সিরিজ জিতে নিলো ইংলিশরা

match report 28
Vinkmag ad

264908

স্বাগতিক ইংলিশদের বিপক্ষে সফরকারী দক্ষিণ আফ্রিকার মধ্যকার তিন ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজ ২-১ ব্যবধানে জিতে নিয়েছে স্বাগতিকরা। আগের দুই ম্যাচে দুই দলই একটি করে জয় পাওয়ায় শেষ ম্যাচটি হয়ে দাঁড়ায় অঘোষিত ফাইনাল। সে ফাইনালে সফরকারীদের ১৯ রানে পরাজিত করে সিরিজ পকেটে পুরে নিলো স্বাগতিকরা। 

কার্ডিফে টস জিতে প্রোটিয়া কাপ্তান এবিডি ভিলিয়ার্স ইয়ান মরগানের বদলে অধিনায়ক হিসেবে মাঠে নামা জশ বাটলারকে আমন্ত্রণ জানান প্রথমে ব্যাটিংয়ের। আগের ম্যাচে অর্ধশতক হাঁকানো জেসন রয় দলীয় ১৩ রানে ফিরলেও দ্বিতীয় উইকেট জুটিতে অ্যালেক্স হেলসকে সঙ্গে নিয়ে ওয়ান ডাউনে নামা ডেভিড মালান গড়েন শতরানের জুটি। ১০৫ রানের জুটিতে হেলসের অবদান ছিল ৩৬।

হেলসের ফিরে যাওয়ার ঠিক ১১ রানের মাথায় ফিরে যান ইনিংসে ইংলিশদের হয়ে অভিষেকেই সর্বোচ্চ রান করা ডেভিড মালান। ইংল্যান্ডের জার্সিতে নিজের প্রথম ম্যাচেই অর্ধশতক হাঁকানোর গৌরব অর্জন করা মালান ৪৪ বলে ১২ চার আর ২ ছয়ে করেন ৭৮ রান। দলপতি বাটলারের ব্যাট থেকে ৩১ রান আসলে নির্ধারিত ২০ ওভার শেষে স্বাগতিকদের পুঁজি দাঁড়ায় ৮ উইকেটে ১৮১ রান। ড্যান প্যাটারসন শিকার করেন চার উইকেট।

জবাবে প্রোটিয়া উদ্বোধনী ব্যাটসম্যান জন স্মাটস এ ম্যাচেও শুরুটা করেন দারুণ। কিন্তু মাত্র ৫৯ রানের মাঝেই ফিরে যায় আফ্রিকানদের টপ অর্ডার। ২৯ রান করে ফেরেন স্মাটসও। সেখান থেকেই খেই হারানো শুরু করে সফরকারীরা। মাঝে দলনায়ক ভিলিয়ার্সের ৩৫ এবং শেষদিকে মাঙ্গালিসো মসেলের ৩৬ রান শুধু পরাজয়ের ব্যবধানই কমিয়েছে।

২০ ওভার শেষে ৭ উইকেটে দক্ষিণ আফ্রিকার সংগ্রহ ছিল ১৬২ রান। ১৯ রানের জয় নিয়ে সিরিজটাও বগলদাবা করেই মাঠ ছাড়ে ইংলিশরা। টম কারান দুটি এবং ক্রিস জর্দান শিকার করেন সর্বোচ্চ তিন উইকেট। অভিষেকেই দারুণ এক ইনিংস খেলা ডেভিড মালানের ঘরের যায় ম্যাচ সেরার পুরষ্কার।

ওয়ানডে এবং টি-টোয়েন্টি দুই সিরিজ শেষ করে এবার দু’দলের অপেক্ষা সাদা পোশাকের লড়াইয়ের। যদিও ওয়ানডে এবং টি-টোয়েন্টি দুই সিরিজই জিতে নেয়া ভীষণ আত্মবিশ্বাসী ইংলিশ দলের বিপক্ষে টেস্টে লড়াই করতে বেগটা বেশ পেতে হবে সফরকারীদের তেমনটা অনুমেয়ই।

সংক্ষিপ্ত স্কোরকার্ডঃ

ইংল্যান্ডঃ ১৮১/৮ (২০ ওভার) ডেভিড মালান ৭৮, অ্যালেক্স হেলস ৩৬, বাটলার ৩১। ড্যান প্যাটারসন ৪/৩২, ফেহলুখায়ো ২/৪৪

দক্ষিণ আফ্রিকাঃ ১৬২/৭ (২০ ওভার) মসেলে ৩৬, ডি ভিলিয়ার্স ৩৫, স্মাটস ২৯, ফেহলুখায়ো ২৭। ক্রিস জর্দান ৩/৩১, টম কারান ২/২২

ফলাফলঃ ইংল্যান্ড ১৯ রানে জয়ী।

ম্যান অফ দ্য ম্যাচঃ ডেভিড মালান (ইংল্যান্ড)।

সিরিজঃ ইংল্যান্ড ২-১ ব্যবধানে জয়ী।

৯৭ ডেস্ক

Read Previous

অজিদের বাংলাদেশ সফরের আগে প্রস্তুতি ডারউইনে

Read Next

রাহানের সেঞ্চুরিতে ভারতের দারুণ জয়

Leave a Reply

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।

Total
0
Share