যে পাওয়ার প্লে তে সে আরেকটু বেশি শট খেলুক। আমরা জানি সে কি করতে পারে। বিপিএলে ২ বছর আগে সে ম্যাচ জেতানো বড় সেঞ্চুরি করেছিল। আমরা জানি সে কি করতে পারে আর সেটা খুব দূরে নেই।’

নাজমুল হাসান তারেক

Read Previous

লিটনকে ক্ষুধার্ত মনে হচ্ছে ম্যাকেঞ্জির

Read Next

মাঠে কোহলির আচরণ নিয়ে প্রশ্ন, চটলেন সাংবাদিকের ওপর

Leave a Reply

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।

Total
37
Share